Today 19 May 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

অশরীরী শিকারিদের আষাঢ়ে গল্প

লিখেছেন: মৌনী রোম্মান | তারিখ: ০৩/০৯/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 552বার পড়া হয়েছে।

কারা যেন আগুন জ্বেলেছিল,
হাড় কাঁপানো গোধূলিতে আষাঢ়ে গল্পের ভিড়ে
তাপ পোহাতে ;
ধিকিধিকি আলোতে অশরীরী শিকারিরা বয়ান করছিল
জলে নেমে,
মাছ বনে যাওয়ার অভিজ্ঞতা ।

আরোও বলছিলো –
সাদা বিকেলে ছুটতে ছুটতে মানুষ অবয়ব কিভাবে
বিন্দুতে মিলিয়ে গিয়ে
বকপক্ষী রূপে ফিরে আসে,
অশরীরী মত্স্য শিকারে !

নিস্তব্ধ লালচে পৃথিবীটাকে
রহস্যপূর্ণ অট্টহাসিতে কাঁপিয়ে চিবোতে থাকে –
বকপক্ষীর ঝলসানো হৃদপিণ্ড !
নিভে যেতে থাকে শিখাগ্নি, থেমে যেতে থাকে ওদের
শিরা-ধমনীতে প্রবাহিত কথোপকথন

৬৭২ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
নিজেকে নিয়ে বলার মতোন কোন অবস্থানে এখনও পৌঁছাতে পারিনি, পড়াশোনা করছি । আমি মোটেও লেখক নই । সাহিত্যের একনিষ্ঠ পাঠক শুধু । লেখালেখির নিয়ম-নীতি সম্পর্কে একদম অজ্ঞ । কিশোর বয়সের প্রথম প্রহর থেকে ডায়রির সাথে সখ্যতা । সেই আমার অব-লেখনের সূচনা । গুছিয়ে কথা বলতে পারি না, তাই মনের মধ্যে অনেক কথাই অনুচ্চারিত থেকে যায় । সেগুলো প্রকাশের তাড়না থেকেই, শুধুমাত্র নিজের জন্য লেখি । এজন্যই আমার লেখাগুলোও বড্ড স্বার্থপর । অনেকটা সময় পর্যন্ত সব লেখা শুধু ডায়রিতেই আবদ্ধ ছিল । চলন্তিকায় যাত্রা শুরুর আগ পর্যন্ত, আমার লেখার একমাত্র পাঠক ছিলাম - আমি । হঠাত্ই অর্বাচীনের মত চলন্তিকায় একটা লেখা পোষ্ট করা, আর সবার ভালোবাসা ও অনুপ্রেরণায় আমার চরম দুঃসাহসী হয়ে উঠা । তাই যে কোন দোষ-ত্রুটি ধরিয়ে দিলে কৃতজ্ঞ থাকবো
সর্বমোট পোস্ট: ৩৭ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৬৪ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৮-২৪ ০৫:৫৩:৫৩ মিনিটে
banner

১০ টি মন্তব্য

  1. এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

    চমৎকার !
    ধরা যাক দু,একটা ইঁদুর এবার,

    অনেক ভাল লাগা+++++++++

  2. তুষার আহসান মন্তব্যে বলেছেন:

    “সাদা বিকেলে ছুটতে ছুটতে মানুষ অবয়ব কিভাবে
    বিন্দুতে মিলিয়ে গিয়ে
    বকপক্ষী রূপে ফিরে আসে,
    অশরীরী মত্স্য শিকারে !”

    চমৎকার।
    পরাবাস্তবতা ফুটে উঠেছে কবিতার সারা অঙ্গে।

  3. মৌনী রোম্মান মন্তব্যে বলেছেন:

    চলন্তিকায় এসে অনেক কিছু শিখতে পারছি, এভাবে কবিতা/লেখার নির্দিষ্ট অংশ ধরে বা বিষয় ধরে মন্তব্য কখনও পাইনি আমি ।
    পরাবাস্তব কবিতা লেখার চেষ্টাই ছিল । মনে হচ্ছে কিছুটা হলেও পেরেছি 😛
    অসংখ্য ধন্যবাদ ।

  4. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল লাগল। :)

  5. তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

    যত পড়ছি ভাল লাগা স্পর্শ করে যাচ্ছে আমায়–ভাবনার গভীরতা ভাবতেও যে ভাল লাগে।

  6. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    নিস্তব্ধ লালচে পৃথিবীটাকে
    রহস্যপূর্ণ অট্টহাসিতে কাঁপিয়ে চিবোতে থাকে –
    বকপক্ষীর ঝলসানো হৃদপিণ্ড !
    নিভে যেতে থাকে শিখাগ্নি, থেমে যেতে থাকে ওদের
    শিরা-ধমনীতে প্রবাহিত কথোপকথন

    আমার জন্য তোমার কবিতার ভাবার্থ উপলব্দি করা একটু কঠিন।কিন্তু পড়তে ভাল লাগে তোমার কবিতা বলে পড়ি।ধন্যবাদ মৌনি একটু অন্য ধাচে র কবিতায় অন্য ধরনের ফ্লেভার দেওয়ার জন্য।অনেক শুভকামনা মি্টি বোনটার জন্য।

  7. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    কবি আরজু আপা সাথে সহমত

    সো নাইস লিখা
    ,,,,,,,,,,,,,,,,,,,লিখতে থাকুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top