Today 23 Apr 2021
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

দেহ অর্ঘ

লিখেছেন: তাপসকিরণ রায় | তারিখ: ২৫/১১/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 986বার পড়া হয়েছে।

স্মৃতির দরজা খুলে বাগানের ফুল দেখো

ঝড়ো হওয়ার তছনছ

প্রজাপতির ছিন্ন পাখায় তবু তোমার পরিচয়টুকু…

 

ওই যে নৈশ ভোজের উদগ্র প্রসাদ

ছেঁকে ধরা মাছির স্তূপে ভাসমান কিলবিল অণুরণ,

শুক্রাণু ফোটেনি দেখো,ভোর আকাশের

চোখ ফোটা হল না তো আর

সায়াহ্নের ঝরা ফুল কৈ ?

আসনের বাসী পুষ্প কুড়িয়ে

তবে কি দিয়ে সজ্জা তোমার দেহ অর্ঘ !

১,০৮২ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
নাম :তাপসকিরণ রায়। পিতার নাম : স্বর্গীয় শৈলেশ চন্দ্র রায়। জন্ম স্থান: ঢাকা , বাংলা দেশ। জন্ম তারিখ:১৫ই এপ্রিল,১৯৫০. অর্থশাস্ত্রে এম.এ.ও বি.এড. পাস করি। বর্তমানে বিভিন্ন পত্র পত্রিকাতে নিয়মিত লিখছি। কোলকাতা থেকে আমার প্রকাশিত বইগুলির নামঃ (১) চৈত্রের নগ্নতায় বাঁশির আলাপ (কাব্যগ্রন্থ) (২) তবু বগলে তোমার বুনো ঘ্রাণ (কাব্যগ্রন্থ) (৩) গোপাল ও অন্য গোপালেরা (শিশু ও কিশোর গল্প সঙ্কলন) (৪) রাতের ভূত ও ভূতুড়ে গল্প (ভৌতিক গল্প সঙ্কলন) (৫) গুলাবী তার নাম (গল্প সঙ্কলন)
সর্বমোট পোস্ট: ১১২ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ১৬৬৯ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৮-১১ ১৫:৪৩:৫৪ মিনিটে
banner

২০ টি মন্তব্য

  1. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল লাগছে। ভাল থাকুন।

  2. তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

    ধন্যবাদ।

  3. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনার লেখা তো ভাল।তবে আমার একটা রিকোয়েষ্ট আপনাকে আপনার লেখাগুলিকে আরও সহজ ভাষায় সহজ শব্দে কি লেখা যায়?আপনার শব্দ গুলিকে কয়েকবার পড়তে হয় সঠিক অর্থ অনুধাবনের জন্য। আপনার লেখায় নিপুনতা গতিময়তা বা ধারাবাহিকতা সবই আছে। শুধু লেখাটাকে যদি আরও সহজ করতে পারেন আরও প্রানবন্ত হবে। বন্কিম বিভূতিভূষন সবাই অসাধারন লেখক সন্দেহ নাই।কিন্তু তাদের লেখার চেয়ে শরৎ চন্দ্র রবীন্দ্রনাথের লেখাই বেশী আমরা পড়ি বা পছন্দ করি।খুব বেশী ভাষার প্রয়োগ বা অলংকরন এর চেয়ে সাদামাটা সহজ প্রান্জল ভাষা সাধারনের কাছে বেশী আদরনীয়।

    • তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

      ধন্যবাদ আপনাকে।এতা আর সম্ভব নয়।লেখার একটা ছাপ পড়ে গেছে।চেষ্টা করলেও আর পুরান লেখায় ফিরে আসা অসম্ভব নয়।আধুনিক কবিতার ধাঁচ ত এমনি–এর চেও দুর্বোধ্য কবিতা অত্যাধুনিক হয়েছে–নতুন কবিতার ধাঁচে আমি লিখছি।এ ধারাও অনেকটা পুরনো হয়ে এসেছে।এখনকার নামি দামি কবিতা পত্রিকা কৌরব দেখেছেন কি?–তার কবিতা ত সবকটা বড় দুর্বোধ্য মনে হবে।এ লেখা ভাব প্রধান থাকে কিছু তার ধরা যায়।এখানে ভাল লাগা বড় কথা। অবশ্য আমার লেখা তাতেও প্রকাশিত হয়।মাঝে মাঝে চেষ্টা করি সহজতর লিখতে।

  4. এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    পাঁকা হাতের লেখা পাঁকা হওয়ারই কথা । ভাল লাগল কবিতাটি । ভাল থাকুন ।

  5. এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

    সুন্দর , সাবলীল গতিময়
    যেন নুপুর পায়ে ঝর্ণার পথ চলা

    শেষে দু’ লাইনে কেন জানি একটু
    বুঝতে সমাস্যা হচ্ছে, – মনে হয়
    আমারই অক্ষমতা।

    অনেক ভাল লাগা।

    • তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

      সব লাইন বুঝবার কি খুব প্রয়োজন আছে? আধুনিক কবিতার ভাব ধারা ধরা,না ধরার মাঝে থাকে।ভাল লাগাই বড় কথা। তবে অর্থ তো প্রত্যেক শব্দই বহন করে।ধন্যবাদ।

  6. সাঈদ চৌধুরী মন্তব্যে বলেছেন:

    ভালো লিখেছেন । শাব্দিক ছন্দে অর্থবহতার পরিস্ফুটন । দেহ অর্ঘের সজ্জা বিন্যাস ভালো লাগলো । ধণ্যবাদ কবিকে ।

  7. আবদুল্লাহ আল নোমান দোলন মন্তব্যে বলেছেন:

    কবিতাটি পড়ে অলস মস্তিষ্ক সচল হতে বাধ্য হল।আমার কাছে বেশ ভালো লেগেছে।
    “স্মৃতির দরজা খুলে বাগানের ফুল দেখো

    ঝড়ো হওয়ার তছনছ

    প্রজাপতির ছিন্ন পাখায় তবু তোমার পরিচয়টুকু”………বিশেষ করে এই লাইনগুলো মন ভালো দাগ কেটেছে।

  8. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    খুব সুন্দর কঠিন হলেও

  9. তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাবটুকু ধরে নেওয়াই তো বুঝে নেওয়া।আপনার পক্ষে তা অসুবিধার নয় জানি।ধন্যবাদ।

  10. মৌনী রোম্মান মন্তব্যে বলেছেন:

    এক কথায় চমত্কার লেগেছে । কবিতায় শব্দ আর ভাবনার লুকোচুরি খেলা না থাকলে পড়ে আনন্দ পাই না । লুকিয়ে থাকা অর্থটা নিজের মতোন করে খুঁজে পাওয়াটাই আমার কবিতা পড়ার উদ্দেশ্য । এই কবিতায়ও তা পেয়েছি

  11. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    সুন্দর হইছে ।

  12. সহিদুল ইসলাম মন্তব্যে বলেছেন:

    আমার মাথায় প্যাঁচ লেগে গেছে, বুঝার অনেক চেষ্টা করেছি, বুঝিনি।

  13. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    মন মুগ্ধকর লিখনী মুগ্ধ হলেম
    চমৎকার
    খুব খ,,,,ব ভাল হয়েছে কবি
    ভাল লাগল
    শুভ সকাল

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top