Today 08 Apr 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

তিক্তময় সত্য কথা ৭ (শেষ অংশ)

লিখেছেন: শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত | তারিখ: ২৯/১২/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 921বার পড়া হয়েছে।

তোমরা আজ আল্লাহকে ভুলে মানবের দাসত্বে প্রাণপণে নিয়োজিত , তাদের গড়া বিধানকে সর্বস্ব দিয়ে আকড়ে ধরেছ ।

হে যুবক বিশেষভাবে তোদের বলছি , তোদের আচার-আচরণ , কথা-কার্যে , ও লেবাছে চিনতে পারি না , তোমরা ইসলামের দিগীজয়ী বীর নাকি পাপিষ্ট,অভিসপ্ত,বিধর্মী ও বেদুঈন ? শ্রেষ্ঠ পথ প্রদর্শক মহা মানব মুহাম্মদ (সা.) কে ভুলে মাইকেল জ্যাকশন , নেপোলিয়ন , ওয়াশিংটন ,এলিজাবেত ইত্যাদি যত কুখ্যাতদের আদর্শকে সর্বাঙ্গে নিয়ে ঘুরছো । চরম ভ্রান্তিতে ডুবে আছ এতে প্রোটন পরিমান উপকৃত হবে কি না সন্দেহ !

আমরা এমন মুসলীম ! লজ্জা শরমের মস্তক দন্ত দ্বারা চিবিয়ে চিবিয়ে ভক্ষণ করেছি । তাই বিধর্মীদের কালচার দারুণ লাগছে । অথচ ঐ বিধর্মীরা মহানবীর আদর্শে মুগ্ধ হয়ে দৈনিক শান্তির ধর্ম গ্রহণ করছে । তা কারো নেত্রের অগোচর নয় । আঁখি ডাগর করে তাঁকাও , আর তোমরা অনুকরণ অনুসরণ করছো নাস্তিক বামদের । এটাই কি মুসলীম যুবকদের আদর্শ ? মোটেও নয় , তাই আজ সংখ্যা গরিষ্ঠ্য হওয়া সত্ত্বেও বাতিলের অগ্রে শির নোয়ায়ে অভ্র সম লাঞ্চনা নিয়ে ফিরছো । বিশাল আশ্চার্যের বিষয় ,তাই না ? বদনে বদনে বৃহত্তর বাণী উচ্চারিত হয় , সত্যের পথে জীবন উত্‍সর্গ করবে বলে ।
কিন্তু লড়াইয়ের ময়দানে পরাস্ত কুত্তের ন্যায় লেজ গুটিয়ে পলায়ন করছো । তা বহুবার আপনার নয়ন হেরিছি । তবুও তোদের বদন শক্তির হ্রাস পাচ্ছে না । তোমাদের ঈমানি বল শিশু কিশোরের খেলনা বালু গৃহ । আর দেরি নয় তুষারে জমে যাওয়া ঈমানকে ইসলামের তাপে উষ্ণ করো । নিজেকে গড়ে নাও ওমর ফারুকের ন্যায় , যার সমূখে বাতিল শক্তি শির অবনত করেছে সহস্রবার ।
এখন করুণ অভাব সরল সঠিক পন্থের অনুসারীদের,পরম অভাব স্রষ্টার খাছ গোলামের । পৃথিবীর কোন ভৃত্য মুনিবের অপছন্দনীয় কর্ম বা চুন থেকে পানে নড়লে , তার পরিণাম কি হবে ? তা বেশ অবগত সবাই ।

আমরা মুসলীমরা আল্লাহর কত যে অবাধ্য তা লিখনের দ্বারা বুঝাতে আমি অক্ষম । এতেও অনেকে আপত্তিকর চিত্তে অভিযোগ করবে ,অসম্ভব । সেটা আমারও অজানা নয় ।কারণ তারা শরিয়তের মৌলিক কার্যগুলো পালন করে । কিন্তু তাতেও কত শত ভ্রান্তি ও বেঠিক পদ্ধতি । তাই আমাদের ঈমানের তাপমাত্রা এখন শুন্য থেকে আরও মাইনাস পজিশনের পানে ক্ষিপ্রগতিতে ছুটছে । স্পষ্ট শুনে রাখো মৌখিক তেজে কভু সত্যের জয়ঢাক বাজেনি , ঈমানি শক্তি ব্যতীত আল্লাহর প্রতি পূর্ণ আস্থাবিহীন ।

আমরা ভুলেছি মহানবীর মহামূল্যবান বাণী ” যে দ্বীনের জন্য জিহাদ করল না আর হৃদয়ে জিহাদের স্বাদও ছিলনা , সে আমার অনুসারী (উম্মত) নয় ” । এ কষ্টি পাথর দ্বারা পরখ করে দেখ , আমরা তার উম্মতের মধ্যে পরিগনিত কি না ? যদি না হই তবে বড় পরিতাপের বিষয় , সব বরবাদ । বিরামহীন সহ্য করতে হবে চিরস্থায়ী দোযকের আযাব ।
হে মুসলীম ভাই ও বোনেরা ,
এখনও সুযোগ আছে শয়তানের পথ ভুলে ফিরে এসো , সরল সঠিক আল্লাহর মনোনিত পথে ।

৯৭৮ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
01912657988 অথবা 01853861342
সর্বমোট পোস্ট: ১৮৫ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৩৬৩৬ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৮-২৩ ১১:৪২:৪১ মিনিটে
banner

১৩ টি মন্তব্য

  1. এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

    সত্য সব সময় তিক্ত
    ধন্যবাদ পন্ডিত সাহেব।

  2. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    শান্ত তুমি ভাল আছ তো ভাই? আমি আজকে তোমার সঙ্গে কোন তিক্ত কথা বলবনা যতই সত্য হোক।ছোট ভাইকে আর কত কড়া কথা বলব?

    তুমি নেপোলিয়ান ওয়াশিংটন এদেরকে কেন কূখ্যাত বলতেছ।ধরলাম মাইকেল জ্যাকসনের ব্রেক ড্যান্স তোমার পছন্দ না।এই লাইন এডিট কর ভাই।

    আজকে তোমার আগের লেখা খুজছিলাম কমেন্টস করার জন্য।

  3. শাহিন মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাই স্যত এবং বাস্তবতা একটু আলাদা । আমার মতামত । ভাল থাকবেন ।

  4. এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    নিজের ধর্মের মাহাত্ব যত ইচ্ছে প্রচার করুন । অন্য ধর্মের বা অন্য ধর্মাবলম্বীর সমালোচনা না করাই ভাল । বুদ্ধিমানেরা সব সময় এ রাস্ত্ এড়িয়ে যায় । আল্লাহর পথে নেমেছেন আল্লাহ আপনাকে সরল পথ দেখাক । আপনি ধর্মের আরও নিবীরতম অবস্থানে চলে যান । শুব কামনা ।

  5. আহমেদ নিরব মন্তব্যে বলেছেন:

    লেখাতেই ফুটে ওঠে আবেগ। বাস্তবে এর দৃশ্যরূপ কতখানি? জয় করা যায় যুদ্ধ করে, কৌশলে ভালবাসা দিয়ে। যুদ্ধের জয়ের পরে নাকে থাকে রক্তের গন্ধ আর ভালবাসা থেকে শান্তি। আমারা মুসলিমরা শান্তিপ্রিয়। জয় করব তবে সহিংস হয়ে নয়।
    আপনার জন্য শুভ কামনা।

  6. আহসান হাবীব সুমন মন্তব্যে বলেছেন:

    অনেক কিছু জানতে পারলাম !!!!!
    ধন্যবাদ ।

  7. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    তিক্ত হলে সত্য কথা

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top