Today 16 Oct 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

অন্ধকার!

লিখেছেন: সেতারা ইয়াসমিন হ্যাপি | তারিখ: ২৩/১২/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 719বার পড়া হয়েছে।

জানি একদিন অন্ধকারের অতল গহিনে
হারিয়ে যাব প্রিয়, ফিরবনা আর তোমাদের মাঝে,
এ কথা স্মরিয়া বুকের মাঝেতে,
কি যে এক বেদনার সুর বাজে ।

তোমাদের ডাকে কখনও বন্ধু পারবনা দিতে সাড়া,
সেই কষ্টটাই বুকে বাজে, করে আমায় তাড়া ।
আকাশের ঐ তারাদের সাথে বসবাস করব আমি,
রাতের আঁধারে, সজল নয়নে খুজে নিও প্রিয় তুমি..।

বাতাসের সাথে মিশিয়া থাকিবে আমার প্রানের ছোঁয়া,
সেই বাতাসে জুড়াবে তুমি, এইত আমার পরম পাওয়া..।
কখনও যদি কাশফুল হয়ে ফুটে থাকি নদীর ধারে,
করিওনা হেলা দেখতে যেও, ছুঁয়ে এসো যতন করে..।

কখন যদি ঝরে পরি শিউলি ফুলের মত করে,
পদদলিত করনা আমায়, কুড়িয়ে নিও মমতা ভরে…।
যদি কখনও কাঠমালা হয়ে ফুটে থাকি রাস্তার ধারে,
দুস্টু ছেলেরা ফেলবে আমায় শিকড়সহ উপড়ে…।

হে প্রিয় হে বন্ধু আমার, দেখ যদি তা তুমি,
একটি বার বাধা দিও, খুশি হব তা দেখে আমি…।
ঘাস ফড়িং হয়ে কখনও যদি উড়ে আসি তোমার কাছে,
বিরক্ত বদনে তাকিওনা তুমি, আমি হারিয়ে যাব নিমিষে..।

আমার প্রানের ভুমরা তখন, কোথায় কোথায় উড়ে যাবে,
যেখানটাতে অবহেলা সেখান থেকেই দূরে পালাবে…।
দূর থেকে আমি দেখব চাহিয়া, বলতে পারবনা কিছু,
এই ভাবনাগুলোই করছে তাড়া, ছাড়ছেনা মোর পিছু.।

আমার কথা স্মরিয়া বন্ধু ফেলিওনা চোখের জল কভু,
পার যদি জায়নামাজে বসে দুহাত তোলো আর বলো
‘মোর বন্ধুকে ক্ষমা করো তুমি হে মহান প্রভু’
ওপার হতে আমি চাহিয়া রহিব এইটুকু আশা নিয়ে,
এই চাওয়াটুকু রেখে গেলাম বন্ধু, আমার বন্ধুত্ব দিয়ে।।

download
01/09/2010

৭০৪ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
আমি খুব সাধারণ একজন মানুষ... নিজেকে মানুষ ভাবতেই বেশি ভাল লাগে। আমার Academic Background: M.Sc. in Botany, MBA করেছি Bank Management -এর উপর, তারপরে PGDHRM Complete করলাম BIM (Bangladesh Institute of Management) থেকে....। বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানে কাজ করেছি। বর্তমানে সেনা কল্যাণ সংস্থা-তে আছি...রিসার্স অফিসার হিসাবে... আমি লেখক নই...তবে লেখা আমার রক্তে মিশে আছে কারণ বাবা ছিলেন সাংবাদিক...ছোটবেলা থেকেই লিখার চেষ্টা করতাম...বাবার পত্রিকায় তা প্রকাশও হতো যদিও কোনটাই বাবার মন মত হতোনা তবুও আমাকে উৎসাহ দেয়ার জন্যই হয়ত ছাপতেন সেসব লিখা...যার কোনটাই আমি সংরক্ষন করে রাখতে পারিনি...হয়ত গুরুত্বই বুঝিনি তখন...আজ বাবা নেই পৃথিবীতে...আমি ছেড়ে দিয়েছিলাম লেখা কিন্তু পরক্ষনেই মনে হলো আমাকে লেখাটা ধরে রাখতেই হবে অন্ততঃ বাবার জন্য। তাই মাঝে মাঝে হাবিজাবি লেখার চেষ্টা করি। খুব সাধারণ জীবন-যাপন করতে ভালোবাসি...বাবা বলতেন কারো উপকার করতে না পারলেও কারো ক্ষতির চিন্তা যেন মাথায়ও না আনি...সেটা মেনে চলার চেষ্টা করি। সুখী হওয়ার চেষ্টা করি, অল্পতে খুশি থাকার চেষ্টা করি আর সৃষ্টিকর্তাকে খুঁজে বেড়াই তাঁর সৃষ্টির মাঝে। নিজের অবস্থান থেকেই চেষ্টা করি আশেপাশে সুবিধাবঞ্চিত-মানুষদের জন্য কিছু করতে। মানুষকে মানুষ ভাবতেই বেশি সাচ্ছন্দ্য বোধ করি আর মনে প্রাণে বিশ্বাস করি মানব ধর্মই হচ্ছে সবচেয়ে বড় ধর্ম।
সর্বমোট পোস্ট: ৪৪ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৪৩ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৪-১২-০৩ ১০:০৫:০৯ মিনিটে
banner

৩ টি মন্তব্য

  1. শওকত আলী বেনু মন্তব্যে বলেছেন:

    কোথাও যেতে দিবনা আপনাকে । কোনো অন্ধকার নয় -আলো দিয়ে ভরে দিবেন সকলের প্রাণ । চমত্কার লিখেছেন স্মৃতি কথা । ভালো লাগলো কথামালা ।

  2. সহিদুল ইসলাম মন্তব্যে বলেছেন:

    আমার কথা স্মরিয়া বন্ধু ফেলিওনা চোখের জল কভু,
    পার যদি জায়নামাজে বসে দুহাত তোলো আর বলো
    ‘মোর বন্ধুকে ক্ষমা করো তুমি হে মহান প্রভু’

    এত সুন্দর এত চমৎকার লিখেছেন, কোন বিশেষণেই যেন এর প্রশংসা করে শেষ হবে না , আপি আপনার সুন্দর জীবন কামনায়, __ সহিদুল ।

  3. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    মুগ্ধতা রেখে গেলাম
    ধন্যবাদ কবি
    ভালো লাগলো আপা

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top