Today 19 Nov 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

পর্দা

লিখেছেন: আমির ইশতিয়াক | তারিখ: ১৫/১১/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 863বার পড়া হয়েছে।

পর্দা করা ফরয
জেনে রেখ বোন,
পর্দা হল নারীর
পরশ পাওয়া ধন।

পর্দাতে আছে ইজ্জত
আরো আছে সম্মান.
বেপর্দা চলাফেরা
পুরুষে করে ধর্ষণ।

তাই আমি বলি বোন
যদি সম্মান চাও,
পর্দা করে তোমরা
যেথায় খুশি যাও।

৯৪২ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
আমির ইশতিয়াক ১৯৮০ সালের ৩১ অক্টোবর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর থানার ধরাভাঙ্গা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা শরীফ হোসেন এবং মা আনোয়ারা বেগম এর বড় সন্তান তিনি। স্ত্রী ইয়াছমিন আমির। এক সন্তান আফরিন সুলতানা আনিকা। তিনি প্রাথমিক শিক্ষা শুরু করেন মায়ের কাছ থেকে। মা-ই তার প্রথম পাঠশালা। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা শুরু করেন মাদ্রাসা থেকে আর শেষ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ে। তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে নরসিংদী সরকারি কলেজ থেকে সমাজবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ছাত্রজীবন থেকেই লেখালেখি শুরু করেন। তিনি লেখালেখির প্রেরণা পেয়েছেন বই পড়ে। তিনি গল্প লিখতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করলেও সাহিত্যের সবগুলো শাখায় তাঁর বিচরণ লক্ষ্য করা যায়। তাঁর বেশ কয়েকটি প্রকাশিত গ্রন্থ রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য উপন্যাস হলো- এ জীবন শুধু তোমার জন্য ও প্রাণের প্রিয়তমা। তাছাড়া বেশ কিছু সম্মিলিত সংকলনেও তাঁর গল্প ছাপা হয়েছে। তিনি নিয়মিতভাবে বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকায় গল্প, কবিতা, ছড়া ও কলাম লিখে যাচ্ছেন। এছাড়া বিভিন্ন ব্লগে নিজের লেখা শেয়ার করছেন। তিনি লেখালেখি করে বেশ কয়েটি পুরস্কারও পেয়েছেন। তিনি প্রথমে আমির হোসেন নামে লিখতেন। বর্তমানে আমির ইশতিয়াক নামে লিখছেন। বর্তমানে তিনি নরসিংদীতে ব্যবসা করছেন। তাঁর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা একজন সফল লেখক হওয়া।
সর্বমোট পোস্ট: ২৪১ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৪৭০৯ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৬-০৫ ০৭:৪৪:৩৯ মিনিটে
Visit আমির ইশতিয়াক Website.
banner

১৭ টি মন্তব্য

  1. রোদের ছায়া মন্তব্যে বলেছেন:

    ছড়ায় সুন্দর একটি ধর্মীয় বিষয় বেশ ভালো লাগলো।

  2. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    পর্দাতে আছে ইজ্জত
    আরো আছে সম্মান.
    বেপর্দা চলাফেরা
    পুরুষে করে ধর্ষণ।
    সম্পূর্ণ একমত।

  3. এম, এ, কাশেম মন্তব্যে বলেছেন:

    সুন্দর একটা বিষয় ছড়াতে তুলে এনেছেন
    দেখে ভাল লাগলো।
    অনেক অনেক ভাল লাগা।

  4. তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল লেগেছে আপনার কবিতা।

  5. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনার এ কথা ঠিক পর্দায় নারীর সন্মান আব্রু বজায় থাকে। তবে ধর্ষনের প্রসঙ্গে আমার দ্বিমত আছে। যে ব্যাক্তি ধর্ষন করে সে ম্যানিয়াক একজন ক্রিমিনাল সে কি আর পর্দার মহাত্ম বুঝে? সে পারিবারিক সামাজিক অবক্ষয়ের ফলে এ ধরনের ঘৃন্যকাজ করে।তার কাছে পর্দা বেপর্দা সব নারী সন্মানের ।পর্দা হচ্ছে ধর্মীয় রীতি আর ধর্ষন সামাজিক অনাচার।দুইটা জিনিস একভাবে সম্পর্কীভুত করা উচিতনা।
    তবে আমীর ভাই ছন্দময় কবিতাটি পড়তে ভাল লেগেছে।

    • আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

      আমি আপনার সাথে একম তবে যারা পর্দা করে চলে তারা ঐসব ধর্ষকদের কাছ থেকে কিছুটা হলেও রক্ষা পায়। ধন্যবাদ

    • অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

      আরজু’র সাথে সহমত পোষন করছি।
      পর্দা করলেই যে ধর্ষনের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে তা ঠিক নয়।
      ধর্ষন এক সামাজিক অবক্ষয় – মেনিয়া বিশেষ। ধর্ষক পর্দা বেপর্দা বোঝে না।
      কবিতা সুন্দর হয়েছে। কবিকে শুভেচ্ছা।

  6. আরজু মন্তব্যে বলেছেন:

    সরি অসন্মানের লিখতে গিয়ে অ বাদ পড়ে ষাওয়ায় উদ্ভট মিনিংস চলে আসল লাইনটাতে।

  7. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    এমনটা হতেই পারে।

  8. ওয়াহিদ উদ্দিন মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল দিক নির্দেশনা।

  9. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    ধন্যবাদ ভাই।

  10. সহিদুল ইসলাম মন্তব্যে বলেছেন:

    পুরুষেরও তো পরদা আছে। শুধু নারিকে বলা কি থিক?

  11. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    পর্দার অবস্থা বর্তমানে খারাপ অবস্থা

    লেখা ভাল লাগল

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top