Today 24 Jan 2021
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

ফেসবুক, আমি এবং একজন প্রিন্সেস আদিয়াতঃ দ্বিতীয় পর্ব

লিখেছেন: হাসান ইমতি | তারিখ: ১২/০২/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 849বার পড়া হয়েছে।

[পূর্বসুত্রঃ 

আমিঃ হাই প্রিন্সেস, কেমন আছেন ? 
……………………………………… 

প্রিন্সেসঃ Hello There, Ke Apni ? 
………………………………………………… 

…………………………………………………… 

প্রিন্সেসঃ আপনার ম্যানেজার আছে ? আপনি কি করেন ? 

আমিঃ আমার ম্যানেজারের নাম মিঃ ল্যাপি । যখন মন যা চায় 
তাই করি, যেমন এখন একটা প্রোজেক্ট শুরু করেছি, 
আকাশের সব তারা, যেগুলো খালি চোখে দেখা যায়, 
সব গুনে ফেলব । তারপর শুরু করবো ঢাকা শহরের 
সবগুলো দাঁড়কাক গোনার কাজ । এরপর ফকির… 
( আমি কথার ফাঁদ পাতা অব্যাহত রাখি, হেঁয়ালিপূর্ণ ফ্লার্ট 
চালাতে থাকি, আমি উনাকে ঝুলিয়ে রাখি, ধরা দেই না।)] 

ফেসবুক কথনঃ পর্ব ০৩ ফেসবুক ও নতুন সম্পর্ক 

দ্বিতীয় কিস্তিঃ ব্যাটিং অব্যহত 

প্রিন্সেসঃ হুম… আবোল তাবোল …পুরনো হয়ে গেছে এসব । 
নতুন কিছু বলেন । মিঃ ল্যাপি ? উনি কি ফরেনার ? 
আমি আসলে আপনার পেশার কথা জানতে চাচ্ছিলাম । 
( উনি বিভ্রান্ত হন না, আমার সুকৌশলে পাতা ফাঁদে পা 
দেন না, আমার হাড়ির খবর নেয়া অব্যাহত রাখেন ।) 

আমিঃ মিঃ ল্যাপি হলেন আমার ল্যাপটপ, উনি আমার ম্যানেজার, 
বন্ধু, সহকারী, গার্লফ্রেন্ড সবকিছু । আর পেশার কথা বললে 
বলতে হয় আপাতত কেরানী হবার ট্রেনিং নিচ্ছি একটা সিএ 
ফার্মে । বাংলাদেশে ওরা এটাকে একটু বাড়িয়ে বলিয়ে “সিএ 
আর্টিকেল স্টুডেন্ট” বলে কিন্তু ইন্ডিয়ানরা সত্যি কথা বলে 
দেয়, ওরা বলে “সিএ আর্টিকেল ক্লার্ক” । 
(একটু ভাবও নেয়া হল, সাথে আমার যে গার্লফ্রেন্ড নেই 
সেটাও সুকৌশলে জানিয়ে দেয়া হল) 

প্রিন্সেসঃ হুম… ল্যাপি গার্লফ্রেন্ড, ল্যাপি আবার কারো গার্লফ্রেন্ড 
হয় নাকি? মানে কি গার্লফ্রেন্ড নাই ? সিএ তো ভালো । 
এখন না হলেও ভবিষ্যৎ ভালো । 

আমিঃ হয় হয়, আমার ল্যাপিই তো আমার গার্লফ্রেন্ড, তবে 
প্রেমিকা নাই, এখন তো প্রায় বিনা পয়সায় কামলা খাটছি, 
ভবিষ্যৎ জানি না । এখানে সিএ তো পাসই করায় না । 
স্টুডেন্টদের দিয়ে কামলা খাটিয়ে নেয় । হাড়ভাঙ্গা খাটুনি, 
সন্মান নাই, পড়া শোনার সময় পাওয়া যায় না, তারপর 
আবার ইয়া বিশাল সিলেবাস । 
( আমি নিজেকে নিপীড়িত দেখিয়ে তার সহানুভূতি আকর্ষণের 
চেষ্টা করি । অন্তত এতে সে আমার সাথে সহজ হয়ে উঠবে 
ফলে সে আমাকে আর এড়াতে চাইবে না, আমি তখন তাকে 
আমার ইচ্ছামত খেলতে বাধ্য করার সেই সুযোগটা পেয়ে যাবো। ) 

প্রিন্সেসঃ কেউ কেউ তো পাস করছে, চেষ্টা করলে নিশ্চয়ই আপনিও 
পারবেন, প্রেমিকা নাই মানে কি ? আগে ছিল এখন নাই ? 
(আমার জন্য সহানুভূতি জানায়, তার মুডটা কমে আসছে, 
সে আমার হাড়ির খবর নেয়া অব্যাহত রাখে । ) 

আমিঃ প্রেম জিনিসটা আমার কাছে কেমন গোলমেলে ঠেকে, 
তাছাড়া তেমন কাউকে মনে ধরেনি । 
( আমি ধরা দেই না, সুকৌশলে উত্তর দেই । ) 

প্রিন্সেসঃ কমন কথা, যারা প্রেম করতে পারে না তারা এইসব কথা 
বলে । হা হা হা …… 
( কথা বের করার জন্য সে মানসিক আগ্রাসন চালায় । ) 

আমিঃ হুম …আপনার মনে হচ্ছে প্রেম বিষয়ে অনেক অভিজ্ঞতা, কয়টা 
প্রেম করেছেন, আপনার বর্তমান সৌভাগ্যবান লাভারটি কে ? 
(আমি তার মানসিক আগ্রাসন চেষ্টা ঠেকিয়ে পাল্টা আক্রমণে 
যাই। তার হাড়ির খবর বের করার প্রয়াস নেই । ) 

প্রিন্সেসঃ এক কথা থেকেই এতো কিছু বুঝে গেলেন, সব কিছু কি 
নিজের জীবন থেকে শিখতে হবে, চারপাশে দেখেও তো 
অনেক কিছু শেখা যায় । আর সব ছেলেরাই তো প্রায় একই 
রকম । এমন কাউকে এখনো চোখে পড়েনি যাকে দেখে মনে 
হয়েছে এই সেই, মিঃ রাইট, দ্যা কিলার … 
( সে তার ব্যাটিং অব্যহত রাখে, আমাকে কমন ছেলেদের 
দলে ফেলে দিয়ে রিভার সুইপ করে । ) 

আমিঃ হুম… “সব ছেলেরাই তো প্রায় একই রকম” অনেক ছেলেদের 
সাথে মিশেছেন মনে হয় ? ভালো ভালো । 
( বল বাউন্ডারী ক্রস করার আগেই আমি সুনিপুণ হাতে আটকে 
দেই, পরের বলে কাউন্টার আট্যাকে যাই, তাকে একটা ফুল লেন্থ 
ইয়র্কার ডেলিভারী দেই । ) 

প্রিন্সেসঃ মিশতে হয় নাকি, ছেলেরা তো খোলা বইয়ের মতো,দেখলেই 
তো বোঝা যায়, মুখে যাই বলুক প্রায় ছেলেরাই তো একই 
চিন্তাধারার, শুধু প্রেম, প্রেম আর প্রেম । দুনিয়ায় যেন আর 
কিছু নাই, যত্তসব বোরিং ব্যপার, ডিসগাস্টিং …… 
( আমার ফুল লেন্থ ইয়র্কার ডেলিভারীকে পাড়ার বোলিং বানিয়ে 
উনি সজোরে স্টেট ড্রাইভ করে হাঁকালেন । ) 

আমিঃ ইস আপনার জন্য ভারী দুঃখ হচ্ছে । আপনি এতদিন পর আমার 
দেখা পেলেন …… মিঃ রাইট, দ্যা কিলার … 
( স্লো মোশন থেকে আমি আবার ফুল ফর্ম ফ্লার্টে ফিরে আসি । 
আমি লং লেগ থেকে উনার মারা বাউন্ডারিটা আটকে দেই। 
পরের বলে একটি দুসরা ডেলিভারী দেই। ) 

প্রিন্সেসঃ হুম… তাই নাকি… কিছু তো ফিল করছি না, কিভাবে বুঝবো ? 
(উনি ডিফেন্সিভ খেলেন । উনি আবার উপভোগ করতে শুরু করেছেন । ) 


বিদ্রঃ  এটি মূলত ফেসবুক নির্ভর নতুন ঘরানার একটি গদ্য কবিতা ।  তালমিল বা ছন্দের ভেতর নয়, কাব্যিকতা খুঁজতে বলবো ভাষার ব্যবহার, উত্তর প্রতি উত্তর ও স্বগতোক্তির ছন্দের ভেতর। কেমন লাগলো জানাতে ভুলবেন না যেন । ধন্যবাদ । 

                                                           (চলমান)

৮৪৩ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
আমি হাসান ইমতি, জন্মস্থান ফরিদপুর, বর্তমান বাসস্থান উত্তরা, ঢাকা । আমি মূলতঃ অনলাইন ভিত্তিক প্ল্যাটফর্মে লেখালেখি করে থাকি । এ ধারায় কবিতা ভিত্তিক সাইটের ভেতর রয়েছে বাংলা কবিতা, কবিতা ক্লাব, কবিতা ইবারয়ারি, গল্প কবিতা, বাংলার কবিতা ইত্যাদি এবং ব্লগের ভেতর সামহোয়্যার ইন ব্লগ, চলন্তিকা, ইস্টিশন, নক্ষত্র, আমার ব্লগ, চতুর্মাত্রিক ইত্যাদি। ইতিমধ্যে ই-ম্যাগের ভেতর অন্যনিষাদ, কালিমাটি, মিলন সাগর, জলভূমি, প্রতিচ্ছবি, বাঙ্গালিয়ানা সহ আরও কিছু ব্লগজিন ও বাজিতপুর প্রতিদিন, মিডিয়াবাজ, নব দিবাকর, তোমার আমার, বাংলা নিউজ ২৪, নারায়ণগঞ্জ টাইমস সহ আরও কিছু অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে আমার লেখা । প্রিন্ট মিডিয়ার ভেতর গত ২০১৫ ইং বইমেলায় সাহিত্যকথা, অন্যপ্রকাশ, তারুন্য সহ আরও কয়েকটি সংকলনে আমার লেখা প্রকাশিত হয়েছে । এর বাইরে ভারতের দিগন্ত পত্রিকা, যুগসাগ্নিক, ঢাকার লেখচিত্র প্রকাশনী, বাংলার কবিতাপত্র, অতসী পত্রিকাসহ আরও কিছু প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হয়েছে আমার লেখা । অনলাইনে আয়োজিত আটকাহন সাহিত্য পুরস্কার, গল্পলেখা সাহিত্য পুরস্কার ও সৃষ্টিসুখের উল্লাসে সাহিত্য পুরস্কার সহ আরও কিছু সাহিত্য পুরস্কার আমার লেখাকে সন্মানিত করেছে । ব্যক্তি জীবনে আমি কমনওয়েলথ এম বি এ শেষ করে সি এ করার পাশাপাসি একটি উৎপাদন মুখী প্রতিষ্ঠানে নিরীক্ষা বিভাগে কর্মরত আছি । গুগলে অভ্র দিয়ে বাংলায় "হাসান ইমতি" লিখে সার্চ দিলে আমার সম্পর্কে আরও জানা এবং আমার লেখার একাংশ পড়া যাবে ।
সর্বমোট পোস্ট: ১৫৪ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৮০৮ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৪-১২-১৪ ১১:৫৬:২৪ মিনিটে
Visit হাসান ইমতি Website.
banner

৩ টি মন্তব্য

  1. হাসান ইমতি মন্তব্যে বলেছেন:

    এটি মূলত ফেসবুক নির্ভর নতুন ঘরানার একটি গদ্য কবিতা । তালমিল বা ছন্দের ভেতর নয়, কাব্যিকতা খুঁজতে বলবো ভাষার ব্যবহার, উত্তর প্রতি উত্তর ও স্বগতোক্তির ছন্দের ভেতর। কেমন লাগলো জানাতে ভুলবেন না যেন । ধন্যবাদ ।

  2. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    ভালই লাগতেছে। লিখে যান

  3. হাসান ইমতি মন্তব্যে বলেছেন:

    পড়া ও মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ, আরেকটু বিস্তারিত মন্তব্য আশা করছি …

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top