Today 26 May 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

মোহিতার বিয়ে

লিখেছেন: রাজিব সরকার | তারিখ: ২২/০১/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 908বার পড়া হয়েছে।

সমুদ্র আর মোহিতা পাশাপাশি বসে আছে।সমুদ্র মোহিতার দিকে তাকিয়ে বলল-এত ভাল লাগে কেন বলতে পার?
-সেতো পুরোনো ডায়ালগ।অনেকদিন ধরেই শুনছি।
-আরে তোকে না,ঐ যে মেয়েটা।দেখ,একেবারে যেন স্বর্গ হতে এইমাত্র নেমে এসেছে।
মোহিতা একেবারে চুপসে গেল।বলল-যাও,তাহলে আর আমার সাথে বসে কেন?দেবীর হাত ধরেই হাটাহাটি কর।
আমি বললাম-ইয়েস ম্যাডাম।
এই বলে মেয়েটার হাত ধরে হাটতে শুরু করে।মোহিতা বড় বড় করে তাকালো।বুকটা ধক ধক করছে অসম্ভব।নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছে না।চিনে না, জানে না,এমন একটা মেয়ের সাথে হাত ধরে হাটতে লাগল।মেয়েটাই বা কেমন?চেনা নেই জানা নেই,একটা ছেলের হাত ধরে হাটতে লাগল।গাধাটাকে ইচ্ছে করছে চট করে থাপ্পড় মারতে।
-এই মেয়ে,এই মেয়ে, হাত ছাড়।
মেয়েটা মোহিতার দিকে তাকাল।
-এমন হা হয়ে না তাকিয়ে এবার হাতটা ছাড়।
মেয়েটা হাত ছেড়ে দিল।সমুদ্র বলল-হাত ছাড়বে কেন,এই হাতটা দাও?
এই বলে মেয়েটার হাত শক্ত করে ধরে।মোহিতা রাগে রাগে গর গর করতে থাকে।
-এইসব কি হচ্ছে?
-কই কি হচ্ছে?
-মেয়েটার সাথে এমন ধস্তাধস্তি কেন?
সমুদ্র হেসে বলল-ওর সাথে পরিচয় করে দেয়,মোহিনী।আমার সাথে বিয়ে ঠিক হয়েছে।
-বিয়ে ঠিক হয়েছে মানে?
-বিয়ে হবে।তুমিতো আর আমাকে বিয়ে করবে না।পরশু তোমার বিয়ে।বিয়ের পর বরের সাথে আমেরিকা চলে যাবে।আমি কি নিয়ে থাকব?
-তাই বলে আমি বাদে অন্য মেয়ের সাথে লাইন মেরে বেড়াবে।
-লাইন কই মারলাম,হবু বউয়ের সাথে হাটাহাটি করছি।তোর মত তো করিনি।
-আমি কি করেছি?
-প্রেম করলি আমার সাথে,বিয়ে করছিস আরেক জনকে।
-বাসা থেকে না মানলে আমি কি করতে পারি?
-তুমি আর কি করবা নাকে তেল দিয়ে ঘুমাবা?আমি তো আর তোমার জন্য দেবদাস হতে পারি না।
এই বলে মোহিনীর দিকে তাকায়।বলি-লাভ ইউ জান।
মোহিনীও হেসে বলে-লাভ ইউ।
-চল,আজকেই বিয়ে করে ফেলি।
-আজকেই?
-নইলে যে মোহিতা আমাদের বিয়েতে থাকতে পারবে না।
-ওকে জান,যা ভাল মনে কর।
মোহিতা রেগে বলল-তুই ওকে বিয়ে করতে পারবি না?
-না বিয়ে করবই।আজকেই বিয়ে করব।
-ওই ডাইনিটাকে তুই কিছুতেই বিয়ে করতে পারবি না।
-এমনভাবে বলে না সোনা,ভাল করে চেয়ে দেখ মানুষ নয়,যেন দেবী।ভাগ্য ভাল তোর মত বুড়ীকে বিয়ে করতে হচ্ছে না।
-কি এখন আমি বুড়ী,আর মেয়েটা একেবারে দেবী হয়ে গেল?
-যা সত্য তাই বললাম।ইচ্ছে হলে কাউকে জিজ্ঞেস করে দেখতে পার।
মোহিতা কাপতে থাকে।এই সময় মোবাইলটা বেজে উঠে।
-কি,হাফলেডিসটা কল দিয়েছে?কথা বল,জানু।
মোহিতা কল রিসিভ করল।
-এই তুমি কই?
-জাহান্নামে।
-এমন করে কথা বলছ কেন?তুমি কি আমার উপর রাগ করেছ?
-না,আপনার মত কমনসেন্স ছাড়া ছেলের উপর রাগ করে লাভ আছে?আচ্ছা আপনার মাথায় কি কিচ্ছু নেই,৪০ বছরের বুড়া হয়ে ২৫ বছরের মেয়েকে বিয়ে করতে চাচ্ছেন।
-মানে…
এই সময় লাইন কেটে দিল।ছেলেটা কয়েকবার কল দিল।মোহিতা কল রিসিভ করল না।
-এই মেয়ে,তুমি চলে যাও।ওর সাথে আর কখনো মিশবে না।
-চলে যাবে মানে,ওকে আমি এখন বিয়ে করব।
-তোমার বিয়ে করা ছুটাচ্ছি।আমার সাথে ভণ্ডামি।প্রেম করলে আমার সাথে বিয়ে করছ আরেক জনকে।
-খুব বলা হচ্ছে আমাকে।নিজে যে অন্য ছেলেকে বিয়ে করছ।
– আমি ঐ ছেলেকে বিয়ে করব না।
-এখন বলে আর লাভ কি?মোহিনীকে আমি না করতে পারব না।
মোহিনীও জোড় দিয়ে বলল-বিয়ে আমাকে করতেই হবে সমুদ্র।
এই বলে সমুদ্রের হাত ধরে কাজি অফিসের দিকে যেতে থাকে ।মোহিতার কান্না পেতে থাকে ।তার এত দিনের ভালবাসা,একেবারে গেল?কাজি অফিসের সামনে।মোহিনী মোহিতার দিকে তাকাল।মেয়েটার চোখ দিয়ে একসাথে পানি ও আগুন ঝরছে।হেসে বলল-ভাবী,একটুতো হাস?হাসলে তোমাকে মানবী মনে হয় না ,দেবী মনে হয়।ভাইয়া বলেছে।তেমন হাসি দেখতে চাই ভাবী।
মোহিতা হতভম্ব হয়ে সমুদ্রের দিকে তাকাল।সমুদ্র বলল-আমার খালাতো বোন।
এই বলে মোহিনী সমুদ্র একসাথে হেসে উঠল।

৯৮৬ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ১৭১ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৪৪ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৮-৩০ ১৬:১৭:৫০ মিনিটে
banner

৭ টি মন্তব্য

  1. আরজু মূন মন্তব্যে বলেছেন:

    পড়লাম দাদা তোমার লেখা।ধন্যবাদ

  2. এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    খুব ভাল লাগল গল্পটি । শুভ কামনা । ভাল থাকুন ।

  3. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    গল্প ভাল হয়েছে

  4. রাজিব সরকার মন্তব্যে বলেছেন:

    ধন্যবাদ সবাইকে

  5. আরজু মূন মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল লাগল গল্পটি । শুভ কামনা ।

  6. আঃ হাকিম খান মন্তব্যে বলেছেন:

    শুভ কামনা জানবেন ।

  7. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    অনেক ভাল লাগল গল্প

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top