Today 21 Jul 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

রম্যকথন – টাটকা বাদে পঁচা খান যদি আপনি বাঁচতে চান !

লিখেছেন: শওকত আলী বেনু | তারিখ: ০৭/০৬/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 557বার পড়া হয়েছে।

চারিদিকে শুধু আতঙ্ক আর আতঙ্ক।গুমে আতঙ্ক। খুনে আতঙ্ক । কারো কারো ঘুমেও আতঙ্ক। এখন আবার টাটকা খাবার নিয়েও আতঙ্ক । টাটকা ফলমূল খেলে নাকি কিডনি-লিভার নষ্ট হয়ে যায়!  তাই অনেকেরই আগ্রহ পঁচা ফলমূলের দিকে।অনেকেই দেখে শুনে টাটকা বাদে কিছুটা পঁচা হলেও মাছ-সবজি-ফল বাজার থেকে কিনে নিচ্ছে। টাটকা বাদে পঁচা কেন ? ওই যে, ভয় আর আতঙ্ক।উদ্দেশ্য একটাই-ফরমালিনমুক্ত খাবার চাই ।

ফরমালিনের ব্যবহার এখনো কী ‘ওপেন সিক্রেট’?  ফরমালিনের  ‘ফর্মাল’ ব্যবহার আমলা-কামলা,পুলিশ, আইন আদালতের কর্তাব্যক্তি সহ সকলের কাছেই দৃশ্যমান । ফাঁটা কেষ্ট রাজনৈতিকরাও পেটের ভিতরের খবরা-খবর  সবই রাখেন। কেষ্টরাতো সব কাজের কাজী- না জানার কথা নয় । কিন্তু মুশকিল হলো  দেখেও না দেখার ভান করেন। কারণ ভে-জালের ‘জালে’ যে কেষ্ট বাবুরা আটকে গেছে অনেক আগেই। যদিও ‘কারেন্টের জাল’ এখন আইনত নিষিদ্ব ।তবু  ‘ভে-জালের’  বিস্তার থেকে রেহাই নেই যে ! 

ওই ভেজাল এখন দেশের সর্বত্রই জালের মতো ছড়িয়ে আছে । বলা যায় ভেজাল করাটা জলের মতই সহজ । আবার এই জলেও রয়েছে ভেজাল।যেমন ধরুন ডিব্বা-সীসা-বোতোলের জল। টাঙ্কির জল। ওয়াসার  জল। সব জলেই ভেজাল। ওয়াসার জলে নাকি মলও মিলে যায়।ডিব্বা -বোতলের কথা আর নাইবা বললাম। এই ভেজাল-জাল-জল সবই এখন নাগরিকদের দুশ্চিন্তার বড় কারণ । আগে জানতাম জালে শুধু মাছ ধরা পড়ে। আর এখন দেখি ভে-জালের ‘জালে’ আটকে আছে আম, জাম, কাঁঠাল, লিচুসহ রকমারি ফলফলাদি । আগে জালে আটকা পড়লে মাছদের জীবন বিনাশ হতো। আর এখন? ভে-জালের জালে আটকা পড়ে মৃত মাছেরা কেমন চিরযৌবন লাভ করছে !আহা, বেচারা মাছগুলো যদি জানতে পারতো মরে গিয়েও তাঁদের এই যৌবন প্রাপ্তির ইতিকথা !

এই ফরমালিন নিয়েই সবাই ফর্মাল ব্যবসা করছে। হাতাইয়া নিচ্ছে টেকা-টুকা । আর পঙ্গু করে দিচ্ছে দেশের মানুষজনকে! সব শিয়ালের এক রা । মাইনক্যা প্যাঁচে আছে শুধু আমজনতা। ভেজাল খেয়ে খেয়ে নিস্তেজ হয়ে পড়ছে গোটা জাতি। ওইদিকে ভেজাল দমনের সংস্থাগুলো বুড়ো আঙ্গুল মুখে দিয়ে বসে আছে।তাঁদের কোনো ইচ্ছা নেই।নেই কমিটমেন্ট। পল্টি বাবা বলেছেন ক্ষমতায় গেলে সাত দিনের মধ্যে ভেজাল দূর করবেন ।বাবা তো নিজের দলের ভেজাল ই সামলাইতে পারছেন না । উনি কেমুন করে পারবেন ? ভেজাল দূর করতে একসময়  এগিয়ে আসছিল সুহৃদ রোকন-উদ-দৌলা। রোকন-উদ-দৌলার  মতো ম্যাজিস্ট্রেটের এখন হয়তো অভাব রয়েছে। নাকি সাহস দেখানোর সৎসাহস কারো নেই।হতেই পারে ভেজাল স্রষ্টাদের হাত যে অনেক লম্বা।

এই ভেজাল নামক ফরমালিন এখন রাজনীতিতেও যুক্ত হয়েছে।খালেদা জিয়া বলছেন সরকারে নাকি পচন ধরেছে।মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জবাব দিয়েছেন “বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া নিজেই পচে গেছেন ।এখন তো সব জায়গায় ফরমালিন। আমরা ফরমালিন দিয়ে বিএনপিকে তাজা রাখার চেষ্টা করছি”। যাক ভেজাল নিয়ে এখন রসিকতাও হচ্ছে । ‘রাজনৈতিক ফরমালিন’ ব্যবহার করে মরতে বসা রাজনীতিকে কদ্দিন বাঁচিয়ে রাখা যাবে তা দুই নেত্রীই ভালো বলতে পারবেন ।

কিন্তু রাষ্ট্রের জনগণ তো মরতে চায়না।বাঁচতে চায়। খুদ-কুড়া যা খাবে তা টাটকা খেতে চায় ।ফরমালিন খেয়ে মরতে যাওয়া মানুষগুলোকে কে দেখবে? কে জানে পচা-গলা রাজনীতিকে যদি ফরমালিন দিয়ে রক্ষা করা যায় তাহলে আমজনতাকে তাজা রাখতে কী টাটকা ফল-মূলই খেতেই পরামর্শ দিচ্ছেন দুই নেত্রী ? নাকি দুইদিন পর  এমন শ্লোগানও শুনতে হবে -“টাটকা বাদে পঁচা খান যদি আপনি বাঁচতে চান”!
 

৬০৮ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
লেখালেখি করি।সংবাদিকতা ছেড়েছি আড়াই যুগ আগে।তারপর সরকারী চাকর! চলে যায় এক যুগ।টের পাইনি কী ভাবে কেটেছে।ভালই কাটছিল।দেশ বিদেশও অনেক ঘুরাফেরা হলো। জুটল একটি বৃত্তি। উচ্চ শিক্ষার আশায় দেশের বাইরে।শেষে আর বাড়ি ফিরা হয়নি। সেই থেকেই লন্ডন শহরে।সরকারের চাকর হওয়াতে লেখালেখির ছেদ ঘটে অনেক আগেই।বাইরে চলে আসায় ছন্দ পতন আরো বৃদ্বি পায়।ঝুমুরের নৃত্য তালে ডঙ্কা বাজলেও ময়ূর পেখম ধরেনি।বরফের দেশে সবই জমাট বেঁধে মস্ত আস্তরণ পরে।বছর খানেক হলো আস্তরণের ফাঁকে ফাঁকে কচি কাঁচা ঘাসেরা লুকোচুরি খেলছে।মাঝে মধ্যে ফিরে যেতে চাই পিছনের সময় গুলোতে।আর হয়ে উঠে না। লেখালেখির মধ্যে রাজনৈতিক লেখাই বেশি।ছড়া, কবিতা এক সময় হতো।সম্প্রতি প্রিয় ডট কম/বেঙ্গলিনিউস২৪ ডট কম/ আমাদেরসময় ডট কম সহ আরো কয়েকটি অনলাইন নিউস পোর্টালে লেখালেখি হয়।অনেক ভ্রমন করেছি।ভালো লাগে সৎ মানুষের সংস্পর্শ।কবিতা পড়তে। খারাপ লাগে কারো কুটচাল। যেমনটা থাকে ষ্টার জলসার বাংলা সিরিয়ালে। লেখাপড়া সংবাদিকতায়।সাথে আছে মুদ্রণ ও প্রকাশনায় পোস্ট গ্রাজুয়েশন।
সর্বমোট পোস্ট: ২০৩ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৫১৯ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৬-১৭ ০৯:২৪:৩১ মিনিটে
banner

৭ টি মন্তব্য

  1. জামিলা পান্না মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনার রম্য আমার কিন্তু ভাল লেগেছে।

  2. জসীম উদ্দীন মুহম্মদ মন্তব্যে বলেছেন:

    সচেতনতা মূলক পোস্ট ! ধন্যবাদ বেনু ভাই ।

  3. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল লাগল পোষ্ট

  4. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    উপকারী পোষ্ট

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top