Today 10 Aug 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

সনেটঃ জীবন প্রদীপ

লিখেছেন: শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত | তারিখ: ২৯/০৬/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 1039বার পড়া হয়েছে।

পৃথিবীর বুকে কত দীপ জ্বলছে
স্থির নয় চন্দ্র শশীর অশনি ;
জীবন চেরাগ অবিরাম জ্বলছে
একদা হঠাত্‍ চিরতরে নিভবে জানি ।
ফের জ্বালাবে কারও কি সাধ্য আছে ?
তেল শেষ ,পাবে কই ? শূন্য তেল খনি
কর্ণে শুনছি ওপারে যাবার ধ্বনি
কেরোসিন দহন শক্তি হারিয়েছে ।

ধরাতে মূল্যহীন দীপ নিভা জীবন
মর্তে পুঁতো বাঁশঝাড়ে সেটা উত্তম ;
সে এখন করবে পরিবেশ দূষণ
ভুলে মোম জ্বালিওনা কোন অধম
পূণ্য দীপ শিখা হবে অন্ত জীবন
ভুবন তো এক প্রেমময়ী পাপজম ।

১,০৫৭ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
01912657988 অথবা 01853861342
সর্বমোট পোস্ট: ১৮৫ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৩৬৩৬ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৮-২৩ ১১:৪২:৪১ মিনিটে
banner

১১ টি মন্তব্য

  1. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    ১৪ অক্ষর হয়নি তো

  2. এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    এটি মূলত একটি কবিতা , সনেট নয় । ভাল লাগলো ।

    • শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

      কেন সনেট নয় ? সেটা আঙ্গু দিয়ে দেখিয়ে দিন । ভুল ধরলে সেটা সঠিকভাবে বুঝানো উচিত্‍ ।
      তাহলে বুঝিয়ে দিন ।

  3. সাখাওয়াৎ আলম চৌধুরী মন্তব্যে বলেছেন:

    সত্যিই বলেছেন কেরোসিন শেষ হয়ে আসছে। ওপারে যাবারধ্বধ্ব শোনা যাচ্ছে। খুবই ভালো একটি কবিতা।

  4. দীপঙ্কর বেরা মন্তব্যে বলেছেন:

    Kon hisebe sonet
    Tobe bhalo kobita
    bhalo laglo
    bhalo thakben

  5. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    মাইকেলের কখকখকখকখ গঘগঘগঘ
    হিসেবে সনেট ।

  6. আরজু মূন মন্তব্যে বলেছেন:

    পৃথিবীর বুকে কত দীপ জ্বলছে
    স্থির নয় চন্দ্র শশীর অশনি ;
    জীবন চেরাগ অবিরাম জ্বলছে
    একদা হঠাত্‍ চিরতরে নিভবে জানি ।

    শান্ত কোথায় তুমি। সুন্দর লিখেছ ভাই। অনেক শুভেচ্ছা জানিয়ে গেলাম তোমার কবিতায়। ভাল থাক।

  7. টি. আই. সরকার (তৌহিদ) মন্তব্যে বলেছেন:

    “হে, বঙ্গ ভাণ্ডারে তব বিবিধ রতন ।”
    এটি মাইকেলের লিখা বঙ্গভাষা কবিতার একটি লাইন ।
    এখানে যদি ১৪ অক্ষর হয় তবে আপনার
    “স্থির নয় চন্দ্র শশীর অশনি ;” এই লাইনে তো ১২ অক্ষরের বেশি নয় কবি ।
    আপনি হয়তো ‘স্থির’ কে তিন অক্ষর ধরেছেন তেমনি ‘চন্দ্র’-কেও ! কিন্তু প্রথম লাইনে ‘বঙ্গ’ দুই অক্ষর বিবেচিত হয়েছে এবং ‘ভাণ্ডারে’ তিন অক্ষর ! অর্থাৎ সনেটে যুক্ত বর্ণকে একটি অক্ষর হিসেবে বিবেচনা করা হয় ।
    তাই এটা সুনিশ্চিত যে, আপনি যে কবিতাটি লিখেছেন সেটি সনেট নয় ।
    ধন্যবাদ কবি । ভাল থাকবেন ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top