Today 19 Sep 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

জাগলো সাড়া কাশবনে

লিখেছেন: সুরাইয়া নাজনীন | তারিখ: ১৭/০৯/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 1304বার পড়া হয়েছে।

image_308_94817

হিমেল হাওয়া। নদীর আঁকাবাঁকা স্রোতের গন্তব্য এক অজানা পথে। মাঝির পালের হাওয়ায় বকসাদা কাশফুলগুলো দুলছে মনের আনন্দে। অবারিত কাশফুলের øিগ্ধ উপস্থিতিই জানান দিল শরতের আগমনবার্তা এই বুঝি শরৎ এসেছে। নীল-সাদা আকাশ। এই রোদ এই বৃষ্টি। দুরন্ত কিশোরী ছুটে চলছে ধুলোমাখা পথে। তার যেন সময় এসেছে ভোরের সুবাসিত শিউলি কুড়ানোর। জোছনা রাতে বাড়ি সুগন্ধিত হয় শিউলির পাগল করা সুবাসে।

1

সেই সুবাসে পুজোর দিন প্রতিমার চোখে প্রাণ প্রতিষ্ঠা হয় দেবীর।  শুভ্রতাকে আরো শুভ্র করে রাখতে ফুলের সাজিতে ভরে ওঠে নানা রঙের ফুল। সাদা আর দুধ সাদার মিলনমেলায় একাকার হয় দোলনচাঁপা, বেলী, শিউলি, শাপলা। রংধনু রঙের ফুলেরও কমতি নেই এই ঋতুতে। নানা রঙের ফুল যেন সুর তুলেছে একই সুরে। জারুল, রঙ্গন, টগর, রাধাচূড়া, মধুমঞ্জুরি, শ্বেতকাঞ্চন, কামিনী, নয়নতারা, ধুতরা, কল্কে, স্থল পদ্ম, সন্ধ্যামণি, বোগেনভেলিয়া, জয়ন্তিসহ আরো কত কী! পূজার থালা রাঙাতেই বুঝি থরে থরে ফোটে ঝুমকো জবা, লটকন জবা, লঙ্কা জবা। স্বর্ণচাঁপা আর কাঁঠালচাঁপার লাজুক হাসিতে উদাসী হয়ে যায় পাখিরা। স্থলেই শুধু থেমে নেই শরতের ফুলেরা তারা জলেও খেলা করছে আপন মনের মাধুরিতে। অজস্র  ঢেউয়ের মতো ফুটে চলেছে শাপলা, শালুক, রক্তকমল আর জলপদ্ম। টবেও ফুটতে দেখা যায় কঙ্কনা, নীলচিতা আর রেইনলিলি।

44

শরতে বাঙালি মেয়েদের সাজেও যেন ফুটে ওঠে অপরূপ শুভ্রতা। ফুলের আভাতে নিজেকে করে তোলা যায় একেবারেই স্বতন্ত্র। আটপৌরে শাড়ি, কপালে সিঁদুর রঙের টিপ, চোখে কাজল, চুলে কয়েক গাছি শিউলির মালা। কনের হলুদ সন্ধ্যাটাও সুরভিত করা যায় শিউলির মিলনমেলায়। চুলের এলোখোঁপাতে বেছে নেয়া যায় কাশডাটা, পদ্ম কিংবা আধফোটা শাপলা। আর অবাধ্য চুলেরা যদি বাধা মানতে নাই চায়, তাহলে চুলগুলোকে হালকা ফুলিয়ে টার্সেলে বেঁধে ঝুলিয়ে দেয়া যায় বিনুনির বাঁধনে। শুধু সাজ নয়, ঘরের সজ্জায়ও নিয়ে আসতে পারেন শরতের নান্দনিকতা। মাটির চাড়িতে স্বচ্ছ জলে ভাসিয়ে দিন চাঁপা, টগর অথবা রঙিন পদ্ম ও শাপলা। সঙ্গে থাকুক মোম কিংবা প্রদীপের আলো। শরতের প্রকৃতি টুপ করে ঝরে পড়বে আপনার ঘরে। কাঁসার থালায় নিন উপচে পড়া শিউলি। এক পাশে রাখুন শুভ্র শঙ্খ, উঁচু কাঁসার প্রদীপ জ্বলবে তারই পাশে। দেখুন না, কীভাবে বদলে যায় ঘরের কোণটি। যদি চান ঘরের কোণে আলো ছড়াতে, তাহলে কোনায় বসান বড় টব। তাতে রাখুন বড় থালা। থালায় সাজান প্রদীপ, সঙ্গে সবুজ পাতায় মেশানো সাদা শরতের ফুল।  শুধু আকাশ নয়, শরতের প্রকৃতিও যেন সেজেেেছ নির্মল এক মায়াবী শুভ্রতায়। ফুলেরা ছড়াচ্ছে সুনীল সজীবতা সারাবেলা!

১,৩৮৮ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ২৪ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ০ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৯-১৭ ০৮:০৮:৫৭ মিনিটে
banner

৫ টি মন্তব্য

  1. তাওসীফ সাদাত মন্তব্যে বলেছেন:

    প্রবন্ধ আমার বরাবরই খুব ভাল লাগে, খুব সুন্দর করে নিজের চিন্তাধারা প্রকাশ এর জন্য প্রবন্ধ আর কবিতা বেশ ভাল একটা উপায়, আর প্রবন্ধে লেখকের নিজস্ব ধারণার খুব সুন্দর করে ব্যাখ্যা থাকায় সেটা আমার কাছে বেশ ভালই লাগে। মোটকথা অন্যের চিন্তাধারা জানার আগ্রহ আমার বরাবরই খুব বেশি :)

  2. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনাকে স্বাগতম ।
    ১ম দুটো ছবি ভাল লেগেছে । ৩য় টি ……না ।

  3. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    সুন্দর লিখা সুন্দর ছবি
    প্রথম ২ টা ছবি বেশি সুন্দর
    তৃতীয় ছবি টা ও সুন্দর সুরাইয়া
    তবে ছবি টা ভ্যালেনটাইন স্টাইল হয়ে গেছে (লোল)

  4. তুষার আহসান মন্তব্যে বলেছেন:

    এই শরতে মন ভরতে নদীর দুধারে কাশ
    সবুজের ঝিলিমিলি মেটায় মনের আশ।

    লেখা ছবি চমৎকার।

  5. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    জাগলো সাড়া কাশবনে- দেখতে সুন্দর লাগছে

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top