Today 21 Sep 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

থিওরী অব রেভূলেশান বিপ্লব জাগানোর মত নেতৃত্বের সঙ্গে স্বদেশ প্রেম কঠোর নৈতিক আদর্শ চরিত্রের সমন্বয়

লিখেছেন: আরজু মূন জারিন | তারিখ: ৩০/১১/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 591বার পড়া হয়েছে।

বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইন সত্যি আমার পূর্ব পুরুষ ছিলেন।

এই ব্যাপারে এখন আর আমার কোনো সন্দেহ নাই। কিভাবে তা এখন বর্ণনা করছি। আলবার্ট আইনস্টাইন নাকি (ঘটনা হুবহু মনে করতে পারছিনা সম্ভবত এরকম কোন একটা এক্সপেরিমেন্ট এ করতে গিয়ে তিনি নাকি তার স্টপ ওয়াচ নাকি বয়েল ওয়াটের এ ফেলে দিয়ে তার উপাদান হাতে নিয়ে বসে থাকতেন। প্রতিদিন নিজের বাসা ছেড়ে অন্য বাসার ডোর এ নক করার বদভ্যাস হয়ে যাচ্ছে। আইনস্টাইন সবসময় নাকি তার বাসার রাস্তা ভুলে যেত।

আজকে পোড়া রুটি আর চা দিয়ে সারলাম আমার ব্রেকফাস্ট কাম লাঞ্চ।
তারপর ও বলি আলহামদুলিল্লাহ অনেকের ভাগ্যে হয়তবা পোড়া রুটি ও নেই। আমার ভাগ্য এখনো তত মন্দ হয়নি। আর যেটুকু মন্দ তাতো আমার ই দোষে। আইনস্টাইন কে ফলো করছি যে।

আমার তাই হয়ে যায় প্রায় সময়। আলু কেটে চুলায় কড়াই বসিয়ে তেল দেই। তারপর তেলে দিয়ে ফেলি ভেজেটেবল পিলার। আর সবজি ফেল দেই সিংক এ ওয়াশ করার জন্য। এইভাবে ভালো করে প্রতিদিন আমার নাস্তা সারি।

সবচেয়ে বিপদজনক যে কাজ মাঝে মাঝে হয়ে যায় ফ্রাইপ্যান চুলায় না দিয়ে হাত বার্নারে দিয়ে ছ্যাকা খাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।আইনস্টাইন তো  থিওরী অফ রিলেটিভিটি আবিস্কার করে গতিবিদ্যায় এক যুগান্তকারী পদক্ষেপের সূচনা করেছেন যা গতিবিদ্যায় এক স্থায়ী দিকনির্দেশনা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।আর একালের আমি সম্ভবত থিওরী অব সার্টেইনটি অর সার্টেইনটি বাংলার ভাগ্যাকাশে কোন দূর্যোগ ঘটতে যাচ্ছে তার নিয়ামকগুলি কি কি বা তার আশু প্রতিকার বা কি নিশ্চয়তার তত্ব বা হাইজেনবার্গের অনিশ্চয়তার তত্ব এর মত কিছু আবিস্কারের নেশায় প্রানটাকে হাতে নিয়ে বসে আছি।তবে আল্লাহ র কৃপা দৃষ্টি সবসময় ফীল করি নিজের উপর। কেননা আমার আল্লাহ জানছেন

আমি ভিন্ন কেহ নাই

এই বিপদজনক সাগর

পাড়ি দিয়ে অসহায় বিপদগ্রস্ত মানুষের

উদ্বার কে করিবে আর

আমি তো করিলাম এক ভীষন পন

স্বদেশের তরে বিসর্জন দিব জীবন প্রান (অনুকরন নন্দলাল কবিতার)।তোত

আমার আল্লাহ আমার দেশের কথা মনে করে নিরাপদে বাচিয়ে রেখেছেন।

যাই হোক কৌতুকের মাধ্যমে নন্দলালের রেফারেন্স চলে আসলে নন্দলাল এর মত চরিত্র আমাদের করও কাম্য নয়। দরকার এখন এই জাতি সমাজের জন্য সত্যিকারের যোগ্য সমাজ নায়ক যার চরিত্রে আছে থিওরী অব রেভূলেশান বিপ্লব জাগানোর মত নেতৃত্বের সঙ্গে স্বদেশ প্রেম কঠোর নৈতিক আদর্শ চরিত্রের সমন্বয়।

৬৩৮ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
নিজের সম্পর্কে কিছু বলতে বললে সবসময় বিব্রত বোধ করি। ঠিক কতটুকু বললে শোভন হবে তা বুঝতে পারিনা । আমার স্বভাব চরিত্র নিয়ে বলা যায়। আমি খুব আশাবাদী একজন মানুষ জীবন, সমাজ পরিবার সম্পর্কে। কখনো হাল ছেড়ে দেইনা। কোনো কাজ শুরু করলে শত বাধা বিঘ্ন আসলেও তা থেকে বিচ্যুত হইনা। ফলাফল পসিটিভ অথবা নেগেটিভ যাই হোক শেষ পর্যন্ত কোন কাজ এ টিকে থাকি। জীবন দর্শন" যতক্ষণ শ্বাস ততক্ষণ আশ " লিখালিখির মূল উদ্দেশ্যে অন্যকে ভাল জীবনের সন্ধান পেতে সাহায্য করা। মানুষ যেন ভাবে তার জীবন সম্পর্কে ,তার কতটুকু করনীয় , সমাজ পরিবারে তার দায়বদ্ধতা নিয়ে। মানুষের মনে তৈরী করতে চাই সচেতনার বোধ ,মূল্যবোধ আধ্যাতিকতার বোধ। লিখালিখি দিয়ে সমাজে বিপ্লব ঘটাতে চাই। আমি লিখি এ যেমন এখন আমার কাছে অবাস্তব ,আপনজনের কাছে ও তাই। দুবছর হলো লিখালিখি করছি। মূলত জব ছেড়ে যখন ঘরে বসতে বাধ্য হলাম তখন সময় কাটানোর উপকরণ হিসাবে লিখালিখি শুরু। তবে আজ লিখালিখি মনের প্রানের আত্মার খোরাকের মত হয়ে গিয়েছে। নিজে ভালবাসি যেমন লিখতে তেমনি অন্যের লিখা পড়ি সমান ভালবাসায়। শিক্ষাগত যোগ্যতা :রসায়নে স্নাতকোত্তর। বাসস্থান :টরন্টো ,কানাডা।
সর্বমোট পোস্ট: ২২৯ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৩৬৮৩ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৯-০৫ ০১:২০:৩৫ মিনিটে
banner

২ টি মন্তব্য

  1. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনি যেন নব্য আইনস্টাইন হতে পারেন দোয়া করি ।

  2. এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    লিখা লিখির মাধ্যমে বিপ্লভ ঘটানোই আসল পথ । আশা করি আপনার ইচ্ছা পূরণ হবে । শুভ কামনা ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top