Today 27 May 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

আধুনিক নারী

লিখেছেন: আমির ইশতিয়াক | তারিখ: ১৮/১১/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 1179বার পড়া হয়েছে।

আধুনিক যুগের নারীরা
বুক ফুলিয়ে চলে,
ওড়না রেখে ফেলে
পুরুষদেরকে দেখানোর ছলে।

হাত খোলা তার বুক খোলা
পড়ে জিন্সের প্যান্ট,
পুরুষের মতো থাকতে চায়
সেজে হনুমান।

নানা রঙের কাপড় পড়ে
করছে তারা সাজ,
বেহায়ার মতো ঘুরে বেড়ায়
নেইকো তাদের লাজ।

১,২৩৫ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
আমির ইশতিয়াক ১৯৮০ সালের ৩১ অক্টোবর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর থানার ধরাভাঙ্গা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা শরীফ হোসেন এবং মা আনোয়ারা বেগম এর বড় সন্তান তিনি। স্ত্রী ইয়াছমিন আমির। এক সন্তান আফরিন সুলতানা আনিকা। তিনি প্রাথমিক শিক্ষা শুরু করেন মায়ের কাছ থেকে। মা-ই তার প্রথম পাঠশালা। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা শুরু করেন মাদ্রাসা থেকে আর শেষ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ে। তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে নরসিংদী সরকারি কলেজ থেকে সমাজবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ছাত্রজীবন থেকেই লেখালেখি শুরু করেন। তিনি লেখালেখির প্রেরণা পেয়েছেন বই পড়ে। তিনি গল্প লিখতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করলেও সাহিত্যের সবগুলো শাখায় তাঁর বিচরণ লক্ষ্য করা যায়। তাঁর বেশ কয়েকটি প্রকাশিত গ্রন্থ রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য উপন্যাস হলো- এ জীবন শুধু তোমার জন্য ও প্রাণের প্রিয়তমা। তাছাড়া বেশ কিছু সম্মিলিত সংকলনেও তাঁর গল্প ছাপা হয়েছে। তিনি নিয়মিতভাবে বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকায় গল্প, কবিতা, ছড়া ও কলাম লিখে যাচ্ছেন। এছাড়া বিভিন্ন ব্লগে নিজের লেখা শেয়ার করছেন। তিনি লেখালেখি করে বেশ কয়েটি পুরস্কারও পেয়েছেন। তিনি প্রথমে আমির হোসেন নামে লিখতেন। বর্তমানে আমির ইশতিয়াক নামে লিখছেন। বর্তমানে তিনি নরসিংদীতে ব্যবসা করছেন। তাঁর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা একজন সফল লেখক হওয়া।
সর্বমোট পোস্ট: ২৪১ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৪৭০৯ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৬-০৫ ০৭:৪৪:৩৯ মিনিটে
Visit আমির ইশতিয়াক Website.
banner

১৩ টি মন্তব্য

  1. তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

    প্যান্ট আর হনুমানের মিল পাওয়া না গেলেও ব্যঙ্গাত্মক কবিতা কিন্তু ভাল লেগেছে।

  2. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    ধন্যবাদ ভাই।

  3. এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

    বাস্তব সত্য ও আদর্শিক

    অনেক ভাল লাগা।

  4. সাঈদ চৌধুরী মন্তব্যে বলেছেন:

    আসলে আধুনিক নারী সম্পর্কে যেটা তুলে ধরেছেন তা কিছু কিছু ক্ষেত্রে সত্য হলেও এর জন্য আমি শুধু নারীদের দোষ দেবোনা । এর জন্য পারিবারিক শিক্ষাই দায়ী । যদি ছোটবেলা থেকে শালীনতা কোন মানুষের মধ্যে ঢোকানো হয় তবে এরকম অশ্লীলতাকে আধুনিকতা বোঝানো হবে না । আপনার লেখার মধ্যে যেভাবে আধুনিকতার বর্ণনা করা হয়েছে তা অন্যভাবে করলে বেশী ভালো হত । যারা এরকম অসভ্যতা করে নিজেদেরকে আধুনিকভাবে তাদের জন্য সকল আধুনিক নারীকে খাটো করলে বিবেককে একটু দায়ীই মনে হয় । ধণ্যবাদ ।

  5. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    ধন্যবাদ আপনার মতামতের জন্য।

  6. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    ভয় পেলাম ভাই আপনাদের কবিতা পড়ে এবং কমেন্টস পড়ে। ঠিক বুঝতে পারলামনা মনে হচ্ছে আমি হনুমাননীর ক্যাটাগরিতে পড়ে গেলাম। আচ্ছা ভাই ধর্ম পর্দা এগুলিকে অ্যাগ্রেসিভভাবে লিখায় না আনলে হয়না। আমাদের ধর্মে পর্দা কে ফরজ করা হয়েছে এটা ঠিক।কিন্তু নবী রাসুলরা কি খুব অ্যাগ্রেসিভভাবে পর্দাহীন মেয়েদের বেহায়া নির্লজ্জ বলে গালাগালি করেছেন।এটা দেখেছি সাঈদী সাহেব আরও বিভিন্ন হুজূরের ওয়াজের ক্যাসেটে।ইসলাম বা শরীয়ত মোতাবেক অনেক মেয়ে মাথায় হয়তবা ওড়না দেয়না তারপর ও খুব ভাল হতে পারে পরোপকারী হতে পারে। মূল জিনিস হচ্ছে আমি মনে করি একজন মেয়ে শালীন পোষাকে থাকবে। তারপর হিজাব বোরখা তার ধর্মীয় অনুশাসন যেভাবে সে তার পরিবার থেকে শিক্ষা গ্রহন করে সেইভাবে অনুসরন করবে।

    দেখুন আমি কিন্তু পর্দা বা হিজাব পরিনা। আমি নিজেকে আধুনিক মনস্ক মনে করি। আমার আট বয়সে থেকে আমি সব নামাজ পড়ি।কোরানশরীফের অনেক সুরাহ আমার মুখস্থ। মুখস্থ করার জন্য পড়িনি। এত বেশী কিছু সুরা পড়েছি ভালবেসে ।পড়তে পড়তে মুখস্থ আমার সুরা মুয্যাম্মিল সুরা ওয়াআকিয়া ইয়াসীন আরও অসংখ্য দোয়া দুরুদ।অল্প বয়স থেকে তাহাজ্জুদ নামাজ পড়ি।তবে হিজাবে এখনও অভ্যস্থ হইনি।আমাকে কাজে যেতে বা বাহিরে যেতে জিনস প্যান্ট পরতে হয় ঠান্ডার দেশে।জিন্স প্যান্ট পরার সাথে নির্লজ্জতার কোন স্ম্পর্ক নাই।

    পর্দা পোষাক আধুনিকতা র ষাথে বেহায়া বা নির্লজ্জতার কোন সম্পর্ক নাই ভাই।আধুনিকতার সাথে বেহায়া বা নির্লজ্জতা বা অশালীন জিনিসকে মিলিয়ে ফেলবেননা প্লিজ।
    তবে আপনার কবিতা ছন্দময় নিসঃন্দেহে।এই মেসেজকে কমেন্টস হিসেবে দেখবেন আক্রমন মনে করবেননা প্লিজ।

  7. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    আরজু আমি আপনার অনেক লেখা পড়েছি। আপনার লেখা পড়ে বুঝতে পারিনি আপনি ছেলে না মেয়ে। কারণ আপনার প্রোফাইলে আপনার সম্র্পকে কিছু লেখা নেই। কিন্তু এই মন্তব্যটি পড়ে বুঝতে পারলাম আপনি একজন মেয়ে।
    আর আপনি পর্দা নিয়ে যে কথাগুলো বললেন তা আপনার কাছ থেকে মোটেও আশা করিনি। আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী যেমন নিজে কথটা ধার্মীক বলে বেড়ায় তা যেন আপনার কণ্ঠেও পেলাম।

    • আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

      আপনার দুইটা লাইন এ আপত্তি।এটা আমি ছেলে হলেও নিসন্দেহে করতাম। আপনার আধুনিকতার ব্যাখ্যা নিয়ে।পর্দাহীন মেয়ে হলে নির্লজ্জ বেহায়া এই বক্তব্য খুব অ্যাগেসিভ মনে হল।আধুনিকতা আমার কাছে মনের আধুনিকতা স্বচ্ছতা ন্যায় অন্যায় সম্পর্কে জবাবদিহীতা শিক্ষা বিবেক আর ন্যায়ের আলোর সাথে।সবধরনের হীনমন্যতা কুসংস্কার থেকে মুক্ত হতে হবে।আমার চোখে এ হচ্ছে আধুনিকতা।পর্দা করেও হয়ত কোন মেয়ে আধুনিক মনস্ক হতে পারে যেমন তেমনি হয়তবা কোন মেয়ে পারিবারিক অনুশাসনের মধ্যে থেকে পর্দা হয়তবা করছে নূন্যতম বিবেকের বোধের শিক্ষার আলো দেখতে পাইনি তাদের মধ্যে।
      যাই হোক সম্ভবত এটা আমার অক্ষমতা গুছিয়ে কথাগুলো বলতে পরলামনা। আপনার নির্লজ্জ বেহায়া এই দুটে শব্দকে আধুনিকতার সঙ্গে মিলাতে আপত্তি। যাই হোক টেক ইট ইজি। ইটস কমেন্টস অনলী। আপনি ভাল থকবেন।

  8. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনার কবিতার সনে একমত ।

  9. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    ধন্যবাদ শান্ত ভাই।

  10. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    ছন্দ ইজ ফাইন
    নাইস লিখা……….
    দারুন কাব্যতা ….মুগ্ধতা জানিয়ে গেলাম
    শুভ কামনা রইল

  11. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    কবিতায় পর্দার বিষয়ে এতটা প্রকট করে না বললেই ভাল হতো।
    এটা – ধর্ম বিষয়ে একপেশে দৃষ্টির এক শ্রেণীর ধর্মজীবিদের ভাষা, কোন কবির ভাষা নয়।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top