Today 22 Jul 2018
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

আড়ি……!!!

লিখেছেন: সেতারা ইয়াসমিন হ্যাপি | তারিখ: ১৫/০৩/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 596বার পড়া হয়েছে।

শুনেছি ভোরের শিশির নাকি
অনেক সুন্দর হয়,
তার রূপ এ মুগ্ধ হয়না এমন
মানুষ খুঁজে পাওয়া দায়,
কত মানুষ কবি হয়েছে সেই
শিশিরের প্রেমে পরে,
কতজন হয়েছে বিশ্বপ্রেমিক ।
শিশিরের ছোঁয়া পেয়ে ধন্য মনে
করেছে নিজেকে ।
আমি আজও সেই চোখে দেখিনি
ভোরের শিশির,
দেখিনি তাঁর সেই বাঁধভাঙ্গা,
মাতাল করা রূপের জোয়ার ।
তাঁর স্পর্শে নিজেকে ধন্য মনে
করার ফুসরত পাইনি আজও ।।
যখন ঘাস ফুল ফুটে,
নীলচে সেই ফুলে ঘাস ফড়িং বসে
করে খেলা উড়ে উড়ে, ঘুরে ফিরে,
তখন নাকি অদ্ভুত এক দোলা লাগে মনে,
যা কেবলই অনুভব করা যায়,
বলা যায়না, কাউকে না বুঝানো যায়,
শুধু শিহরন জাগায় মনের গহীনে ।
আমি আজও সেই চোখে দেখিনি
নীলচে সেই ঘাস ফুলের উপর
মত্ত থাকা সেই ঘাস ফড়িং কে ।।
কুমড়োফুলের মাচা যখন
হলদে রঙের ফুলে ফুলে ছেয়ে যায়,
গুনগুন গুনগুন ভ্রমরের গুঞ্জনে
আলোড়িত হয় চারপাশ,
পৃথিবীর সমস্ত বাদ্যযন্ত্রের আওয়াজ
নাকি তখন মলিন মনে হয় ।
আমার শুনা হয়নি আজও সেই অদ্ভুত
মায়াবী ভ্রমরের গুঞ্জন ।।
ভরা পুর্ণিমায় মাঝরাতে যখন
সারা পৃথিবী জোছনা স্নাত হয়,
সমস্ত গাছপালা সাজে স্নিগ্ধতায়,
গভীর রাত হয় আরো গভীর,
মুগ্ধতায় আর মাদকতায় আঁকড়ে
ধরে রাখে নিশাচরদের ।
আমি আজও নিশাচর হয়ে সেই
অপরূপ জোছনা স্নাত হতে পারিনি ।।
বর্ষায় যখন আকাশ কালো মেঘে
ঢেকে যায়, আর বৃষ্টি নামলে
সবাই স্বস্তির নিশ্বাস ফেলে,
দল বেঁধে নেমে যায় বৃষ্টি স্নাত হতে
আমি তখন জানালার পাশে বসে
সেই স্নান দেখি আর ভাবি
“আহা কতইনা আনন্দ তাঁদের মনে”!
আমার আজও সেই আনন্দ নিয়ে
বৃষ্টিতে ভেজা হয়নি ।।
যখন বসন্ত আসে, আকাশে
বাতাসে,বনে-বাঁদারে কি
ভীষন মাতামাতি,
যেন চারপাশে আগুন লাগে,
সেই ফাগুনের লেলিহান আগুনে
জ্বলেপুড়ে ছাই হয় কতনা মানব হৃদয় ।
বসন্তের ওই তীব্র আগুনে
পোড়া হয়নি আমার আজও ।।
সন্ধায় যখন সূর্য্য নামে পাটে
সব পাখি নীড়ে ফিরে,
রাখালেরা অস্থির হয়ে ছুটে চলে
গন্তব্যে, আর কিষানীরা ব্যস্ত হয়
সন্ধ্যা প্রদীপ জ্বালাতে,
কি অদ্ভুত সেই সন্ধ্য প্রদীপের ক্ষীন আলো ।
আর পশ্চিম আকাশে দেখা দেয়
অদ্ভুত আলো আঁধারির খেলা ।
আমি আজও সেই খেলায়
মত্ত হতে পারিনি ।।
তোমাকে সাথে করে সব খেলা
খেলব বলে আজও করি
প্রতীক্ষা, সমস্ত সৌন্দর্য্য তোমাকে
নিয়ে উপভোগ করব বলে
আমি সব দেখেও না দেখার ভান করি ।
তুমি আসবে আসবে করে কেটে যায়
বেলা, সারাবেলা, তারপর সারাজীবন,
দেখা হয়না আমার আর অদ্ভুত প্রকৃতিকে,
খেলা হয়না আমার আর তাঁর সাথে,
হয়ে যায় আড়ি, যা আর ভাঙ্গেনা…।।

Sad-Lady

রবিবার, ১৯ জুন, ২০১১

৫৭৫ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
আমি খুব সাধারণ একজন মানুষ... নিজেকে মানুষ ভাবতেই বেশি ভাল লাগে। আমার Academic Background: M.Sc. in Botany, MBA করেছি Bank Management -এর উপর, তারপরে PGDHRM Complete করলাম BIM (Bangladesh Institute of Management) থেকে....। বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানে কাজ করেছি। বর্তমানে সেনা কল্যাণ সংস্থা-তে আছি...রিসার্স অফিসার হিসাবে... আমি লেখক নই...তবে লেখা আমার রক্তে মিশে আছে কারণ বাবা ছিলেন সাংবাদিক...ছোটবেলা থেকেই লিখার চেষ্টা করতাম...বাবার পত্রিকায় তা প্রকাশও হতো যদিও কোনটাই বাবার মন মত হতোনা তবুও আমাকে উৎসাহ দেয়ার জন্যই হয়ত ছাপতেন সেসব লিখা...যার কোনটাই আমি সংরক্ষন করে রাখতে পারিনি...হয়ত গুরুত্বই বুঝিনি তখন...আজ বাবা নেই পৃথিবীতে...আমি ছেড়ে দিয়েছিলাম লেখা কিন্তু পরক্ষনেই মনে হলো আমাকে লেখাটা ধরে রাখতেই হবে অন্ততঃ বাবার জন্য। তাই মাঝে মাঝে হাবিজাবি লেখার চেষ্টা করি। খুব সাধারণ জীবন-যাপন করতে ভালোবাসি...বাবা বলতেন কারো উপকার করতে না পারলেও কারো ক্ষতির চিন্তা যেন মাথায়ও না আনি...সেটা মেনে চলার চেষ্টা করি। সুখী হওয়ার চেষ্টা করি, অল্পতে খুশি থাকার চেষ্টা করি আর সৃষ্টিকর্তাকে খুঁজে বেড়াই তাঁর সৃষ্টির মাঝে। নিজের অবস্থান থেকেই চেষ্টা করি আশেপাশে সুবিধাবঞ্চিত-মানুষদের জন্য কিছু করতে। মানুষকে মানুষ ভাবতেই বেশি সাচ্ছন্দ্য বোধ করি আর মনে প্রাণে বিশ্বাস করি মানব ধর্মই হচ্ছে সবচেয়ে বড় ধর্ম।
সর্বমোট পোস্ট: ৪৪ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৪৩ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৪-১২-০৩ ১০:০৫:০৯ মিনিটে
banner

৪ টি মন্তব্য

  1. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    বেশ ভালো লাগলো কবি ………তবে ছন্দ অন্ত্যমিল রাখলে লিখা আরো অনেক ভাল লাগথো সো ফাইন ………..কবি

  2. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    মনোরম স্নিগ্ধ শিশিরের ছোঁয়ায় অনবদ্য কবিতা হয়ে ফুটেছে। ভাল লাগল বেশ।

  3. জসিম উদ্দিন জয় মন্তব্যে বলেছেন:

    apnar kobita porte portal prokritir maje haria giachilam . khub shundar apnar koddo kobita.

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top