Today 15 Nov 2018
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

কবিতাটির লেখককে চেনা নাই!

লিখেছেন: সুমন সাহা | তারিখ: ০৫/০৪/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 446বার পড়া হয়েছে।

কত যুগ পেরিয়ে গেল
অথচ ভ্রমর খুবলে খেলো চোখ,
নিদারুণ স্রোতে ভেসে গেল ভিখারি চাঁদ,
জ্যোৎস্নার ধার ঘেষে কিছু বিলাপ; থেকে গেল অব্যক্ত।

মুঠোতে থেকে গেল কিছু সংলাপ
প্রেমিকার চোখের উল্টোপিঠে গৎবাঁধা-
ভালোবাসার বিচ্ছুরণ;
যা শেষ কোন প্রেমিক উচ্চারণ করেছিলো-
ঊনিশশত ঊননব্বই বছর আগে।

ট্রেনের ভিতরে মানুষ
মানুষের ভিতরে ক্লেশ,
ক্লেশের ভিতরে আগনিত প্রশ্ন,
বিরামহীন ভালোবাসার ভিতরে-
থেকে যায় কতিপয় নিখোঁজ সংবাদ।

যা ষোলকোটি বছর আগে শেষ উচ্চারিত হয়েছিলো;
সেও কবিতায়,
কবির মৃত্যু হয়েছে, তবু
ট্রেনের ভেতরে মানুষ,
মানুষের ভেতরে আহাজারি,
আহাজারির ভেতরে অশ্রু ফিরে এসেছে;
বারবার, বারবার, বারংবার।

থামেনি গতিক্লান্ত জীবাশ্মের টান,
জীবন পুড়ে পুড়ে শোকের মাতম,
পুড়ে যাচ্ছে কবিতার খাতা;
যা কবির খুব প্রিয় লালন ছিলো।

বিষ্ঠাতে এসেছে সুঘ্রাণ,
প্রেমিকের হাতের ফুলে একনালা দুর্গন্ধ;
অথচ প্রেমিকা বুঝতে পারেনা কিছুই,
ষোলকোটি বছর ধরেই তো এমনি চলছে!

এবার শান্ত হতে হবে!

না,
আমিতো শান্ত হতে আসিনি,
কবিতা লিখছি আমি পঁচাশিকোটি বছর ধরে
যে কবিতার প্রতিটি পঙক্তিতে জমানো আছে পাপ,
মৃত্যুকে কোলে করে শয্যাশায়ী হওয়ার অভিশাপ।

কে দিলো সে অভিশাপ?
বলে দাও আমায়ঃ
আমি লিখে দিয়ে যাই,
কাউকে না কাউকে তো লিখতেই হবে;
কবিতার নামের নিচে লেখকের নাম।।

৪৩৮ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
কর্মজীবনে আমি একজন সফটওয়্যার প্রকৌশলী। শ্রমিক হিসাবে কাজ করছি পূবালী ব্যাংক লিমিটেডের জন্য। লেখালেখি করছি ১২ বছর যাবৎ। প্রথম ছাপার অক্ষরে লেখা প্রকাশিত হয় ২০০৪ সালে প্রথম আলোর "ছুটির দিনে" নামক একটি সাপ্তাহিকীতে "বেপরোয়া" ছদ্মনামে। অনলাইন লেখালেখিতে পদার্পণ করি ২০০৯ সালে "প্রথম আলো ব্লগ" এর হাত ধরে। সেখানেও আমি লেখালেখি করেছি "বেপরোয়া" নামে। একই সাথে লিখতে থাকি ফেসবুকে আমার পাতাতে ওই একই সময়ে। এরপর যুক্ত হই "মুক্ত ব্লগে" ২০১০ সালে "সুমনাস'শ" নাম ধারণ করে। সর্বশেষ যুক্ত হই "ঘুড়ি ব্লগ"-এ ২০১৪ সালে "সুমন সাহা" নামে এবং এখন থেকে চলন্তিকার সাথে যুক্ত হলাম ওই একই নামে। বেশ আগে একজন বলেছিলো, টেক পাবলিক হয়েও কিভাবে এমন লিখতে পারেন আপনি। আমি বলেছিলাম, "লেখারা নিজে থেকে এসে শব্দোৎপাত করলে কি করবো বলুন । অন্য কেউ হয়তো তাঁর কথাগুলো আমাকে দিয়ে লিখিয়ে নিচ্ছে। আমি লিখছি না, আমাকে দিয়ে খোদাই করানো হচ্ছে এই যা।" এই দেখুন লিখে দিলাম, "এ আমার আপন সত্ত্বা, মিলেমিশে একাকার হয়ে তোমার প্রাচীন নিশ্বাস মিশে, অন্ধকারের মাঝে এ আমি কাকে খুঁজি?..." অবশেষে এই অলেখক অবলেখনে বলছে, এই হিজিবিজি অংশখানি পুরোটুকু সময় দিয়ে পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ জানাই। পাশে থাকুন, ভালো থাকুন, ভালো রাখুন।
সর্বমোট পোস্ট: ৭৬ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৯৪ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৫-০১-০৩ ০২:৫৪:৩১ মিনিটে
banner

৬ টি মন্তব্য

  1. সেতারা ইয়াসমিন হ্যাপি মন্তব্যে বলেছেন:

    সুন্দর ভাবনা… লিখে যাও…কাউকে না কাউকে তো লিখে যেতেই হবে তাইনা…?

  2. গোলাম মাওলা আকাশ মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল লাগিল

  3. দীপঙ্কর বেরা মন্তব্যে বলেছেন:

    প্রসারিত জীবনে ভাবনার স্রোত
    ভাল লাগল

  4. টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

    অনেক সুন্দর ভাবনার প্রকাশ ।
    খুব ভাল লেগেছে প্রিয় ।
    ভাল থাকুন সবসময় ।

  5. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    আমি চিনি কবি সুমন সাহা
    আমাদের প্রিয় কবি ………………….
    দারুন ভাবনার প্রয়াস
    খুব ভাল লাগলো

  6. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    তা হলে, মানব সভ্যতার ইতিহাস কত বছরের?

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top