Today 25 May 2020
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner
লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ৪১ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ১৩৭ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-১১-৩০ ০৬:৫৯:২০ মিনিটে

যদি পারো ,জল রঙে বার্তা পাঠিয়ো ! ইদানীং মেঘ বালিকাও ভাল নেই ।
সে স্বপ্নের মন্দিরে যায় , নৈবদ্য সাজায় , পূজায় মন বসে না ।
পাখিদেরও একই অবস্থা । মহুয়া , মলুয়ার দেশে যায়,কত কি বলতে চায় ,
বলতে পারে না ।

বিস্তারিত পড়ুন

রঙিন চোখে যেদিক তাকাই নিসর্গতায় ভরা
স্বপ্নপরি আঁচল ওড়ায় যায় না তাকে ধরা
চঞ্চলতার আবেশ নিয়ে জোছনা জলে ভাসি
প্রেমের রাখাল কুঞ্জবনে বাজায় মোহন বাঁশি ।

মনের পালে দোলা লাগে ভাটির সুরের গানে
বাউল হয়ে কোথায় হারাই ভালবাসার টায়া?
জুঁই চামেলি চম্পা বেলি অঙ্গনেতে ফোটে
আমার

বিস্তারিত পড়ুন

তোমার স্বপ্নেরা বড় বেশী উত্তাল এখন ,
মায়াবী মায়ায় বেঁধে নেয় চঞ্চল মনের খবরাখবর
শব্দের দুরন্ত খুনসুটি নিয়ে , আঙিনায় আসে আঙুররঙা রোদ ।
অবিন্যস্ত জীবন নিয়ে খেয়ালি সুরে গান গায়
ফুল পাখি প্রজাপতি সকাল ।
হারানো দিনের খোঁজে নেশাগ্রস্থ অতিথির মত
ছুটে যাই দূর সুদূর

বিস্তারিত পড়ুন

বৈরী সময় যাচ্ছে ধীরে কাঁদছে হলুদ পাখি
পুড়ছে আহা দিন দেবিকার ফুলশয্যার রাখি
নতুন নতুন পায়রাগুলো ডিজিটালের ফুলে
নিত্য রঙিন সাজ করে আর নাচে হেলে দুলে
জল-সাগরে উতল জোয়ার নাবিক তবু বোকা
জর্দা পানে আসর মাতায় ষাট বছরের খোকা
ন্যায় সততার বর্ণমালায় কেউ লেখেনা চিঠি
কষ্টে

বিস্তারিত পড়ুন

যে হৃদয় ছোঁঁয় না কোন হৃদয়ের শেকড়
কি করে সে পাবে শেকড়ের খোঁজ ?
ভালোবাসার গল্পটা এখানেই থেমে যাক !!
যে বাতাস ছুটে আসে নষ্ট পান্ডুলিপি নিয়ে
তার সাথে হয় না মেরুকরণের লেনাদেনা !
শতাব্দীর রোদে ভিজে চেতনার অশ্রুপাত ঘটুক
তাতে কিবা যায় আসে !
অপেক্ষার সিঁড়ি

বিস্তারিত পড়ুন

নষ্ট জলে ভাসছে মেধা বদলে গেছে সব
বন পাখিরা তাই ভুলেছে করতে কলরব
সবুজ পাতায় রোদের আদর দেখলে ঢাকি মুখ
ঝাঁঝড়া বুকে ব্যথার পাহাড় তবু খুঁজি সুখ.!
বাঁঁকা পথে চলতে গিয়ে হারাচ্ছি সম্মান
আপন ঘরেই বৈরী অসুখ নেই তো প্রেমের টান
যাচ্ছে বেলা রঙিন খেলায় ওমের

বিস্তারিত পড়ুন

নোংরা জলে ভিজলো কি তোর সবুজ তাঁতের শাড়ি
ভয় পাস না তবু সখী আসিস আমার বাড়ি
আদর সোহাগ সবি দেবো
মান ভাঙানোর ওষুধ দেবো
তুই যে আমার ছোট্ট বেলার পুতুল খেলার সাথি
তোকে ভেবে আজো আমি জ্বালি সন্ধা বাতি
তুই যে আমার স্মৃতির পাখি
তাইতো আমি তোকেই

বিস্তারিত পড়ুন

তোমার অমৃত দিন আমাকে ভেবে কাটে
পাখিরা গান গায়, ফুলেরা হেসে হেসে
গন্ধ ছড়ায়।
আমিও মেলে দিয়ে ইচ্ছের রঙিন ডানা
বসে থাকি অপলক অপর বেলায়।
তোমার সুরেলা মন আমার আমিকে ঘিরে
চায় কি উড়ে যেতে দূর নীলিমায়
বাতাস খুনসুটি করে, প্রকৃতি মেলে দেয়
সবুজ কাতান শাড়ি,
পাহাড় ডাকে বুঝি

বিস্তারিত পড়ুন

তোমার বুকে কষ্টের শৈত্য প্রবাহ
দ্রোহের আগুনে পোড়ে নিঃশব্দ অনুভূতি গুলো
কাকে বোঝাবে বলো?
না বলা ভাবনা নিয়ে জলছাদে একলা ঘোরো
আমি তো তোমার মাঝে অচেনা আকাশ দেখি
দেখি জীবনানন্দ শ্লোকের উঠোন
কিংবা শ্রাবন্তীর কারুকার্য ভরা আনত সুখ।
রাত জাগা পাখিদের আর্ত কলস্বরে
যখন কাব্যের মাঠে হাসে রূপশালী

বিস্তারিত পড়ুন

কোন দুখেতে একলা ভ্রমর ফুল বাগানে ঘোরে
দেখে আহা স্বজন-বধূ বুক বুঝি তার পোড়ে
ফুল রেনুতে প্রেমের সোহাগ, দ্রোহের বিষে মাখা
ভ্রমর-বধূ চমকে থামে, সামনে তো পথ বাঁকা।

বিস্তারিত পড়ুন

এক হৃদয়ের না বলা কতো যে কথা
বলতে চেয়েও হয়নি তো বলা তাকে
সময়ের গতি থামে না যে কোনদিনও
খেয়ালি অতীত হাত নেড়ে পিছু ডাকে।
শর্তটা মেনে কত আর এলে কাছে
এলোমেলো হল বর্ণালী রাঙাবেলা
সোহাগী পিঁড়িতে মাথা রেখে একা ভাবি
হঠাৎ ফুরোবে মোহ মায়াময়ী খেলা।
না হয়

বিস্তারিত পড়ুন

ষোড়শী চাঁদ উঁকি দেয় জীবনের জানালায়
স্বপ্নের মৌচাষি যৌবনা ঋতুর ফুলশয্যা পাতে
কিশোরী রোদ ছায়া ফেলে নান্দনিক ভাবনার কাশবনে।
কখনো ভেসে যাই বিলাসী দৃষ্টিজলে,
নিত্যকার গেরস্থালি নিয়ে
উৎসুক হয় বনেদি শব্দমালা,
আমিও মেতে উঠি গোধূলির কোরিওগ্রাফি নিয়ে।
রাঙা পায়ে মেহেদীর আল্পনা আঁকে
বাঁশরির মন্দ্রিত সুর।
আগুনের পরশমনিতে সহসা

বিস্তারিত পড়ুন
go_top