Today 25 May 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

একই বৃন্তে ফুল এবং জোড়া কবিতা জোড়া ম্যাসেজ

লিখেছেন: আরজু মূন জারিন | তারিখ: ২২/০৯/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 1295বার পড়া হয়েছে।

আজ মুখোমুখি সম্মুখ সমরে

হয়েছি মুখোমুখি পরিস্থিতি প্রতিকুল

রুদ্দ হয়েছে যত দরজা জানালা
স্বাভাবিক জীবনের
জীবনের গতি  কি

থেমে গেল আজ ?
ভয় নাহি পাই ভয় নাহি পাই
মনে করি নিজেকে এক
যোদ্ধা ___________

এক নির্ভিক সৈনিক
দায়িত্ব যার হওয়া

মুখোমুখি

যতসব জঞ্জালের l
নিয়েছি হাতে বন্দুক
নিয়েছি ঢাল তলোয়ার
আরও আছে যত অস্র সস্র
ফেলবো করে শেষ

যত অন্যায় অনিয়ম
হয়েছি আজ মুখোমুখি

সম্মুখ সমরে l

——————————————————————————————————————————————————–

সীমাহীন অন্ধকার চারিদিকে


এত অন্ধকার চারিদিকে
কোথাও নেই  কোনো আলো
দিলাম ডুব হৃদয়ে
বাম অলিন্দ থেকে ডান অলিন্দ
বাম নিলয় থেকে ডান নিলয়
নেই আলো কোথাও
এত অন্ধকার কেন চারিদিকে ???

অস্থিরতায় দৌড়ে বেরিয়ে এলাম
হৃদপিন্ডের প্রকোষ্ঠ থেকে
গেলাম মস্তিস্কের অলিগলিতে
বাম অংশ (আবেগ) বলছে
থাকতে চাই আজ অন্ধকারে ???
ডান বলয় ও আজ মেনেছে হার
অন্ধকারের কাছে ???
সামনে কপালে যে আছে ত্রিনয়ন (সিক্সথ সেন্স )
সেও কি আজ অন্ধকারে ?
এত স্তব্দতা কেন চারিদিকে ??

অস্থির ভাবে অশান্ত মনে
বেরিয়ে এলাম মনের গলি থেকে
তাকালাম আকাশের দিকে
আকাশের নীল রং  টা  কি গেল হারিয়ে
এত অন্ধকার কেন চারিদিকে
সুধু অন্ধকার সুধু অন্ধকার চারিদিকে
দুরের জলরাশি আজ ডুবে গেছে অন্ধকারের প্রলয়ে _

আস্তে আস্তে আবার জগতে থাকি আশা
হৃদয় এ মনে এবার বুজি দেখা যাবে আলো
বড় আশা নিয়ে তাকাই স্নেহময়ী মা জন্মভূমি মা
সেখানে ও আজ নেই কোনো আলো
আছে সুধু এক নিকষ বিকট কালো অন্ধকার

জালাওনা কেন কেউ কোনো আলো
দাও একটু আলো ,একটু আলো চাই
অন্ধকার কাটাতে চাই
অন্ধকারে বসবাস নিজেকে মনে হয় অন্ধ

প্রদীপের আলো, মোমের আলো, সূর্যের আলো
কে কোথায় আছ জালিয়ে দেও না একটু আলো
আমার ভিতরটাতে

১,৩৮৪ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
নিজের সম্পর্কে কিছু বলতে বললে সবসময় বিব্রত বোধ করি। ঠিক কতটুকু বললে শোভন হবে তা বুঝতে পারিনা । আমার স্বভাব চরিত্র নিয়ে বলা যায়। আমি খুব আশাবাদী একজন মানুষ জীবন, সমাজ পরিবার সম্পর্কে। কখনো হাল ছেড়ে দেইনা। কোনো কাজ শুরু করলে শত বাধা বিঘ্ন আসলেও তা থেকে বিচ্যুত হইনা। ফলাফল পসিটিভ অথবা নেগেটিভ যাই হোক শেষ পর্যন্ত কোন কাজ এ টিকে থাকি। জীবন দর্শন" যতক্ষণ শ্বাস ততক্ষণ আশ " লিখালিখির মূল উদ্দেশ্যে অন্যকে ভাল জীবনের সন্ধান পেতে সাহায্য করা। মানুষ যেন ভাবে তার জীবন সম্পর্কে ,তার কতটুকু করনীয় , সমাজ পরিবারে তার দায়বদ্ধতা নিয়ে। মানুষের মনে তৈরী করতে চাই সচেতনার বোধ ,মূল্যবোধ আধ্যাতিকতার বোধ। লিখালিখি দিয়ে সমাজে বিপ্লব ঘটাতে চাই। আমি লিখি এ যেমন এখন আমার কাছে অবাস্তব ,আপনজনের কাছে ও তাই। দুবছর হলো লিখালিখি করছি। মূলত জব ছেড়ে যখন ঘরে বসতে বাধ্য হলাম তখন সময় কাটানোর উপকরণ হিসাবে লিখালিখি শুরু। তবে আজ লিখালিখি মনের প্রানের আত্মার খোরাকের মত হয়ে গিয়েছে। নিজে ভালবাসি যেমন লিখতে তেমনি অন্যের লিখা পড়ি সমান ভালবাসায়। শিক্ষাগত যোগ্যতা :রসায়নে স্নাতকোত্তর। বাসস্থান :টরন্টো ,কানাডা।
সর্বমোট পোস্ট: ২২৯ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৩৬৮৩ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৯-০৫ ০১:২০:৩৫ মিনিটে
banner

১৪ টি মন্তব্য

  1. শ্যাম পুলক মন্তব্যে বলেছেন:

    দুটো কবিতাই সুন্দর।

    একটায় যোদ্ধা হওয়ার ইচ্ছা
    আরেকটায় অন্ধকারের নেশা
    যদিও আছে আলোর চাওয়া।

    শুভেচ্ছা রইল।

  2. তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

    একই বৃন্তে ফুল ও জোড়া কবিতা–দুটো লেখাই ভাল লেগেছে।অনেক ধন্যবাদ।

  3. এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

    বাহ্‌,
    দারুন লিখেছেন
    আপনি তো দেখি আস্তে আস্তে পাকা কবি হয়ে উঠছেন
    খুব বেশী ভাল লিখেছেন, খুব ভাল লেগেছে

    শুধু ভাই হয়ে পরামর্শ দেবো -আর একটু রিভাইসড করবেন,
    পোস্ট করার আগে নিজে নিজে আবৃত্তি করবেন , কোথাও ছন্দ
    পতন হলে ধরতে পারবেন তখন, বানান গুলো বড্ড বেমানান ঠেকে, ঠিক করে নেবেন।

    লেখায় আপনার অনেক অনেক আবেগ ঝরে
    খুব বাল লাগে, তবে আবেগে ভেসে যেতে নাই।
    আবার আবেগ ছাড়া কবিতা হয় না।

    আর ও ভাল লেখার আশায়……………….।

  4. এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

    সংশোধনী:

    দুঃখিত,

    “খুব বাল লাগে, তবে আবেগে ভেসে যেতে নাই।”

    ভুল টাইপিং এর ফল, আসলে পড়তে হবে:
    খুব ভাল লাগে, তবে আবেগে ভেসে যেতে নেই।

    আর দু’টো কবিতা এক সাথে পোস্ট করার দরকার
    কি, পাঠকের মনোযোগ নস্ট হয়, অনেকে বিরক্ত ও
    হয়,সংযত আবেগে একটা একটা পোস্ট করুন ,পাঠক
    মনোযোগ দিয়ে পড়বে, উপভোগ করবে, এক সাথে বেশী
    দিলে পাঠকের বদ হজম হবে। সুখ দিতে গিয়ে পাঠককে
    রোগী বানানোর দরকার কি।

    আশ করি কি বলতে চেয়েছি বুঝতে পেরেছেন।

    • আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

      সরি কাশেম ভাই
      আপনাকে বিরক্ত করায়
      এবং আপনার
      হজমে ব্যাঘাত করায়

      প্রথম কবিতা টা বেশি ছোট বিধায়
      দ্বিতীয় সংযোজন
      আপনি কিসুন্দর চারপদী লিখা লিখা লিখেন
      চার লাইন এ কি সুন্দর ভাব প্রকাশ প্রকাশ করেন
      আমি অল্প লাইন এ সব ভাব প্রকাশ করতে পারিনা

      যাই হোক আপনাকে ধন্যবোধ মত প্রকাশে
      আবেগ এ ভেসে যেতে হয়না আবেগ কে ধারণ করতে শক্ত হাতে ঠিক
      কিন্তু আবেগ এ ভেসে যাওয়া র পরে আসে ছন্দ বা কবিতা

      সবাই ভাল লাগা জানালাম ।

      • এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

        ভুল বুঝলেন,
        আমি বিরক্ত হয়েছি এটা বলিনি
        বলেছি পাঠকের কথা ।

        আগ্রহ নিয়েই আমি আপনার লেখা পড়ি।

        আর একটা কথা হলো
        লেখা এক ষাঠে বেশী লিখে ফেললে
        মানের দিকে নজর দেয়া সম্ভব হয় না।
        তাই কম লিখে মানের দিকে খেয়াল
        দেয়ার কথা বলেছি ।

        ভাল থাকুন।

  5. এ টি এম মোস্তফা কামাল মন্তব্যে বলেছেন:

    দুইটাই ভালো লাগলো। তবে পরেরটা ভালো লেগেছে বেশী।

  6. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    অসংখ্য ভাল লাগা জানালাম ।

  7. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    সরি বানান ভুল হয়ে গেল আবার
    ধন্যবোধ এর জায়গায় হবে ধন্যবাদ
    ধন্যবাদ সবাইকে (মোস্তফা কামাল শেখ শান্ত
    শ্যাম পুলক তাপসকিরণ ভাই)
    আপনাদের মত আলোকিত মানুষ রা আজ আমার পাশে আছেন
    আমার কিসের অন্ধকার দেখা
    আপনাদের কে অনেক ভালবাসা অনেক ধন্যবাদ

  8. তুষার আহসান মন্তব্যে বলেছেন:

    “দায়িত্ব যার হওয়া

    মুখোমুখি

    যতসব জঞ্জালের l”
    “দাও একটু আলো ,একটু আলো চাই
    অন্ধকার কাটাতে চাই
    অন্ধকারে বসবাস নিজেকে মনে হয় অন্ধ”

    দুটি কুসুমের ভাল লাগার পাপড়ি এই দুটি।
    ভাল লাগা+

  9. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    এত অন্ধকার চারিদিকে
    কোথাও নেই কোনো আলো
    দিলাম ডুব হৃদয়ে
    বাম অলিন্দ থেকে ডান অলিন্দ
    বাম নিলয় থেকে ডান নিলয়
    নেই আলো কোথাও
    এত অন্ধকার কেন চারিদিকে ???
    ,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,
    দারুন হয়েছে।

  10. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    প্রদীপের আলো, মোমের আলো, সূর্যের আলো
    কে কোথায় আছ জালিয়ে দেও না একটু আলো
    আমার ভিতরটাতে
    এত আলো দিয়া কি করবা আপু

    লেখা অসম্ভব সুন্দর হইছে

  11. দীপঙ্কর বেরা মন্তব্যে বলেছেন:

    দুইটাই ভালো লাগলো। তবে পরেরটা ভালো লেগেছে বেশী।

  12. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    darun moughtha jania gelam darun lekha

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top