Today 25 May 2018
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

তিলোত্তমা

লিখেছেন: কৌশিক আজাদ প্রণয় | তারিখ: ০৮/০৪/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 249বার পড়া হয়েছে।

ধুলোমাখা সব কবিতার অক্ষরে আচমকা কফির কালো দাগ
কতশত হৃদয় নিংড়ানো ভালবাসাময় আকুতি হে তিলোত্তমা,
স্মৃতির বিগলিত আবহে হারায়- নিয়ত। সব কথা থেমে গেছে আজ।
প্রসারিত শাড়ীর পাড় ছুঁয়ে গেছে আজ দূরবর্তী সময়ের তটিনী।
তিলোত্তমা, প্রগাঢ় যাতনা যারা অবাধ্য হয়ে জেগে উঠত তোমার
উষ্ণ ওষ্ঠের কামিত স্পর্শে, ধুলোমাখা কবিতায় সময়ের জড়তা আজ
তোমার নীল চোখের চাহনি আজ বিষাদের ছবি আঁকে অসীম শূন্যতায়।
আজো হেঁটে যাই আমরা অবিরাম, পথ গিয়েছে বেঁকে আজ খুঁজে নিয়ে
আপন গন্তব্য। বাসন্তী হাওয়া আজো বয়ে যায় আপন খেয়ালে, তবু
হে তিলোত্তমা, প্রদীপ্ত নই আজ। হয়তো আপন কক্ষপথে তুমিও
গুনছ বাসন্তী প্রহর, স্নিগ্ধ সময় তোমায় দিচ্ছে বাহবা নবসূচনার, হয়তো
অন্য কোনো সময়,  অন্য কারো অগোছালো দুমড়ানো বিছানায়।
তিলোত্তমা, কবিতার সব অক্ষর গুলো আজ তোমার স্মৃতির মতই মলিন।
কলমও তাই থেমে গেছে, স্বপ্নের আকাশ ছেয়ে গেছে বিষাদের কালোয়।
তিলোত্তমা, তোমায় নিয়ে সব কথা আজ এখানেই থেমে যাক।

২৪৪ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
বিভিন্ন ব্লগ কিংবা কয়েকটা সাময়িকীতে কিছু কবিতা বা কিছু প্রবন্ধ ছাড়া কবি হিসেবে তেমন কোন পরিচিতি না থাকলেও কৌশিক আজাদ প্রণয় অনেক ছোট বেলা থেকেই স্কাউট, আবৃত্তি ও বিতর্ক অঙ্গনে বেশ সুপরিচিত। কবির জন্ম ২৬ জুলাই, ১৯৮৭, ঢাকায়। বেড়ে ওঠার শুরুটা মুন্সিগঙ্গে, কৈশোর কেটেছে নিজ জেলা শরীয়তপুরের জাজিরা থানায়। জাজিরা মোহরআলী পাইলট উচ্চবিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক, পরে নটরডেম কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক এবং এরপর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণিত শাস্রে স্নাতক সহ স্নাতকোত্তর শেষে চাকরী জীবন শুরু করেন World University of Bangladesh এ শিক্ষকতার মাধ্যমে, এরপর ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি হিসেবে ষ্ট্যাণ্ডার্ড বাংক লিমিটেড এ যোগদান।২০০৩ সালে কবি অর্জন করেন স্কাউটের সবচেয়ে সম্মানিত পুরষ্কার “ প্রেসিডেন্ট স্কাউট অ্যাওয়ার্ড” । জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি ডিবেট অরগানাইযেশনে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রগতিশীল প্রায় প্রতিটি আন্দোলনে অগ্রগামী নেতৃত্বে ছিলেন বিতর্ক আন্দোলনের এই নেতা। বাংলাবিতর্কে টেলিভিশন বিতর্ক সহ অন্যান্য জাতীয় পর্যায়ের বিতর্ক অঙ্গনে অর্জন করেছেন অসামান্য সুখ্যাতি ও সম্মাননা।মুক্ত বুদ্ধি চর্চা কেন্দ্র, শরিয়তপুর থেকে ছোট বেলা থেকেই আবৃত্তির দীক্ষা নিয়ে থাকলেও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আবৃত্তি সংগঠন “ধ্বনি” তে যুক্ত হয়ে কবি আবৃত্তি অঙ্গনে স্থান করে নেন একজন নন্দিত আবৃত্তিকার হিসেবে।ব্যাক্তিগত জীবনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক কৃতি বিতার্কিক রেহনুমা তারাননুম কবির সহধর্মিণী। অসাম্রদায়িক বংলাদেশ, স্থিতিশীল সমৃদ্ধ জাতি গঠনের আত্মপ্রত্যয়ে বিভিন্ন প্রগতিশীল আন্দোলনে সব সময়ই কবি অকুণ্ঠভাবে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন সমাজ পরিবর্তনের স্বপ্নে। কবির প্রকাশিত প্রথম বই 'প্রেম ও দ্রোহের শঙ্খনাদ'।
সর্বমোট পোস্ট: ৬ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৩ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৫-০৪-০৬ ১৫:৫৩:২৮ মিনিটে
Visit কৌশিক আজাদ প্রণয় Website.
banner

৪ টি মন্তব্য

  1. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    কবি দারুন কাব্যতায় মুগ্ধ হলেম
    চমৎকার লিখনী
    সুন্দর উপস্থাপন

    শুভ কামনা রইল
    শুভ বিকাল

  2. টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

    বেশ কথামালায় গাঁথা তিলোত্তমা !
    পাঠে বেশ সুখানুভূতি জাগে ।
    ভালো লাগা দিয়ে গেলাম কবি ।

    • টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

      আরেকটা বিষয় কবি ! এই ব্লগে প্রথম পাতায় একজন লেখকের দুটি পোস্ট না দেয়ার জন্য ব্লগ কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা আছে । আমার বিশ্বাস আপনি বিষয়টা না জেনেই হয়তো দুটি পোস্ট করে ফেলেছেন । পরবর্তীতে আরেকটু সচেতন হবেন বলেই প্রত্যাশা । ভালো থাকুন কবি ।

  3. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    অনিন্দ্য সুন্দর একটা কাব্যিক উপস্থাপনা – কবির কবিতাশৈলী পাঠক হৃদয়কে আবেশিত করে।
    দু:খজনক হলেও সত্য – এই পাতায় হাতে গোণা কয়েকজন ছাড়া বাকি আমার মত অনেকের কাব্যই তেমন মানুত্তীর্ণ নয়। সেক্ষেত্রে কবির উপস্থিতি এই পাতার সৌন্দর্য বাড়াবে তেমনটাই আশা। কবির কলমে আমরা আরো সুন্দর সব
    কবিতা পড়তে পারব, সেই আশাবাদ জানিয়ে কবির সুস্বাস্থ্য কামনা করছি।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top