Today 19 Oct 2019
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

সভ্য অন্ধকার

লিখেছেন: হাসান ইমতি | তারিখ: ০১/০৩/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 890বার পড়া হয়েছে।

হুমায়ূন আজাদ এই তালিকার প্রথম উৎসর্গ নয়,
অভিজিৎ রায়ও হয়তো বলিদানের শেষ নাম নয়,
হয়তো কেন বলছি আমি সর্বশেষ নাম তো নয়ই,
সময়ের মত নিত্য বহমান এই তালিকা জাতিগত
লজ্জার পীচঢালা পথ ধরে বয়ে চলে যাবে অনন্তে
তবু ক্ষান্ত হবে না উদ্ধত ঘাতকের সশস্ত্র স্পর্ধা,
এ মৃত্যু তালিকার কোন শুরু নেই, শেষও নেই,
এ নামের মিছিল ক্রমশ লম্বা হতে হতে অনায়াসে
ছুঁয়ে যাবে মহাকাল তবু শেষ হবে না সে পদযাত্রা,
রাজীব, বিশ্বজিৎ সহ আরও কতশত জানা অজানা
ক্ষত বিক্ষত রক্তাক্ত নাম হয়তো ক্ষমতার মসনদের
দুর্লঙ্ঘ্য ছায়াঢাকা কালো ইতিহাসের রাজসাক্ষীতে
সুবিচারের মিথ্যে আশায় ভুল আদালতে অসহায়
দাড়িয়ে আছে সাগর রুনির রক্তাক্ত বিশ্বাসের পাশে,
রক্ত ঝরেছে, ঝরছে, ঝরবে আবহমান কাল ধরে,
রক্তের স্রোতে ডুবে যাবে বিবেকের শেষ আশ্রয়,
এ রক্তের নদী খুঁজে পাবে না কোন সমাপ্তির সাগর,
রক্তের আলাদা করে কোন বিশেষ নাম থাকে না,
শিরায় শিরায় বহমান রক্তের একটাই নাম জীবন,
গড়িয়ে যাওয়া পিচ্ছিল রক্তের একটাই রঙ লাল,
কালো পীচঢালা রাজপথ ভিজে লাল হয় আমার
স্বজনের রক্তে, সময়ের ধুলো ঢেকে ফেলে সে লাল,
তখন আবারও রক্ত ঝরে তৈরি হয়এক নতুন ক্ষত,
পুরনো ক্ষতেরা বিচারের প্রহসনে আবারও রক্ত ঝরায়,
কিছু অপারগ প্রশ্ন উত্তর খুঁজে ফেরে অসহায়ত্বের কাছে,
ভিন্নমত সইবার ক্ষমতা কি রাখে না এই সভ্য অন্ধকার ?
মৃত্যু খড়গের দুঃসহ ধারে যে দুর্বৃত্ত নিজের মতামত লেখে
রক্তের কালিতে তার কি ছিল না কণ্ঠ জবানবন্দী জানাবার ?
তোমাকে থামাতে পারে এমন কোন শক্তি নেই এই চরাচরে,
তোমাকে থামারাব মত মানবতা আজ আর কোথাও বেঁচে নেই,
নিপীড়িতের জন্য কোন আইন নেই, সুবিচারের কাঠগড়া নেই,
কোন আশা নেই, মাথার উপর ঈশ্বর নেই, আমরা অপেক্ষায় রয়েছি
আর কত রক্তের নদী বইয়ে ঘাতক তুমি ক্লান্ত হয়ে থামবে বল শেষে,
নারকীয় পরিতৃপ্তি শেষে ঘাতক তুমি কবে নিজ থেকে শ্রান্ত হয়ে ক্ষান্ত দেবে।

৮৮৩ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
আমি হাসান ইমতি, জন্মস্থান ফরিদপুর, বর্তমান বাসস্থান উত্তরা, ঢাকা । আমি মূলতঃ অনলাইন ভিত্তিক প্ল্যাটফর্মে লেখালেখি করে থাকি । এ ধারায় কবিতা ভিত্তিক সাইটের ভেতর রয়েছে বাংলা কবিতা, কবিতা ক্লাব, কবিতা ইবারয়ারি, গল্প কবিতা, বাংলার কবিতা ইত্যাদি এবং ব্লগের ভেতর সামহোয়্যার ইন ব্লগ, চলন্তিকা, ইস্টিশন, নক্ষত্র, আমার ব্লগ, চতুর্মাত্রিক ইত্যাদি। ইতিমধ্যে ই-ম্যাগের ভেতর অন্যনিষাদ, কালিমাটি, মিলন সাগর, জলভূমি, প্রতিচ্ছবি, বাঙ্গালিয়ানা সহ আরও কিছু ব্লগজিন ও বাজিতপুর প্রতিদিন, মিডিয়াবাজ, নব দিবাকর, তোমার আমার, বাংলা নিউজ ২৪, নারায়ণগঞ্জ টাইমস সহ আরও কিছু অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে আমার লেখা । প্রিন্ট মিডিয়ার ভেতর গত ২০১৫ ইং বইমেলায় সাহিত্যকথা, অন্যপ্রকাশ, তারুন্য সহ আরও কয়েকটি সংকলনে আমার লেখা প্রকাশিত হয়েছে । এর বাইরে ভারতের দিগন্ত পত্রিকা, যুগসাগ্নিক, ঢাকার লেখচিত্র প্রকাশনী, বাংলার কবিতাপত্র, অতসী পত্রিকাসহ আরও কিছু প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হয়েছে আমার লেখা । অনলাইনে আয়োজিত আটকাহন সাহিত্য পুরস্কার, গল্পলেখা সাহিত্য পুরস্কার ও সৃষ্টিসুখের উল্লাসে সাহিত্য পুরস্কার সহ আরও কিছু সাহিত্য পুরস্কার আমার লেখাকে সন্মানিত করেছে । ব্যক্তি জীবনে আমি কমনওয়েলথ এম বি এ শেষ করে সি এ করার পাশাপাসি একটি উৎপাদন মুখী প্রতিষ্ঠানে নিরীক্ষা বিভাগে কর্মরত আছি । গুগলে অভ্র দিয়ে বাংলায় "হাসান ইমতি" লিখে সার্চ দিলে আমার সম্পর্কে আরও জানা এবং আমার লেখার একাংশ পড়া যাবে ।
সর্বমোট পোস্ট: ১৫৪ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৮০৮ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৪-১২-১৪ ১১:৫৬:২৪ মিনিটে
Visit হাসান ইমতি Website.
banner

৯ টি মন্তব্য

  1. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    নারকীয় পরিতৃপ্তি শেষে ঘাতক তুমি কবে নিজ থেকে শ্রান্ত হয়ে ক্ষান্ত দেবে।

    ঘাতকরা ক্লান্তও হয় না শ্রান্তও হয় না । যুগ যুগ ধরে এরা থাকে ধরাছোঁয়াার বাইরে

    সুন্দর লিখেছেন

  2. সুমন সাহা মন্তব্যে বলেছেন:

    চরম বাস্তব কিছু কথা তুলে ধরেছেন লেখাতে।

    ভালো লাগলো। একাত্মতাও রইলো।

    শুভেচ্ছা রইলো অনেক অনেক।

  3. অনিরুদ্ধ বুলবুল মন্তব্যে বলেছেন:

    “রক্তের আলাদা করে কোন বিশেষ নাম থাকে না,
    শিরায় শিরায় বহমান রক্তের একটাই নাম জীবন,”
    অভিজিত হত্যার প্রতিবাদে লিখা কবিতাটি বেশ বলিষ্ঠ লেখনীর স্বাক্ষর রাখে।
    ভাল লাগল। কবিকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই।

  4. হাসান ইমতি মন্তব্যে বলেছেন:

    ভালোবাসা এই মেঘ এই রোদ্দুর

  5. হাসান ইমতি মন্তব্যে বলেছেন:

    ভালোবাসা সুমন সাহা …

  6. হাসান ইমতি মন্তব্যে বলেছেন:

    ভালোবাসা অনিরুদ্ধ

  7. মিলি মন্তব্যে বলেছেন:

    ঘাতকের অনেক গুলা শ্রেণিবিন্যাস আছে ,দাবার ঘুটি ঘাতক ,মধ্যম ঘাতক আর নাটের গুরু ঘাতক । মূলে না ধরতে পারলে লাশের এই মিছিল আরও বড় হবে ।

  8. হাসান ইমতি মন্তব্যে বলেছেন:

    এটি একটি চক্র, শেকড় সহ উৎপাটন না করলে একে বিনাশ সম্ভব নয়, কিন্তু এই শেকড় খুজতে গেলে দেখা যায় শর্ষের ভেতরই ভূত #মিলি

  9. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    মুগ্ধকর লিখনী
    ,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,ভালো
    fine

    ভালো লাগলো পড়ে
    শূভ কামনা রইল

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top