Today 26 Aug 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

কালের আবর্তে হারিয়ে যাচ্ছে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী পুতুল নাচ

লিখেছেন: মুহাম্মদ দিদারুল আলম | তারিখ: ০২/১০/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 760বার পড়া হয়েছে।

কালের আবর্তে হারিয়ে যাচ্ছে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী পুতুল নাচ। গ্রাম বাংলায় নানা উৎসব ও উপলক্ষকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন স্থানে বসে গ্রামীন মেলা। আর এসব মেলার বিনোদনের অন্যতম অনুষঙ্গ ছিল পুতুল নাচ। শহুরে জীবনের হাতছানিতে সবাই ব্যস্ত হয়ে পড়ায় আজকাল গ্রাম বাংলায় আগের মত আর গ্রামীন মেলা বসেনা। দু’এক স্থানে গ্রামীণ মেলা বসলেও সেসব মেলায় দেখা যায় না ঐতিহ্যবাহী পুতুল নাচ। নিকট অতীতেও গ্রামের মানুষ মেলায় গিয়ে পুতুল নাচ দেখে খুব মজা পেত। ছোট ছোট পুতুলের নৃত্যের মধ্যদিয়ে বিনোদনের পাশাপাশি তুলে ধরা হত দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য। স্বাধীনতার পরে পুতুল নাচের পরিচালকরা ক্ষুদ্র পরিসরে পুতুলের মাধ্যমে তুলে ধরতেন মুক্তিযুদ্ধের নানা ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ঘটনা। এছাড়া পুতুল নাচে ভানুমতির কাহিনী ও বিভিন্ন শিশুতোষ দৃশ্য দেখানো হত পুতুলের মাধ্যমে। কালের আবর্তে নানা প্রতিকুলতায় আজ সেসব হারিয়ে যেতে বসেছে। এ বিলুপ্ত প্রায় ঐতিহ্যবাহী বিনোদন মাধ্যমকে আজও অনেকে টিকিয়ে রাখার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন। অনেকে বাবা দাদার কাছ থেকে পুতুল নাচ দেখানো শিখে পেশা হিসেবে নিয়েছেন। এ পেশাকে আকঁড়ে ধরেই অনেকে এখনো তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে বেঁচে আছেন। তবে পুতুল নাচে আগের মত দর্শক হয় না। এক শ্রেণীর মানুষ পুতুল নাচের নামে নারীর নগ্নদেহ প্রদর্শন করে এই শিল্পের ধ্বংস ডেকে এনেছে। এসব ব্যাক্তির কারণে প্রকৃত পুতুল নাচ দেখানোর মানুষদেরও বিভিন্ন মেলায় প্রশাসনের কাছ থেকে পুতুল নাচের অনুমতি নিতে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। এ কারনে বাধ্য হয় অনেকেই পুতুল নাচ দেখানো পেশা ছেড়ে দিচ্ছেন। আর এভাবে হারিয়ে যেতে বসেছে আমাদের গ্রামীণ ঐতিহ্য পুতুল নাচ।

৮২৫ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ৭৭ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ১০১ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৮-২৮ ১১:৫৮:৪৮ মিনিটে
banner

৭ টি মন্তব্য

  1. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    এইতো তিন বছর আগেও আমাদের নরসিংদীতে বাণিজ্য মেলা বসেেছিল তখন পুতুল নাচ দেখলাম। ভালই লাগল।

  2. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    আমার শৈশব এর একটা বড় অংশ জুড়ে আছে এই পুতুল নাচ। খুব কান্নাকাটি শুরু করতাম পুতুল নাচ দেখার জন্য । আমার আব্বা চাইতেননা পুতুল নাচ দেখি ।সব ধর্মভীরু মানুষদের মত পুতুল বানান বা পুতুল নাচ দেখা কে তিনি মনে করতেন গুনাহ এর কাজ । তারপর ও অবশ্য থেমে থাকে নি দেখা পুতুল নাচ ।আমাদের বাসার পাশে এক চাচি ছিলেন তিনি সবসময় আব্বাকে বুজিয়ে রাজি করিয়ে আমাদের তিন বোনকে নিয়ে যেতেন ।

    সেই স্মৃতিটা মনে পড়ে গেল আপনার লিখা পড়ে দিদারুল ভাই ।

    আপনার লিখা টা ভালো লাগলো ।

    ধন্যবাদ
    আমার শৈশব এর একটা বড় অংশ জুড়ে আছে এই পুতুল নাচ। খুব কান্নাকাটি শুরু করতাম পুতুল নাচ দেখার জন্য । আমার আব্বা চাইতেননা পুতুল নাচ দেখি ।সব ধর্মভীরু মানুষদের মত পুতুল বানান বা পুতুল নাচ দেখা কে তিনি মনে করতেন গুনাহ এর কাজ । তারপর ও অবশ্য থেমে থাকে নি দেখা পুতুল নাচ ।আমাদের বাসার পাশে এক চাচি ছিলেন তিনি সবসময় আব্বাকে বুজিয়ে রাজি করিয়ে আমাদের তিন বোনকে নিয়ে যেতেন ।

    সেই স্মৃতিটা মনে পড়ে গেল আপনার লিখা পড়ে দিদারুল ভাই ।

    আপনার লিখা টা ভালো লাগলো ।

    ধন্যবাদ

  3. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    সরি কমেন্টস দুইবার এসে গেছে ।
    এডিট করব কিভাবে ?

  4. এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

    এখন তো সবাই ন্যাংটো নাচের দিকে ঝুকে পড়েছে
    হিন্দি সিনেমা , পশ্চিমা সংস্কৃতি নাহলে যে এখন
    নাকি সভ্যি হয় না ,
    তাই সে নির্মল পুতুল নাচ হারিয়ে যেতে বসেছে

    ধন্যবাদ।

  5. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    কাশেম ভাইয়ের সাথে একমত ।

  6. খাদিজাতুল কোবরা লুবনা মন্তব্যে বলেছেন:

    পুতুল নাচ আর নেপথ্যের সেই কন্ঠ এখন আর কানে বাজেনা।

  7. দীপঙ্কর বেরা মন্তব্যে বলেছেন:

    আমি তাও দেখেছি ছেলে দেখে নি ।
    দু একটা ছবি থাকলে ভাল হত ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top