Today 14 Nov 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

মিসড কল প্রতারণার ভয়ংকর কিছু তথ্য!

লিখেছেন: আনোয়ার জাহান ঐরি | তারিখ: ২৬/০৮/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 592বার পড়া হয়েছে।

গত পরশু অচেনা বিদেশি নম্বর থেকে  আমার কাছে ফোন আসে। ফোন রিসিভ করলে অপর প্রান্ত থেকে কোনো সাড়া শব্দ  পাই নাই।  কয়েক সেকেন্ড পার হওয়ার পর ফোন কলটি কেটে যায়। ফোন নম্বরটি ছিল +২৪৩৮৯৬২৩৪০০৪। একই ভাবে +২৪৩৮৯৬২৩৪০০৫ নম্বর থেকে  পরদিন  আরেকটি ফোন আসে।

 

আমি ব্যাপারটি ভুলেই গিয়েছিলাম আর গুরুত্ব দেইনি। কারন আমার পরিচিত কেউ বিদেশে থাকে না। হয়ত কেউ ভুলে ফোন করেছিল। আজ এই ফোন নম্বরগুলোর প্রতারণার ভয়ংকর কিছু তথ্য জানতে পারলাম। বিদেশি কিছু চক্র এই সব ফোনের মাধ্যমে হাতিয়ে নিচ্ছে মোবাইল ফোন গ্রাহকদের টাকা। এই ফোনগুলো ব্যবহার হয় কেবল টাকা-পয়সা হাতিয়ে নেওয়ার জন্য।

 

অদ্ভুত এ নম্বর থেকে ফোন আসার পর যদি আপনি তাতে ফিরতি ফোন করেন তাহলেই সাথে সাথে আপনার মোবাইল থেকে ব্যালেন্স কেটে নেওয়া হবে। আপনার মোবাইল ফোনের অ্যাকাউন্টে থাকা টাকা চলে যাবে ওই জালিয়াত চক্রের কাছে অনায়াসেই।

 

এই চক্রগুলো টাকা হাতিয়ে নিতে সহজ কিছু কৌশল ব্যবহার করে ফোন করতে উদ্বুদ্ধ করে। যেমন এই নম্বার থেকে ফোন আসার পর যদি ফোনটি আপনি রিসিভ করতে না পারেন তাহলে স্বভাবতই তা মিসড কল তালিকায় উঠবে। পরে কৌতূহলে আপনি স্বাভাবিকভাবেই ফোন করবেন সেই নম্বরে। আর এতে করে মাত্র কয়েক সেকেন্ডেই উধাও হয়ে যাবে আপনার মোবাইল সবটুকু ব্যালেন্স।

 

ইন্টারনেট থেকে জানলাম +২৪৩ কোডের নম্বর দিয়ে আসা ফোন নম্বরটি মূলত কঙ্গোর একটি কোড নম্বর। সেখান থেকেই আসে এই ফোন কলটি। এই কলকে ‘স্ক্যামিং কল’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়। ইন্টারনেট দুনিয়াও এ ধরনের আরো স্ক্যামিং পদ্ধতি ছড়িয়ে রয়েছে।

 

বর্তমানে চেক প্রজাতন্ত্রে এ ধরনের ফোন স্ক্যামিং বেড়ে গেছে আশঙ্কাজনক হারে। সে দেশে +২৪৩ দিয়ে শুরু হওয়া নম্বর থেকে কল আসছে গ্রাহকদের কাছে। তারপর গ্রাহকরা সে সব নম্বরে কল ব্যাক করার পরই টের পাচ্ছেন যে, অ্যাকাউন্ট শূন্য হয়ে গেছে!

 

এ ধরনের ফোন কল এখন বাংলাদেশেও নিয়মিত আসছে। আর বিষয়টি বেশির ভাগ মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের অজানা থাকায় তারা ভুল করেই ফাঁদে পা দিয়ে হারাচ্ছেন মোবাইলের সব টাকা। আশা করি আমাদের লেখক বন্ধুরা এই ফাঁদে পরবেন না। তাই লিখলাম। ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন।

৮০৬ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ৫৪ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৮০ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৭-০২ ১১:৫৫:৩৪ মিনিটে
banner

৮ টি মন্তব্য

  1. এ হুসাইন মিন্টু মন্তব্যে বলেছেন:

    এই রকম একটা রিপোর্ট পরিবর্তনে পড়ে ছিলমা, আবোারো পড়লাম, মানুষ মানুষ থেকে দিন দিন ঠকবাজে পরিণত হচ্ছে।

    • আনোয়ার জাহান ঐরি মন্তব্যে বলেছেন:

      আমিও পরিবর্তনে পড়ে জানছিলাম। ভাগ্যিস আমি ফোন ব্যাক করি নাই।

      • আহমেদ ফয়েজ মন্তব্যে বলেছেন:

        এ ব্যাপারে বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ মাধ্যমগুলো বিশেষ ব্যবস্থা নিতে পারে। তথ্যপ্রযুক্তির দুনিয়ায় কৌশলের কোন শেষ নেই। খুব সহজেই আমার একাউন্ট থেকে টাকা উধাও হয়ে যাবে বিষয়টা ভৌতিকই। আমার মোবাইলে যে টাকা থাকে তা বিশ্বের অন্য দেশের কারেন্সির সাথে মিলবে না। আর তা কনভার্ট করতে হলে অবশ্যই বাংলাদেশের কোন মাধ্যম লাগবে। সেসব তদন্ত করে বেড় করা উচিত।

  2. তুষার আহসান মন্তব্যে বলেছেন:

    জানলাম।

    ধন্যবাদ।

  3. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    এ সব প্রতারকদেরকে ধরে আইনের আওতায় আনা উচিত।

  4. শাওন রশিদ মন্তব্যে বলেছেন:

    আমার বাসায় ২ জনের কাছে ফোন এসেছিল… ধরা খায়নাই কেউ… চিটার দের ব্যাডলাক খারাপ… যেভাবে পাবলিক ওদের এই ব্যাপারটাকে রুখে দাড়িয়েছে তাতে ওদের লাভ করার কোন সম্ভাবিলিটি নাই।

  5. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    চিটারির কত বুদ্ধি বাপরে

    সতর্ক করার জন্য ধন্যবাদ

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top