Today 25 Sep 2018
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner
লেখক সম্পর্কে জানুন |
সময় বয়ে যায়।আমি ও বেড়ে উঠি . নিশ্চিত জীবনের পথ খুঁজে ফিরি কিন্তু অস্থির অবস্থা সে পথ ভুলিয়ে দেয়।কোলাহল ব্যাস্ততা ছেড়ে মনের আনন্দে লিখি।যশ খ্যাতি এসবের পেছনে কখনো ছুটে চলিনি আর চলতে ও চাই না ।কেমন লিখি জানি না । কারো কাছে ভালো লাগলে খুশি হব। touhidullah82@gmail.com
সর্বমোট পোস্ট: ১৯ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৪৪ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৬-০২ ০২:৩৯:৪২ মিনিটে

অনেকটা অভ্যস্ত হয়ে গেছি।কনক বেশ কয়েকদিন হল অফিসে আসছে না । আসবে কি করে? কনকের বাবা’র অসুখ , সেই কারণে কনক’কে বেশ খাটতে হচ্ছে।কনকের মিষ্টিমাখা মুখ বেশ কয়েকদিন হল দেখতে পারছি না । সকালে বাসায় নাস্তা বন্ধ করে দিয়েছি। পাউরুটি

বিস্তারিত পড়ুন

স্বপ্নের ঘোরে
শুষ্ক বুকে দারুন খরা মরূদ্যানের মত
পাথরে জল সেচে মেঘমালা প্রানের নব সঞ্চার
দিন রাত অবিরত উম্মাতাল পারাবারের শব্দহীন গর্জন
প্রতীক্ষায় নতুন বীজ বুনি নিরাশার চরে।

ধূলির ঘূর্ণি ভেঙ্গে করে চূড় শিরা উপশিরা
বুকের পাঁজরে বেদনারা খেলা করে উল্লাসিত হয়ে
মস্তিষ্কের নিউরনে অচেনা কষ্টেরা

বিস্তারিত পড়ুন

কনা যেখানে বসে আছে সেখানটা একেবারে ফাঁকা । দীঘির এই পাড়ে সাধারণত কেউ তেমন একটাআসে না। কনা আজ দারুন সেজেছে যাকে বলে নববধূর সাঁজ। কনা ছোট বেলা থেকেই সুন্দরী।কনার দাদু আদর করে তাকে শ্রীদেবী বলে ডাকত। রুপটা আসলেই তার

বিস্তারিত পড়ুন

একাকী পথ চলতে চলতে আমি আজ ক্লান্ত।একসময় অনেক স্বপ্ন দেখতাম।নিজের ইচ্ছেমত ছুটে বেড়াতাম,এখানে সেখানে।আজ আমি রেলের পুলের ধারে এসে বসে থাকি একাকি।এখানে বসেই আমি আমার নিজস্ব জগতের স্বপ্ন বুনতাম। তখন আমার সাথে আরো একজন এসে বসত। এখন কেউ আসে না

বিস্তারিত পড়ুন

” সকাল বেলা “

মা দাওনা কিছু  টাকা।

আমার কাছেতো টাকা নাইরে বাপ।

দূর। তোমরা যে কি !কত করে বললাম আমারে কিছু  টাকা দেও। তা যখন দিলে না । আমি স্কুলে যাই।

রাহেলার খুব খারাপ লাগে । একমাত্র ছেলে

বিস্তারিত পড়ুন

সামনে কুরবানীর ঈদ। পাড়ায় ,পাড়ায় ব্যাস্ততা । ঘরের বৌ ঝি সকলে মিলে চাউলের গুড়ি ধুপছে ঢেঁকিতে। চাউলের গুঁড়োর রুটির সাথে ঈদের তাজা গরুর মাংস খেতে বেশ দারুন লাগে। দূ’জন কামলা লাকড়ী পাড়ছে উঠানের কোনায়। রুপকের ছোট বোন তার বান্ধবী

বিস্তারিত পড়ুন

বসন্তে
প্রকৃতি সেজেছে নতুন রুপে । শীতে পত্র ঝরা সকল বৃক্ষে সবুজের সমারোহ।রুক্ষ প্রকৃতি যেন প্রান ফিরে পেয়েছে। ফুল গাছে নানা রঙের ফুল বাংলার গ্রাম যেন এক স্বর্গপুরী । কোন শিল্পীর আঁকা ছবির মত। শীতের আমেজ শেষে সকলে নানা

বিস্তারিত পড়ুন

হেমন্তে
চারদিকে ফসল কাটার হিড়িক লেগেছে । গ্রামে এখন অবসরে কেউ নাই। চারদিকে ব্যাস্তময় সময় । যার নিজের জমি আছে সে কামলা দিয়ে ধান কেটে ঘরে তুলছে,যার জমিন নেই সে অন্যের ক্ষেতে কামলা দিচ্ছে। এযেন গ্রাম বাংলার কৃষকের এক মহাব্যাস্ত

বিস্তারিত পড়ুন

শরৎ -এ
স্কুলের পাশে ছোট খাল । তার পাশে অনন্য সুন্দর এক কাশবন। কাশফুলে ছেয়ে আছে খালের পাড় । নিচে সবুজ কাশ উপরে ধব সাদা কাশফুল। কাশবনের পাশে মীর’দের জমি। সেই জমিতে ধানের চারা লাগাচ্ছে আজিজ। গুনগুন করে গান গাচ্ছে আর

বিস্তারিত পড়ুন

বর্ষায়
বর্ষার বর্ষণে গ্রামের রাস্তা ভিজে একাকার। ঘর থেকে বাইরে বেরুলে শুধু কাদা আর কাদা। পায়ে ঘা হয়েগেছে মমিন মিয়ার। ঘরে বসে থাকলে তার চলে না । তাই প্রতিদিন কাদামাটি মাড়িয়ে গঞ্জে যেতে হয় । আর যাওয়া আসা করতে করতে পায়ের

বিস্তারিত পড়ুন

গ্রীষ্মে
বৈশাখ মাসের রোদেলা দুপুর।আম গাছের নিচে পাতা মাচানে বসে পান চিবুচ্ছেন রহম আলী। সারাদিন কলা বাগানে খেটে এসেছেন। নিজের এক চিলতে জমিন। তার উপর ভরসা করে চলতে হয় পুরো বছর। কোন কোন বছর বেশ ভালো চলে । আর কোন কোন

বিস্তারিত পড়ুন

স্মরণ
লেখক : তৌহিদ উল্লাহ শাকিল
খালি শরীরে দুলাল কে অনেকটা অ্যাথলেটদের মত লাগে । পাড়া গাঁয়ের ছেলে কিন্তু অনেক পেশীবহুল শরীর। টানটান বুক অনেক লম্বা গড়ন। সেই দুলাল কিন্তু একেবারে গরীব ঘরের ছেলে। দুবেলা খাবারের জন্য তাকে ছুটতে হয় নানা কাজে।

বিস্তারিত পড়ুন
go_top