Today 11 Dec 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

খেলাধুলায় এগিয়ে চলছে নারীরা

লিখেছেন: শাম্মী শিল্পী তুলতুল | তারিখ: ৩০/০৪/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 537বার পড়া হয়েছে।

images

 

দেশের পুরুষ খেলাধুলার পাশাপাশি নারী খেলাধুলাও এগিয়ে যাচ্ছে। ফুটবল, ক্রিকেট, ভলিবল, দাবা, টেবিল টেনিস, কাবাডি, ভারোত্তোলন, তায়কোয়ানডো, কোথায় নেই নারী।

নতুন যে তীর ধনুকের খেলা আরচ্যারি শুরু হয়েছে সেটিতেও নারী যেন সমানভাবে এগিয়ে আসছে। নারীদের কাছে কোনো খেলা চাপিয়ে দিচ্ছে না তার পরিবার। একজন নারী যে খেলাটি পছন্দ করেন তার কাছে সেটিই হয়ে উঠছে আদরণীয়। কঠিন খেলা হলেও তার কাছে সেটি যেন সবচেয়ে সহজবোধ্য। চর্চা করতে গেলে কঠিন কিছু মনে হয় না। দাবায় বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক মহিলা মাস্টার শামীমা আক্তার লিজা নাম লেখালেন রাশিয়ার বিশ্ব মহিলা দাবা চ্যাম্পিয়নশিপে। দাবার আলোচনা শেষ না হতেই জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের স্ট্রাইকার সাবিনা মালদ্বীপে গিয়ে ক্লাব ফুটবলে হ্যাটট্রিক করলেন। চার গোলের সাথে ম্যাচসেরা খেলোয়াড়ও হয়েছেন তিনি। বাংলাদেশের ফুটবলে চমক দিলেন। ফুটবলে তার পারফরম্যান্স প্রভাব ফেলছে। চলমান প্রশিক্ষণে থাকা জুনিয়র ফুটবলাররা অনুপ্রাণিত হয়েছেন সাবিনার পারফরম্যান্সে। লিজা, সাবিনাদের এগিয়ে চলায় শুধু নারী ক্রীড়াবিদরাই অনুপ্রাণিত হচ্ছেন না— অনুপ্রেরণা পাচ্ছেন নারী সংগঠকরাও। এগিয়ে আসছেন আরো নারী সংগঠক। সংযুক্ত হচ্ছেন নারী সংগঠনে, নারী খেলাধুলায়।

নারী জাগরণের পথিকৃত্, মহাকবি ও উপমহাদেশের স্বাধীনতা এবং প্রগতিশীল আন্দোলনের অন্যতম অগ্রদূত সৈয়দ ইসমাঈল হোসেন সিরাজী শতাব্দীকাল আগে বলেছেন, ‘প্রত্যেক পাড়ায় মহল্লায় নারীদের জন্য ব্যায়ামাগার গড়ে তুলতে হবে। সমাজের অর্ধেক হইলো নারী। সেই নারীকে অন্তঃপুরে বন্দি রাখিয়া যাহারা সমাজকে প্রগতির পথে আগাইয়া নিবার কথা বলেন তাহারা প্রকৃতপক্ষে সমাজকে পিছনের দিকে ঠেলিয়া দিতেছেন। নারীদের জন্য সব ধরনের খেলাধুলার সুযোগ করে দিতে হবে।’

নিজেকে আটপৌরে শাড়ির মধ্যে আটকে না রেখে দরজার বাইরে আলোকিত পৃথিবী দেখার সরল রেখাটা সৈয়দ ইসমাঈল হোসেন সিরাজীরাই তৈরি করে দিয়েছিলেন। বাঙালি নারীকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে ভিত তৈরি করতে পথ দেখিয়েছেন যারা, তাদের অনুসরণ করে কোটি কোটি বাঙালি নারী এখন সমাজের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে। আছেন খেলাধুলায়। শতাব্দী আগে সৈয়দ ইসমাঈল হোসেন সিরাজী যে কথা বলেছিলেন আজ তার কথাই সঠিক। পাড়া মহল্লায় এখন নারীর শরীর রক্ষায় গড়ে উঠেছে জিম।

৫৩৮ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ১২ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ০ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৯-২৬ ০৯:০৩:০৬ মিনিটে
banner

১ টি মন্তব্য

  1. টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

    তারপরও কিন্তু কথা থেকে যায়, প্রত্যেকের নিজ নিজ ধর্ম কি খেলাধুলায় নারীদের পোশাক-আশাককে সমর্থন দেয় কিংবা ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে খেলাধুলায় মেয়েদের এমন প্রদর্শন কি গ্রহণযোগ্য ?
    সুন্দর লিখার জন্য ধন্যবাদ ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top