Today 27 May 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

“দু’টি মুত্যু সংবাদ”

লিখেছেন: Abdullah Al Noman | তারিখ: ০৫/০১/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 719বার পড়া হয়েছে।

এই জাতি উদ্গ্রীব দু’টি মৃত্যু সংবাদ শুনতে
কান খাড়া করে আছে কখন শুনবে সেই সুসংবাদ।
মৃত্যু সে তো শোকের প্রতিশব্দ
তবু এখানে মৃত্যু যেন স্বস্তির সওগাত।
কত বিতৃষ্ণা-ক্ষোভ মিশ্রিত অভিশাপ।
নির্গত হয়েছে কত বদদোয়ার অবিরত তপ্ত বাষ্প।
দু’টি মৃত্যু সংবাদ যেন মধুর বাণী
এই জাতির আজ ফরজ প্রাপ্য।

সন্তান হারানো মায়ের কান্না
পিতার নির্বাক অর্থবোধক ঘৃণা।
বিকলাঙ্গের নিঃশব্দ অশ্রু জল।
অসহায়ের কপালে অনিশ্চয়তার আল্পনা।
অভিশাপের জপমালা হৃদয়ে বেঁধে
যমের দরগায় করেছে মানত।
দু’টি মৃত্যু সংবাদের অপেক্ষায় এই জাতি
শোকের পরিবর্তে মৃত্য যেন আমোদ।

এই জাতি’র ভাগ্য নিয়ে চলছে জুয়া খেলা
এই জাতিকে নিয়ে চলছে বায়ান্ন তাস।
এ জাতি যেন বলির পাঁঠা
এই জাতি’র রক্ত নিয়ে তারা করছে উল্লাস।
নেই কোনো তাদের আফসোস
নেই কোনো এতোটুকু আক্ষেপ।
ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে এই জাতি
তবুও নেই তাদের ভ্রুক্ষেপ।
তারা মশগুল জুয়া খেলায়
বাজি ধরেছে জাতি’র অস্তিত্ব।
বিশ্ব দরবারে আজ হাসির পাত্র
ভুলুণ্ঠিত এই জাতি’র সতীত্ব।

সামনে জলপ্রপাতের খাড়া শেষ প্রান্ত
ধ্বংসের মুখোমুখি এই জাতির তরী।
বৈঠা দখলের নিয়তে লড়ছে দুই মাঝি।
অবজ্ঞায় ঘুরছে জাতি’র মৃত্যু ঘড়ি।

সুতারং দু’টি মুত্যু যেন এই জাতি’র মুক্তির পয়গাম।
দু’টি মুত্যু’তেই এই জাতি’র শান্তির আবাদ।
তাই তো আজ উদ্গ্রীব এই জাতি
কখন শুনবে দু’টি মুত্যু সংবাদ?

৭৮৭ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
ছোট্ট একটি গ্রহের চারদিকে নক্ষত্রের ভালবাসার আবর্তন...
সর্বমোট পোস্ট: ১৭৭ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৬৬ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৭-২৫ ১২:০৫:৫৬ মিনিটে
banner

১০ টি মন্তব্য

  1. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    আসলে শুনতে খারাপ লাগে উচ্চারন করতে যদিও খারাপ লাগে তবু সবার ই কামনা আমার ধারনা এদের চিরনির্বাসন।

    দেশের সবার মানসিক অবস্থা অসহয়ত্বের বর্ননা নিখূতভাবে ফুটে উঠেছে আপনার কবিতায়।অনেক অসহায় অবস্থায় মানুষ এদের এরকম অভিশাপ দেয়।

    কত বিতৃষ্ণা-ক্ষোভ মিশ্রিত অভিশাপ।
    নির্গত হয়েছে কত বদদোয়ার অবিরত তপ্ত বাষ্প।
    দু’টি মৃত্যু সংবাদ যেন মধুর বাণী
    এই জাতির আজ ফরজ প্রাপ্য।

    সন্তান হারানো মায়ের কান্না
    পিতার নির্বাক অর্থবোধক ঘৃণা।

    সুন্দর কবিতা লেখার জন্য ধন্যবাদ।

  2. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    মৃত্যু সংবাদ শুনতে ভাল লাগে না । সবার স্বাভাবিক মৃত্যুই কাম্য
    স্বজন আত্মীয়রা তাই চায় এবং চাই
    তবে শান্তি চায় জাতি এটাও সত্য । শুধু দোয়া আল্লাহ যেন হেদায়েত করেন তাদের যাদের কারণে দেশ আজ অশান্ত ।

    ভাল লাগল কবিতা

  3. তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল লেগেছে কবিতা।

  4. তৌহিদুল ইসলাম ভুঁইয়া মন্তব্যে বলেছেন:

    সুতারং দু’টি মুত্যু যেন এই জাতি’র মুক্তির পয়গাম।
    দু’টি মুত্যু’তেই এই জাতি’র শান্তির আবাদ।
    তাই তো আজ উদ্গ্রীব এই জাতি
    কখন শুনবে দু’টি মুত্যু সংবাদ?
    ====================== ভাই এক্কেবারে মনের কথা। অনেক ভালো লেগেছে কবিতার ভাষায় ঘৃণা প্রকাশের ভঙ্গি।

  5. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    এ জাতি আর কত রক্ত দিবে? আর কত রক্ত ঝরবে বাংলাদেশের হৃদয় থেকে? কবে মুক্তি পাবে এ দেশ?

  6. আজিম মন্তব্যে বলেছেন:

    কারো মৃত্যু কামনা করে কোন লিখা আমাদের কাম্য হতে পারেনা । তাঁদের মৃত্যু দেশে শান্তি বয়েও আনবেনা । লিখাটি ব্যান্ড করা দরকার কি-না, সেবিষয়ে মাননীয় সম্পাদকের দৃষ্টি আকর্ষন করছি ।

  7. আবদুল্লাহ আল নোমান দোলন মন্তব্যে বলেছেন:

    পাকিস্তানী হানাদারদের মৃত্যু কামনা করেই মুক্তিযোদ্ধারা অস্ত্র হাতে ঝাঁপিয়ে পরেছিল।তাই কারো মৃত্যু কামনা সর্বক্ষেত্রে দোষনীয় নয়।আর লেখালেখির মাধ্যমে তা প্রকাশ করাও দোষনীয় নয় বলে আমি মনে করি।…………………এই দু’জনের ক্ষমতার লোভ আজ দেশটাকে কোন্‌ পরিস্থিতির দিকে নিয়ে গেছে একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে তা আপনার অজ্ঞাত নয়।তাই তাদের মৃত্যু কামনা করে আমি অভিশাপ দিচ্ছি।মাননীয় সম্পাদক,আপনি যদি মনের করেন এই কবিতার মাধ্যমে এই ব্লগের নিয়ম-শৃঙ্খলা ভঙ্গ হচ্ছে তাহলে কবিতাটি বাতিল করে দিতে পারেন।……………ধন্যবাদ

  8. আজিম মন্তব্যে বলেছেন:

    মনে কিছু করবেননা দোলন সাহেব । পাকিস্থানী হানাদারদের মৃত্যু কামনার সাথে আমাদের এই দু’জনের মৃত্যু কামনা তূলনীয় নয় । এই দুটো দলে যে গনতন্ত্রের চর্চা নাই, সেবিষয়ে সংগঠনের অন্য নেতাদেরকে গনতন্ত্রের চর্চা করতে তাঁদেরকে বাধ্য করার জন্য আপনি কবিতা লিখতে পারতেন । নেত্রীদ্বয়ের সামনে সঠিক কথা বলতে যাতে কোন অসুবিধা না হয় এবং তা বললে যাতে কেউ নিগৃহীত না হয়, সে পরিস্থিতি আনার জন্য অন্য নেতাদেরকে তাঁদের উপর চাপ সৃষ্টি করার জন্য কবিতা লিখতে পারতেন । মোট কথা, দু’টি দলেরই মধ্যে গনতন্ত্রায়নের জন্য তাঁদেরকে চাপে রাখা বিষয়ক কবিতা লিখা যেত । কিন্তু তাঁদের মৃত্যু-কামনা! না, এটা ঠিক হয়নি । লিখা-লিখির মাধ্যমে আপনি কারো মৃত্যু কামনা করতে পারেননা ।
    আমার এসমস্ত মন্তব্যের জন্য আপনি যদি কোন কষ্ট পেয়ে থাকেন, সেজন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি ।

  9. আবদুল্লাহ আল নোমান দোলন মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনার কি মনে হয় এরা দুজন কারো পরামর্শ শুনবেন বা কারো কবিতা বা কান্নায় এদের মন নরম হবে?…………এই দেশের মানুষের মনে এদের জন্য এতো ক্ষোভ জমে আছে যা অভিশাপ আকারে আমার কবিতায় তুলে ধরেছি।মৃত্যু কামনা ঠিক কি ঠিক নয় আমি সেই বিতর্কে যাবো না।কিন্তু এটাই বাস্তবতা।এটাই বাস্তব উপলব্ধি।আমি শুধু তা কবিতার আকারে তুলে ধরেছি।………না,আপনার কথায় আমি কষ্ট পাইনি।আপনি আপনার মত প্রকাশ করেছেন যেটা আপনার অধিকার।ধন্যবাদ।

  10. এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনার লেখা পড়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা আসবে আশা করি । শুভ কামনা ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top