Today 17 Oct 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

নানা দেশের ঐতিহ্যবাহী নাস্তা

লিখেছেন: মোঃ অলিউর রহমান | তারিখ: ২২/০৪/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 700বার পড়া হয়েছে।

জাতীয় নাস্তা সপ্তাহ পালন হলে কেমন হতো বলুন তো? মজার সব খাবার খেয়ে সপ্তাহ পার! খাবার দাবারে যাদের অনীহা তাদের কথা ছেড়ে দিলাম, কিন্তু রসনা বিলাসী কেউ এমন কথা শুনলে লাফিয়ে ওঠবেন সহজেই। তারপরও, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সেরা খাবারটি দিয়ে নাস্তা সপ্তাহ সাজালে আর কথাই থাকে না। সুন্দরভাবে আপনার খাদ্য সপ্তাহ সাজাতে জেনে নেয়া যাক বিশ্বের নানা দেশের ঐতিহ্যবাহী নাস্তা সম্বন্ধে।
2
* জাপানিদের সকালের সবচেয়ে উত্তম নাস্তার মধ্যে বিশেষ ধরনের স্যুপ আর সাদা ভাতের প্রচলন বেশি। সঙ্গে থাকতে পারে সয়াবড়ি, সামুদ্রিক শৈবাল জাতীয় খাবার এবং একটি ডিম পোজ।

* দক্ষিণ ভারতের হাইদ্রাবাদের ঐতিহ্যবাহী খাবার হিসেবে একটি সুস্বাদু পিঠা প্রচলিত আছে। পিঠাটি মুলত আলু পুরে রোল আকারের। এটা পরিবেশন করা হয় চাটনি এবং সাম্বা (বিশেষ ধরনের সবজি রান্না) দিয়ে।

* ইসরাইলের খাবার স্টাইলে আপনি উদ্বুদ্ধ হবেন সহজেই। তাদের ঐতিহ্যবাহী এ খাবার দেশর সব হোটেল এবং রেস্টুরেন্ট একযোগে প্রচলিত। সাকসোকা নামের একটি খাবার (টমেটো সস দিয়ে বিশেষভাবে ডিম রান্না), আগুনে ঝলসানো মাছ, পনির এবং রান্না তাজা সবজি খেয়ে থাকেন।

* ইতালির একটি দিন কাটে না কফি ছাড়া। তাছাড়া হোটেল রেস্টুরেন্ট বা বারে বসে কেউ সকালের নাস্তাটা সেরে নিতে চাইলে পাস্তা, রুটি, পনির, এবং ফল খেতে হবে।

* যুক্তরাজ্যের সকালের নাস্তায় প্রধানত লবণযুক্ত মাংস, ডিম, সস, মাসরুম, বিন, টমেটো, ব্লাক পুডিং, টোস্ট এবং এককাপ গরম চা থাকতে পারে।

* সেনেগালের মানুষের সকালটা শুরু হয় এককাপ তবার (এক প্রকার কফি) সঙ্গে। কিছু ফল, পেস্ট্রি, পেডিস খেয়ে তারা সকালের নাস্তাটা সমৃদ্ধ করেন।

* ইউরোপীও কিছু দেশে সকালের নাস্তায় ফল, রুটি, পনির এবং মজার এককাপ কফি থাকা চায়-ই।

নাস্তার ভিন্নতা আনতে খেতে পারেন একেকদিন একেক খাবার। এখন আপনিই ঠিক করুন আপনার সকালের নাস্তায় কোন খাবারটি থাকবে।

৭০৬ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ৩২ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২০ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৫-১৯ ০৭:৪০:২১ মিনিটে
banner

৩ টি মন্তব্য

  1. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    বেশ সুন্দর তথ্যসমৃদ্ধ লেখা।
    ভাল লাগল। ধন্যবাদ –

  2. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    তথ্যসমুদ্ধ লিখা
    দারুন অভিজ্ঞতা
    দারুন ভাল লো পড়ে দেখে
    শুভ কামনা

  3. টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

    নাস্তা সম্পর্কিত তথ্যের সমাহারে জানা হল অনেক কিছু ।
    ধন্যবাদ আপনাকে ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top