Today 30 Oct 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

নরক কুন্ঠলী অথবা জন্মদন্ড ।

লিখেছেন: নিঃশব্দ নাগরিক | তারিখ: ২১/০৪/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 870বার পড়া হয়েছে।

মানুষকে আঁতেল হতে গেলে সরকারী অফিসের বিকল্প নেই । মানব জগতের সকল জ্ঞান গরিমা ঐ এক জায়গায় নস্যি । উনাদের জ্ঞান তরিকায় জগত বিভ্রম । আপনি জগতের তুচ্ছ্ব তাচ্ছিল্য হয়ে অতি মানবীয় কর্ম বীরদের উচ্চ মার্গীয় বাক্য বয়নে নিজস্ব বক্তব্য বুঝাতে যাবেন তবে’তো আর রক্ষে নেই । তারচেয়ে যাহা বুঝায় তাই বুঝুন । অসীম ধৈর্য্য নিয়ে পরকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করুন । না হয় ডান বাম খুঁজুন ।

 

আজ গিয়েছিলাম ব্যানবেইস (বেসরকারী শিক্ষকদের অবসর ও কল্যান ভাতা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান) অফিসে । এর আগেও গিয়েছিলাম , কিছু কাগজপত্র জমা দিব বলে । কেননা বাবা জগৎ সাঙ্গ করে যে স্বপ্ন ব্যানবেইস অফিসে রেখে গেছেন তার একটা শ্রাদ্ধ দিব বলে । নানান কাগজপত্র ঘেঁটেঘুটে নানান এূটি বিচ্যূতিতে আমার ইত্যকার অবস্হা একেবারে লেজগোবরে । তাই সেবার ফিরে এলাম । এবার কাগজপত্র ঠিক আছে কিন্তু এই বস্তু নাকি জমা নেওয়া যাবে না । আমি বললাম আপনার স্যার’তো আমাকে এভাবেই দরখাস্ত করতে পরামর্শ দিলেন । জবাব এলো, তবে স্যারের অনুমতি নিয়ে আসেন । গেলাম স্যারের রুমে , স্যার (সদস্য সচিব) এক কথায় বলে তার পিএস এর কাছে জমা দিতে । গেলাম পিএস এর কাছে । পিএস এর নানান হম্বিতম্বি । এটা এখানে সেখানে, সেখানে না ওখানে । গেলাম ওখানের ১০৬ নম্বর কক্ষে । ১০৬ এ এ মাল কিছুতেই গছানো গেলো না । আবার যেতো হলো মহামান্য অডিট স্যারের রুমে । অডিট স্যার কিছুতেই এই অপাপ বস্তু গ্রহন করবেন না । বললাম স্যার’তো বললেন গ্রহন করার জন্য । উওরে আমার’তো বটেই স্যারের জ্ঞান নিয়েই টানাটানি শুরু করে দিলেন । স্যার নাকি না বুঝেই বলে দিয়েছেন । বেচারা স্যার কেন যে না বুঝে স্যার হতে গেলেন আর এই ব্যাটা কেন’ ই বা অত বুঝে স্যারের অধীনে পড়ে রইলেন এই আফসোস শেষ না হতেই পাশের অতি করিৎকর্মা ব্যক্তিবর্গের প্রশ্নবানে আমার একবারে নাজেহাল অবস্হা । বিজ্ঞলোকের বয়ানে মেজাজ একেবারে কুরুক্ষেত্র । কিন্তু উপায় নেই । তাই দাঁত খিঁচে পড়ে রইলাম । আর একজন’তো আমার চাকুরী টাকুরী নিয়েই সন্দিহান হয়ে পড়লেন । একবার চেয়েছিলাম ভদ্রলোককে জিজ্ঞেস করি ভাই আপনার পদবী কি ? বেতনস্কেল কত ? পড়ে ভাবলাম নিজের অমঙ্গল টেনে আনা অল্পস্বল্প বোকামী না । বড় ধরনের বোকামী । আমার পক্ষে কিঞ্চিত বোকা হওয়া সাজে, বলদ হওয়া সাজে না ।

 

আমার নানান পীড়াপীড়িতে আমার দরখাস্তখানা পার্শ্ববর্তী একজন রেখে দিলেও সর্তক করে দিলেন এই দরখাস্ত নাকি হারিয়ে গেলে তাদের কিছুই করার থাকবে না । আমিও সর্তক হয়ে ফিরে এলাম । পাশাপাশি বিধাতাকে বললাম বিধাতা বাংলাদেশেই যদি পাঠাবা তবে নরকের ভয় দেখানোর কি আবশ্যকতা ছিল । নিত্য কুন্ঠলীতে থেকে আগুনকে ভয় একটু কি মস্করার পর্যায়ে চলে যায় না ।

দরখাস্ত খানার ভবিষৎত চিন্তায় আমি একটু হতাশাগ্রস্ত । অবশ্য ধৈর্য্য একটি বড় গুন । যদিও ছোটখাটো গুনেরই ব্যাপক ঘাটতি আমার ।

 

 

…………নিঃশব্দ নাগরিক ।

৯০৭ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
an impossible one with the maximum possibility to be a possible one.
সর্বমোট পোস্ট: ১২৬ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৩১৬ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৭-৩১ ১৭:৪৬:৩৭ মিনিটে
banner

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top