Today 18 Jan 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

ক্রীড়নক জনতা

লিখেছেন: অনিরুদ্ধ বুলবুল | তারিখ: ২৪/০৩/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 933বার পড়া হয়েছে।

ক্ষমতার কুর্শি ‘পরে যখন যারাই হয়েছে আসীন

প্রগতির আরশিতে তারা ভুবন দেখে ভারি রঙিন।

ভাগ্য-বিধাতা তারা নিজেরাই হ’ল একক প্রেমিক,

উদার, গনতন্ত্রীমনা, আইন মান্যকারী, নিষ্ঠ সেবক,

প্রগতির মাঝি, জনতার মা-বাপ, দরদী অসীম।

আর বাকি পঙ্গপাল, দেশদ্রোহী অধমের নরাধম।

প্রতিবাদী যারা – তারাই হ’ল যে চরম স্বেচ্চাচারী।

আর-পক্ষ ভেবে মরে ওরাই বুঝি চরম স্বৈরাচারী।

 

কুর্শিধারীরা ভাবে; তারাই মানবিক যুগের ত্রাতা

ন্যায়দন্ড হাতে করতে শাসন করছে না অন্যথা।

চোঙা হাতে জনতার মাঝে লুটায় তারা করতালি

কুম্ভিরাশ্রুতে আমাদেরে দেয় উপহার চোরাবালি।

কেউই নয় আসল বন্ধু কখনো অসহায় জনতার

পড়ে পড়ে মার খাই মোরা, বয়ে যাই ব্যথাভার।

তারা তো চিরকাল দরদী মহান সেবকই সেজে রয়

আমরা অধম ররাবর এদের ক্রীড়নকই বনে যাই।

৯২৪ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
কৈফিয়ত - তোমরা যে যা-ই ব'ল না বন্ধু; এ যেন এক - 'দায়মুক্তির অভিনব কৌশল'! যেন-বা এক শুদ্ধি অভিযান - 'উকুন মেরেই জঙ্গল সাফ'!! প্রতিঘাতের অগ্নি-শলাকা হৃদয় পাশরে দলে - শুক্তি নিকেশে মুক্তো গড়ায় ঝিনুকের দেহ গলে!! মন মুকুরের নিঃসীম তিমিরে প্রতিবিম্ব সম - মেলে যাই কটু জীর্ণ-প্রলেপ ধূলি-কণা-কাদা যত। রসনা যার ঘর্ষনে মাজা সুর তায় অসুরের দানব মানবে শুনেছ কি কভু খেলে হোলি সমীরে? কাব্য করি না বড়, নিরেট গদ্যও জানিনে যে, উষ্ণ কুসুমে ছেয়ে নিয়ো তায় - যদি বা লাগে বাজে। ব্যঙ্গ করো না বন্ধু আমারে অচ্ছুত কিছু নই, সীমানা পেরিয়ে গেলে জানি; পাবে না তো আর থৈ। যৌবন যার মৌ-বন জুড়ে ঝরা পাতা গান গায় নব্য কুঁড়ির কুসুম অধরে বোলতা-বিছুটি হুল ফুটায়!! ভাল নই, তবু বিশ্বাসী - ভালবাসার চাষবাসে, জীবন মরুতে ফুটে না কো ফুল কোন অশ্রুবারীর সিঞ্চনে। প্রাণের দায়ে এঁকে যাই কিছু নিষ্ঠুর পদাবলী: দোহাই লাগে, এ দায় যে গো; শুধুই আমার, কেউ না যেন দুঃখ পায়।
সর্বমোট পোস্ট: ১৪৩ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৪২২ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৫-০২-১৪ ০২:৫৯:৫৩ মিনিটে
banner

১০ টি মন্তব্য

  1. টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

    //কেউই নয় আসল বন্ধু কখনো অসহায় জনতার
    পড়ে পড়ে মার খাই মোরা, বয়ে যাই ব্যথাভার।//
    সত্যিই কেউ জনতার জন্যে নয় ! আর তাই আজ দেশের এই পরিস্থিতি ।
    চমৎকার লিখেছেন ।

  2. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    আজকের দিনে জনতার জন্য কি কেউ নেই …………আজ এই পরিস্তিতি জন্য দায়ী কে ??
    ??????/

    শুভ কামনা রইল
    ভাল থাকুন ভাল লিখুন

  3. জসিম উদ্দিন জয় মন্তব্যে বলেছেন:

    কেউই নয় আসল বন্ধু কখনো অসহায় জনতার

    পড়ে পড়ে মার খাই মোরা, বয়ে যাই ব্যথাভার। সত্যিই ভাই । আপনার কবিতার মতোই বর্তমান অবস্থা । ভালো লিখেছেন । শুভেচ্ছা রইলো ।

  4. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনার সুন্দর মন্যের্ব্যে প্রীত হলাম বন্ধু।
    অনেক শুভেচ্ছা ও ভালবাসা জানবেন।

  5. সেতারা ইয়াসমিন হ্যাপি মন্তব্যে বলেছেন:

    মার খাওয়া যেন গা সওয়া হয়ে গেছে… পরে পরে মার খেতে যেন অভ্যস্থ হয়ে পরেছি আমরা…! লেখা ভাল লাগলো… নিয়মিত লিখুন…!

  6. জাফর পাঠান মন্তব্যে বলেছেন:

    দলকানা বা অন্ধ ভক্ত যারা -তারা দলের আদেশ নিষেধ ক্রীড়নকের মত অন্ধভাবে মেনে চলে ও পালন করে যায়। তারা সাদাকে সাদা বলতে জানোনা-কালাকে কালা বলতে জানেনা । এরাই রাষ্ট্রের জন্য ক্ষতিকর। আর আমজনতা বা প্রতিবাদী জনতা কারো ক্রীড়নক না থেকে আজীবন প্রতিবাদ করে যায় এরাই নির্যাতিত ও অবহেলিত ও গুম হত্যার স্বীকার হয় সর্বযুগে। আবার কখনো কখনো জীবন রক্ষার্থে মুষ্টিমেয় কিছু প্রতিবাদীকে জীবন রক্ষার্থে ক্রীড়নক সেজে থাকতে হয় । # সামগ্রিক অর্থে কবিতাটি বেশ অর্থপূর্ণ হয়েছে, সমসাময়িক অনেক ক্ষেত্রে মিলে যায় । ভালো লাগা রেখে গেলাম । ভালো থাকুন সতত।

    • অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

      বিস্তৃত বয়ানে আপনার সুন্দর মতামতের জন্য অশেষ ধন্যবাদ বন্ধু।
      বরাবর পাশে থেকে প্রেরণা যোগানোর জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই।
      ভাল থাকুন, শুভেচ্ছা নিন।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top