Today 14 Nov 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

ছুটি কাটান ‘ড্রিম হলিডে পার্কে’

লিখেছেন: অনিরুদ্ধ বুলবুল | তারিখ: ১১/০৫/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 928বার পড়া হয়েছে।

Dream Holiday

(পার্কের প্রবেশদ্বার)

নাগরিক জীবনে হাঁপিয়ে উঠছেন। একটু  অবকাশ দরকার। প্রতিদিনের রুটিন ব্যস্ততায় কিছুটা একঘেয়েমি চলে আসে জীবনে। হঠাৎ ইচ্ছে হলো এই নাগরিক কোলাহল থেকে অন্তত অল্প সময়ের জন্য হলেও দূরে যাবেন। নিজের মতো করে কাটাবেন সময়। হাতে অল্প সময় নিয়ে পরিবারের সবাইকে নিয়ে অল্প খরচে অবকাশ যাপন করে আসতে পারেন রাজধানী ঢাকার অদূরে নরসিংদী জেলায় গড়ে উঠা বিশ্বমানের থিম পার্ক ‘ড্রিম হলিডে’ পার্কে।

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদীর পাঁচদোনার চৈতাবাতে মনোরম এই পার্কটির অবস্থান। ঢাকার পার্শ্ববর্তী নরসিংদিতে ২০১১ সালে গড়ে উঠে মানসম্মত এই পার্ক। ওই বছরের শেষের দিকে আনুষ্ঠানিক ভাবে পার্কটি চালু করা হয়। ছোট-বড় সবার জন্যই রয়েছে আলাদা সব রাইড। ঢাকা থেকে মাত্র ঘণ্টা খানেকের দূরত্ব বলে ইতিমধ্যেই এ পার্কটি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

৬০ একর জমির ওপর নির্মিত এ পার্কে রয়েছে নাগেট ক্যাসেল, এয়ার বাইসাইকেল, অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত ইমু পাখি, মায়াবি স্পট, কৃত্রিম অভয়ারণ্য, ডুপ্লেক্স কটেজ, পার্কে শিশু-কিশোরদের জন্য একাধিক রাইডস, সুবিশাল লেক, হংসরাজ প্যাডেল ও জেট ফাইটার বোট, মনোমুগ্ধকর প্রাকৃতিক পরিবেশ বেষ্টিত নয়নাভিরাম ক্যানেল, রকিং হর্স, ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা ও সরকার প্রদত্ত নিরাপত্তাকর্মীর তত্ত্বাবধানে সুশৃঙ্খল ও নিরাপদ পরিবেশ। রয়েছে বিশাল গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গা, নিজস্ব কটেজ ও সুপ্রশস্ত বাংলো।

খাবারের মধ্যে ড্রিম হলিডে পার্কে রয়েছে থাই, ইন্ডিয়ান ও চাইনিজ খাবার। রয়েছে আইসক্রিম পার্লার, কফি হাউস। পাশাপাশি রয়েছে নারায়ণগঞ্জের বিখ্যাত ‘জামদানি হাউস’। কম দামে পাওয়া যায় মেয়েদের থ্রি-পিস, বেড শিট ও অন্যান্য জিনিসপত্র।

প্রবেশ মূল্য : ২০০ টাকা

সময়সূচি :প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। তবে সন্ধ্যা ৬ টা থেকে ৬ টা ৩০ মি. এর পর টিকিট বিক্রি বন্ধ হয়ে যায়।

Dream Holiday-1

(ওয়াটার রাইড-এর ছবি)

ড্রিম হলিডে পার্কে পিকনিক আয়োজন করতে চাইলে :এই পার্কে মধুরিমা ও মায়াবী নামের দুটি পিকনিক স্পটও আছে। ছুটির দিনে পিকনিকের জন্য ৩০০ জনের বেশি হলে ভাড়া গুনতে হবে ৮০ হাজার টাকা। ৫০০ জনের বেশি হলে ভাড়া দিতে হবে এক লাখ ১০ হাজার টাকা। তবে কার্য দিবসে ভাড়া কিছুটা কম। অর্থাৎ ৩০০ জনের বেশি হলে ভাড়া দিতে হবে ৭৫ হাজার টাকা। আর ৫০০ জনের বেশি হলে ভাড়া দিতে হবে ৯০ হাজার টাকা। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ২ রুম সংবলিত একটি বাংলোর ব্যবস্থা থাকছে পিকনিকের জন্য। এর পাশাপাশি দোতলা বাংলোর ব্যবস্থা রয়েছে।

কীভাবে যাবেন : রাজধানী ঢাকার কমলাপুর, মহাখালী ওসায়েদাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে বাসে যাওয়া যায়। ৩০ মিনিট পরপর বাস পাবেন।আন্তঃনগর এগারোসিন্দুর ও মহানগর গোধূলী ট্রেনেও যেতে পারেন। এ ছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রামের যেকোনো লোকাল ট্রেনে যাওয়া যেতে পারে। আন্তঃনগর ট্রেনে গেলে নরসিংদী স্টেশনে নেমে সেখান থেকে বাস অথবা সিএনজি চালিত অটো-রিকশায় যেতে হবে। আর লোকাল ট্রেনে গেলে নরসিংদী স্টেশন ছাড়া ঘোড়াশাল স্টেশনেও নামতে পারেন। সেখান থেকে বাসে যেতে হবে।

এ ছাড়া ঢাকা-সিলেট বিভাগের যে কোনো বাসে উঠলেই এ পার্কে পৌঁছানো যাবে। কিংবা কাঁচপুর অথবা টঙ্গী থেকে কালীগঞ্জ, ঘোড়াশাল হয়ে যাওয়া যাবে অনায়াসে। এক থেকে সর্বোচ্চ দেড় ঘণ্টার যাত্রাপথ।

যোগাযোগ :
ফোন: ৯৫৬৪০৪৬, ৯৫৭০১৪০-৪১, ৭৬৩০২২৫
মোবাইল ০১৭১২-১৪৫৮৪৯, ০১৭২১-৪৯০৪২০

তথ্যসূত্র:http://www.risingbd.com/%E0%A6%98%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%87-%E0%A6%86%E0%A6%B8%E0%A7%81%E0%A6%A8-%E0%A6%A1%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%AE-%E0%A6%B9%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A6%A1%E0%A7%87-%E0%A6%AA%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%95/105260

৯১১ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
কৈফিয়ত - তোমরা যে যা-ই ব'ল না বন্ধু; এ যেন এক - 'দায়মুক্তির অভিনব কৌশল'! যেন-বা এক শুদ্ধি অভিযান - 'উকুন মেরেই জঙ্গল সাফ'!! প্রতিঘাতের অগ্নি-শলাকা হৃদয় পাশরে দলে - শুক্তি নিকেশে মুক্তো গড়ায় ঝিনুকের দেহ গলে!! মন মুকুরের নিঃসীম তিমিরে প্রতিবিম্ব সম - মেলে যাই কটু জীর্ণ-প্রলেপ ধূলি-কণা-কাদা যত। রসনা যার ঘর্ষনে মাজা সুর তায় অসুরের দানব মানবে শুনেছ কি কভু খেলে হোলি সমীরে? কাব্য করি না বড়, নিরেট গদ্যও জানিনে যে, উষ্ণ কুসুমে ছেয়ে নিয়ো তায় - যদি বা লাগে বাজে। ব্যঙ্গ করো না বন্ধু আমারে অচ্ছুত কিছু নই, সীমানা পেরিয়ে গেলে জানি; পাবে না তো আর থৈ। যৌবন যার মৌ-বন জুড়ে ঝরা পাতা গান গায় নব্য কুঁড়ির কুসুম অধরে বোলতা-বিছুটি হুল ফুটায়!! ভাল নই, তবু বিশ্বাসী - ভালবাসার চাষবাসে, জীবন মরুতে ফুটে না কো ফুল কোন অশ্রুবারীর সিঞ্চনে। প্রাণের দায়ে এঁকে যাই কিছু নিষ্ঠুর পদাবলী: দোহাই লাগে, এ দায় যে গো; শুধুই আমার, কেউ না যেন দুঃখ পায়।
সর্বমোট পোস্ট: ১৪৩ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৪২২ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৫-০২-১৪ ০২:৫৯:৫৩ মিনিটে
banner

৫ টি মন্তব্য

  1. দীপঙ্কর বেরা মন্তব্যে বলেছেন:

    দারুন

  2. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    ধন্যবাদ জানাই কবিকে

  3. টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

    এখন আরো একটু আধুনিক হয়েছে কি না জানা নেই । কিন্তু ২০১৪ এর শুরুর দিকে যখন গেলাম খুব একটা মন কাড়েনি আমার । সুন্দর বিনোদন কেন্দ্রের সন্ধান দেয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ ।

  4. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    স্থাপনাগুলো তো ব্যয়বহুল ও সময় সাপেক্ষ – ধীরে ধীরে সমৃদ্ধ হবে।
    মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা –

  5. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    যেদিন অবসর পাবো সেদিন হয়তো যাওয়া হবে

    সুন্দর খবর দেয়ার জন্য ধন্যবাদ

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top