Today 23 Apr 2021
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

জবাব দিতে হবে

লিখেছেন: অনিরুদ্ধ বুলবুল | তারিখ: ২৬/০৫/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 888বার পড়া হয়েছে।

বিদগ্ধ মোর বঙ্গমাতা শুনবে কি গো আজ

অভাগাদের কষ্ট গাথার করুণ আহাজারি!

আজ মা তুমি সেজেছ কি এমনই বধির!

রক্ত নেশা তোমার হয়েছে কি ভারি!

রক্ত চাই তোমার – শুধু তাজা লহু

ঝরে প্রাণ ঝরুক না, যতই হোক তা বহু!

 

দু’লাখের ইজ্জত বলি, তিরিশ লাখের প্রাণ

ঝরিয়ে হয়েছিলে তুমি মুক্ত বীরাঙ্গনা।

স্বাধীন হবার স্বপ্ন কি মা এমনই ছিল তবে;

আগুন পাখায় চড়ে মোরা করব যুদ্ধ আজো

অকাতরে খেলতে হোলি ওই ক্ষমতার তরে!

মানুষ তবে নয় কি কোন কিছু, ক্ষমতাই সার?

 

ভ্রষ্টনীতির পাশা খেলায় গণতন্ত্র গেছে দূর

মানবতার নেই কো ছায়া, নেই তো অধিকার

দুর্নীতি আর মিথ্যা বুলির দেখি জয় জয়কার!

মায়ের জাত তো মায়াবতী, দেখি একি ছবি –

সেকি কুহকিনী মায়া; স্ব-সন্তান বিনে ভাসে না চোখে

আর সন্তানের ছায়া! ‌নয় দরদী জনতা পঙ্গপালেও?

 

আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙিয়েছ মানচিত্র তোমার

তবু কেন বাঁচার তরে এত যুদ্ধ হলাহল মা গো?

হিংসায় লুটাই, করি হানাহানি মারতে আপন ভাই?

জন্ম শুধুই দিয়েছ মোদের, মানুষ তো করনি?

বোমার ঘাতে আজ যে শিশু হচ্ছে খান খান

স্বপ্ন ভেঙ্গে হয় চুরমার, এ দায় ব’ল মাকার?

 

জাল পরা বাসন্তী মা নিয়েছে বিদায় বহু আগেই

তবু কেন ঝুলে আজো ফালানীরা কাঁটাতারে

উদ্বাহু ডানা মেলে ঝলমলে জামা গায়?

ক্ষমতা ছাড়া আজ যাদের নেই কোন হুঁশ

হুঁশিয়ার বল তাদের; এ গনেশ উল্টে যাবে, রুখে যদি

ফুঁসে উঠে আম-জনতা, জবাব তাদের দিতেই হবে।

————————————-

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ  জানুয়ারী-ফেব্রুয়ারী, ২০১৫ – দেশজুড়ে যে ‘জ্বালা-পোড়া’র রাজনীতি চলছিল, কবিতাটি তখনকার লেখা। ভুলবশত তখন আর পোস্ট করা হয় নি।

৮৯৬ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
কৈফিয়ত - তোমরা যে যা-ই ব'ল না বন্ধু; এ যেন এক - 'দায়মুক্তির অভিনব কৌশল'! যেন-বা এক শুদ্ধি অভিযান - 'উকুন মেরেই জঙ্গল সাফ'!! প্রতিঘাতের অগ্নি-শলাকা হৃদয় পাশরে দলে - শুক্তি নিকেশে মুক্তো গড়ায় ঝিনুকের দেহ গলে!! মন মুকুরের নিঃসীম তিমিরে প্রতিবিম্ব সম - মেলে যাই কটু জীর্ণ-প্রলেপ ধূলি-কণা-কাদা যত। রসনা যার ঘর্ষনে মাজা সুর তায় অসুরের দানব মানবে শুনেছ কি কভু খেলে হোলি সমীরে? কাব্য করি না বড়, নিরেট গদ্যও জানিনে যে, উষ্ণ কুসুমে ছেয়ে নিয়ো তায় - যদি বা লাগে বাজে। ব্যঙ্গ করো না বন্ধু আমারে অচ্ছুত কিছু নই, সীমানা পেরিয়ে গেলে জানি; পাবে না তো আর থৈ। যৌবন যার মৌ-বন জুড়ে ঝরা পাতা গান গায় নব্য কুঁড়ির কুসুম অধরে বোলতা-বিছুটি হুল ফুটায়!! ভাল নই, তবু বিশ্বাসী - ভালবাসার চাষবাসে, জীবন মরুতে ফুটে না কো ফুল কোন অশ্রুবারীর সিঞ্চনে। প্রাণের দায়ে এঁকে যাই কিছু নিষ্ঠুর পদাবলী: দোহাই লাগে, এ দায় যে গো; শুধুই আমার, কেউ না যেন দুঃখ পায়।
সর্বমোট পোস্ট: ১৪৩ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৪২২ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৫-০২-১৪ ০২:৫৯:৫৩ মিনিটে
banner

৮ টি মন্তব্য

  1. মাজেদ হোসেইন মন্তব্যে বলেছেন:

    হুশিয়ার বল তাদের; এ গনেশ উল্টে যাবে, রুখে যদি
    ফুঁসে উঠে আম-জনতা, জবাব তাদের দিতেই হবে।

    কবিতা পড়ে পড়তে মানে হলো বিদ্রোহের ঢাকে সারা দিলাম।

    অনেক সুন্দর শুবেচ্ছা জানবেন কবি।

  2. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    ভালো ভাবনা র প্রয়াস
    সুন্দর লিখনী আপনার

    ,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,নাইস

  3. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    কবে যে এমন রাজনীতি দেশ থেকে বিতাড়িত হবে আল্লাহই। জানেন

    অসম্ভব সুন্দর লেখা

    ভাল লাগায় ভরপুর

    শুভেচ্ছা কবিকে।

    • অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

      বেশ ক’দিনের বিরতির পর কবিকে দেখছি!
      ভাল আছেন তো? ভাল থাকুন।
      সুন্দর মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ।

  4. টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

    খুব ভাল আর বেশ বড় কবিতা । মুক্তিযুদ্ধ, ভাষা দিবসের ত্যাগ-তিতিক্ষার বিষয়ের সাথে জেগে উঠেছে কিছু প্রশ্ন ! যে প্রশ্নগুলি সকল দেশপ্রেমী আর বিবেক বোধসম্পন্ন মানুষের ক্ষেত্রে এক ও অভিন্ন । খুব ভালো লাগলো কবিতা । শুভেচ্ছা জানবেন ।

    • অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

      ব্লগ সাইটের জন্য ত্রিশ লাইনের কবিতা একটু বড় বৈকি।
      আমি সচরাচর ২-২৫ লাইনে সীমাবদ্ধ রাখতে চাই।
      এটা কিভাবে যেন হয়ে গেল। এরপর অবশ্যই খেয়াল লাখব। ধন্যবাদ।
      সান্ধ্য শুভেচ্ছা জানবেন।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top