Today 08 Apr 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

|| কতো কাদিম মুই নিধুয়া পাথারে ||

লিখেছেন: আহমেদ রুহুল আমিন | তারিখ: ১১/০১/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 854বার পড়া হয়েছে।

আজি মনের দুঃখে মইশাল বন্ধুর মুখখান হইছে ভার,
কোন্ঠে গেইল সেই গাড়িয়ালভাই নিধুয়া পাথার ।
হামার উত্তর পাড়াত ভর দুপুরে কিসের আহাজারি-
কাত্তি মাইসা মংগা হামার সারা জনম ভরি ।
দুই ধার খায়য়া তিস্তা নদী বছর ভরি কান্দে-
পুটি মাছের লোভে বগা আর পড়েনা ফান্দে ।
আইজ ঘাড়ের গামছায় নাই পিরিতি কাজল ভোমরার-
কোন্ঠে গেইল সেই গাড়িয়ালভাইর নিধুয়া পাথার ।।

জলপাইতলার চেংরা বন্ধু হইছে জনম দুখি,
ও তার ঘর ছাড়িয়া গারমেন্টস খাটে পরানের লক্ষী ।
সোনায়-রুপায় মেশায় নোলক নাই আর পিন্ধার সখ-
বানিয়া বন্ধুর মন কাড়েনা সোনার কইণ্যার ঢক ।
আইজ রংপুরে আর নাইরে বন্ধু সেই রং-রসের বাহার-
কোন্ঠে গেইল সেই গাড়িয়ালভাইর নিধুয়া পাথার ।।

প্রধান,সরকার,প্রামানিকের পেট-পকেট আইজ খালি-
রাস্তা-ঘাটে ‘ মফিজ ‘ বলে দেয়ছে সবায় গালি ।
সব হারাইয়া সুখ-ধনের আইজ এমন দুঃখ মনে-
ভোগ-পেয়াসে দিন কাটেয়া ঘোরে স্টেশনে ।
আইজ গলাত নাই সেই ভাউয়াইয়ার টান দিল হইছে আন্ধার –
কোন্ঠে গেইল সেই গাড়িয়ালভাইর নিধুয়া পাথার ।।

——
কৈফিয়ত : এক সময় আমাদের এই উত্তরবঙ্গে গোলাভরা ধান,পুকুরভরা মাছ এবং গোয়ালভরা গরুর ছড়াছড়ি ছিল ৷ নিধুয়াপাথার (খোলা প্রান্তর ) ছিল সবুজ-শ্যামল ফসলে জড়ানো বিশাল চাদরের আস্তরন ৷ যার বুক চিরে আঁকা-বাকা হয়ে চলে গেছে সিঁথির মতো পথ ৷ সেই পথ দিয়ে সারি সারি চলছে পণ্যবোঝাই কিংবা কোন নায়রি নিয়ে চলা অলস দূপুরে চাকায় অদ্ভুত শব্দ নিয়ে চলা গরুর গাড়ি …!! সাথে গাড়োয়ানের গলাছেড়ে গাওয়া সোদা-মাটির গন্ধভরা ভাওয়াইয়া গান৷ আমাদের চল্লিশ-পঞ্চশের কোটায় যাদের বয়স তারাই এসব প্রত্যক্ষ করেছি ৷ আর এখন ? সবকিছু কেমন যেন উলট-পালট হয়ে গেছে ৷ আধুনিকতা নাকি ভীনদেশী সংস্কৃতির ছোঁয়া এখন গ্রাম-শহরের ভেদাভেদ ছিন্ন করে অন্য এক গ্রামবাংলায় রুপ নিয়েছে ৷ তাইতো আজকের প্রজন্মের বেশীরভাগ পছন্দ ভীনদেশী সংস্কৃতি ৷ কেন এমনটি হচ্ছে ? আকাশ সংস্কৃতির আগ্রাসন নাকি দেশীয় সংস্কৃতির চর্চার অভাব ?হালে সময়ের সাথে কিংবা শিক্ষা / সভ্যতার বিকাশ ও মানূষের জীবন যাত্রার মানোন্নয়নের সাথে সাথে পরিবতর্নের সংস্কৃতি তথা আকাশ সংস্কৃতিও গ্রাস করেছে আমাদের শিকড় সংস্কৃতি কিংবা বলা যায় পড়শি দেশের বহুমাত্রিক সংস্কৃতি আমাদের নুতন প্রজন্মকে শিকড় থেকে ছিনিয়ে নিয়ে দাঁত কেলিয়ে হাসছে । আমরা পরিবর্তন চাই , সবকিছুর বিকাশও হোক এই গ্লোবাল ভিলেজের সাথে পাল্লা দিয়ে । তবে, দেশীয় সংস্কৃতিকে বিসর্জন দিয়ে নয় । কেননা, শিকড় উপড়ানো বৃক্ষ দৃঢ়ভাবে টিকে থাকতে পারেনা ।

৮৮২ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
#কায়েতপাড়া, পঞ্চগড় সদর, পঞ্চগড় । #চল্লিশ দশকে অকাল প্রয়াত ছোট মামার কলকাতার সংগ্রহকৃত কিশোর ক্লাসিক " শুকতারা " ম্যাগাজিনে প্রকাশিত রবীন্দ্র সম-সাময়িক ( যেখানে তাঁর লেখা ছবিসহ সরাসরি প্রকাশ হতো) বিভিন্ন ছড়া/কবিতা সত্তর আশির দশকে পাঠে শিশু মনে কল্পনার দোল খেত । সেই থেকে শুরু । লেখা-লিখি টুকটাক । ভাল লাগে কবিগুরু , বিদ্রোহী,সুকান্ত -জীবনানন্দ, সত্তর-আশির দশকের আবুলহাসান, দাউদ হায়দার,খোন্দকার আশরাফসহ অনেক কবির লেখা । সমরেশ মুজুমদার,সব্যসাচি সৈয়দ হক,আনিসুল হক, সদ্যপ্রয়াত হুমায়ুন আহমেদ,ইমদাদুল হক মিলন প্রিয় গল্পকার/লেখকের তালিকায় । # প্রিয় ব্যাক্তিত্ত্ব : হযরত মোহাম্মদ (সা.) । # প্রিয় ব্যক্তি : মা-বাবা । # যা আশ্চয্য করে : পবিত্র কোরআন, বিশ্ব- প্রকৃতি, কম্পিউটার-তথ্য প্রযুক্তি । #দু'সন্তানের জনক ।
সর্বমোট পোস্ট: ৭৯ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ১৬২ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-১১-১৫ ১৭:১৮:৩৫ মিনিটে
banner

৭ টি মন্তব্য

  1. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    দুই ধার খায়য়া তিস্তা নদী বছর ভরি কান্দে-
    পুটি মাছের লোভে বগা আর পড়েনা ফান্দে ।
    আইজ ঘাড়ের গামছায় নাই পিরিতি কাজল ভোমরার-
    কোন্ঠে গেইল সেই গাড়িয়ালভাইর নিধুয়া পাথার ।।

    আমরা পরিবর্তন চাই , সবকিছুর বিকাশও হোক এই গ্লোবাল ভিলেজের সাথে পাল্লা দিয়ে । তবে, দেশীয় সংস্কৃতিকে বিসর্জন দিয়ে নয় । কেননা, শিকড় উপড়ানো বৃক্ষ দৃঢ়ভাবে টিকে থাকতে পারেনা ।

    বাহ অন্য আমেজ পাওয়া গেল এই কবিতা ও মেসেজে।ভাল লাগল।অসংখ্য ধন্যবাদ।

  2. এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    নতুন আমেজের কবিতা ভাল রাগল । শুভ কামনা ।

  3. কে এইচ মাহবুব মন্তব্যে বলেছেন:

    দুই ধার খায়য়া তিস্তা নদী বছর ভরি কান্দে-
    পুটি মাছের লোভে বগা আর পড়েনা ফান্দে ।
    আইজ ঘাড়ের গামছায় নাই পিরিতি কাজল ভোমরার-
    কোন্ঠে গেইল সেই গাড়িয়ালভাইর নিধুয়া পাথার ।।
    সত্যিই তাই, আমার পাতায় আমন্ত্রণ ।

  4. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    || কতো কাদিম মুই নিধুয়া পাথারে || দুই পাশে ডবল দাড়ি দিলেন কেন?

  5. আহমেদ রুহুল আমিন মন্তব্যে বলেছেন:

    আমির হোসেন ভাইকে বলবো – এটি কিন্তু দাঁড়ি নয় ৷ দাঁড়ির মাপ অক্ষরের থেকে খানিকটা ছোটই থাকে ৷ এটি কবিতার নাম বিশেষভাবে বুঝানোর জন্য মনে করতে পারেন এক ধরনের স্টাইল ৷ আর লেখার মধ্যে আঞ্চলিকতার বিষয়টি অনেকের কাছে বিরক্তিকর বা খারাপ মনে হতে পারে ৷ এ ব্যাপারটি নিয়েই কিন্তু আমার কৈফিয়ত ৷ অনেক বিখ্যাত লেখকের লেখার মাঝে আঞ্চলিকতার প্রভাব বিদ্যমান ৷ ধন্যবাদ আপনাকে মন্তব্য প্রদানের জন্য ৷ সেইসাথে সম্মানীত সকল মন্তব্যকারীদের জানাই আন্তরিক মোবারকবাদ ৷

  6. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    কোন অঞ্চলের ভাষা বুঝি নাই

    :-(

  7. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    কবি আরজু আপার সাথে সহমত।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top