Today 18 Jun 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

শরীরচর্চা ভয়াবহ রোগব্যাধিকে দুরে সরায়

লিখেছেন: Crown. | তারিখ: ৩১/১০/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 518বার পড়া হয়েছে।

শরীরচর্চা ভয়াবহ রোগব্যাধিকে দুরে সরায় । নিয়মিত ব্যায়াম বা শরীরচর্চা রোগ নিরাময়ে ওষুধের চেয়ে বেশি কার্যকর হতে পারে । এমনকি ভয়াবহ সব রোগ থেকে মুক্তি দিতে পারে আপনাকে ।
হৃদরোগে এবার আক্রান্ত হলে সবাই বেশ সচেতন হয়ে যান । নিয়ম করে ওষুধ খাওয়া তখন বাধ্যতামূলক । ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র ক্ষেত্রেও একই ব্যাপার দেখা যায় । অথচ এই হৃদরোগ আর টাইপ টু ডায়াবেটিস থেকে কিন্তু আপনি ব্যায়াম বা শরীরচর্চার মাধ্যমেই মুক্তি পেতে পারেন । নিয়মিতভাবে এটা করলে হয়ত আপনার আর ওষুধের প্রয়োজন পড়বে না । সম্প্রতি লণ্ডন স্কুল অব ইকোনমিস্ক এবং হাভার্ড মেডিকেল স্কুলের গবেষকরা একথাই জানিয়েছেন । প্রায়ই শোনা যায় বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাড়ের নানা সমাস্যা ও ব্যাথা শুরু হয় । কিন্তু কেন এটা হয় তা নিয়ে হয়ত অনেকেই ভাবেন না । অস্টিওপোরোসিস বা হাড় নরম হয়ে যাওয়ার সমাস্যায় জার্মানিতে ভুগছেন প্রায় সাত-আট মিলিয়ন মানুষ । এই সমাস্যা কেন হয় বা এর থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় কী ?
হুসেইন নাসিরের নেতৃত্বে এ সংক্রান্ত গবেষণাটি ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে । মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ ,হৃদরোগ এবং টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্ত প্রায় তিন লক্ষ উনচল্লিশ হাজার রোগীর উপর পরীক্ষা চালিয়ে গবেষণাটি করা হয় । গবেষণার ফলাফলে দেখা যায় ,ব্যায়াম এসব রোগ থেকে যেমন মুক্তি দেয় তেমনি নিয়মিত শরীরচর্চার ফলে কোনও ওষুধ ছাড়াই রোগী সুস্হ থাকেন ।
এই গবেষণার প্রক্রিয়ায় চিকিত্‍সকরা এখন ওষুধ কমিয়ে শারিরিক ব্যায়ামের উপর জোর দিচ্ছেন । গবেষকরা বলেছেন, বিশেষ করে যারা একবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন শারিরীক ব্যায়াম তাদের জীবনে সুফল বয়ে এনেছে । শুধু তাই নয় এখন অনেকেরই আর ওষুধের প্রয়োজনও পড়ছে না ।
বিশেষজ্ঞদের কথায়, ওষুধ কেবল রোগ থেকে মুক্তির উপায় , কিন্তু শরীরচর্চা কোনও মানুষকে আবারও সেই রোগে আক্রান্ত হওয়া থেকে দুরে রাখে অর্থ্যাত্‍ রোগের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় ।
গবেষণার প্রতিক্রিয়ায় ব্রিটিশ অর্গানাইজেশন যেমন ডায়েবেটিস ইউকে এন্ড দ্যা স্ট্রোক এসোসিয়েশন বলছে, এটা প্রমাণিত যে সাধারণ মানুষের চেয়ে যারা ব্যায়াম করেন তারা অধিক কর্মক্ষম।
অবশ্য এর সঙ্গেই গবেষকরা এটাই বলেছেন যে একমাত্র ডাক্তারের পরামর্শ মেনেই ওষুধ গ্রহণ ও ব্যায়াম করা উচিত । তাই চিকিত্‍সককে জিজ্ঞাসা না করে ওষুধ বন্ধ করা একেবারেই উচিত নয় বলে পরামর্শ দিয়েছেন তারা । আজকে এতটুকুই থাক যদি পরবর্তীতে সময় পাই তবে আর বেশী লেখার চেষ্টা করব ।

৫৮৬ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
আমি ভারতীয় তাই ভারতীয় আদর্শে বিশ্বাসী । ভারত আমার জন্মভূমি তাই এদেশকে সবচেয়ে বেশী ভালবাসি । সারি জাহা সে আচ্ছা ভারত হামারা ।
সর্বমোট পোস্ট: ৪৬ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৩৭ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-১০-১৪ ০৪:৪১:০৭ মিনিটে
banner

৫ টি মন্তব্য

  1. ফেরদৌসী বেগম মন্তব্যে বলেছেন:

    কিন্তু ভাই, এই শারিরীক ব্যায়াম করাটাই তো বড় কষ্টকর লাগে। বেশ ভালো লাগলো আপনার এই স্বাস্থ্যবিষয়ক তথ্যমূলক পোষ্টটি। শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

  2. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    দারুন পোষ্ট।

  3. Crown. মন্তব্যে বলেছেন:

    প্রথমে কিছুদিন কষ্ট হবে অবশ্য পরে অভ্যাস হয়ে যাবে ।

  4. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    অভ্যাস মানুষের দাস ।

  5. দীপঙ্কর বেরা মন্তব্যে বলেছেন:

    খুব সচেতন মূলক পোষ্ট
    ভাল লাগল

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top