Today 01 Dec 2021
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

উপন্যাস অমর প্রেম পর্বঃ ১৩

লিখেছেন: শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত | তারিখ: ২৬/১০/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 1040বার পড়া হয়েছে।

স্বয়ন আর বিলম্ব না করে সবার কাছে বিদায় নিয়ে চলে এলো । রাতে বিছানায় শুয়ে ভাবছে সাথীর ফোন আসবে মনে হয় । অপেক্ষায় অপেক্ষায় দুটি চোখের পাতা বন্ধ হয়ে স্বয়ন এক রাতের জন্য মরে গেল । ফজরের নামাজের পর মোবাইলের ডিজিটাল রিং বেজে উঠল । ঘুম ভেঙ্গে গেল স্বয়নের । ডিসপ্লেতে চোখ দিয়েই দেখল সাথীদের নাম্বার । রিসিভ করে বলল , কেমন আছ ?
তোমার মত ।
এতক্ষণ পরে মনে পড়ল ?
আব্বু মোবাইল বালিশের নিচে রেখে ঘুমায় সুযোগ পাই না । আজ টেবিলে রেখেছে , তাই সুযোগ পেলাম ।
থাক ওসব কথা ,মা আব্বা কেমন আছে ?সাথী জিজ্ঞাসা করল ।
ভাল আছে ।
তোমার বাড়ির সবাই ভাল আছে ?
ভাল আছে ।
তুমি কিন্তু কল দিওনা মোবাইল সবসময় আব্বুর কাছে ।
আমি যখন সুযোগ পাব তোমাকে কল করব ।
কেমন ?
ঠিক আছে , বেঁচে গেল ।
কি বেঁচে গেল ?
টাকা , টাকা ।
এ বলে অনেক হাসা হাসি করল । এরপর বলল ,
জান আজ রাত কিসের ?
হ্যাঁ , শবে ক্বদরের রাত ।
এ রাতে এবাদত করে প্রার্থনা করলে আল্লাহ কবুল করে ।
কিন্তু দুর্ভাগ্য আমার ? সাথী বলল ।
কি হয়েছে ?
বোকা বুঝনা ?
না কইলে বুঝব কেমনে ?
প্রত্যেক মাসে যেটা হয় সেটাই হয়েছে ।
ও , আচ্ছা ।
তুমি আমার বদলে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করবে , আমার আশা যেন পূরণ হয় ।
ইহকাল পরকাল যেন দুজনে সুখে থাকতে পারি ।
আচ্ছা চিন্তা করনা ।
লক্ষীটি আমার এখন রাখি , ভাই আবার জেনে যাবে ।
রাখো ।
স্বয়ন লাল বাটনে চাপ দিল ।

সন্ধ্যা নেমে এলো সবাই রাত উত্‍যাপনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে । জাহিদ স্বয়নের খালাত ভাই সিদ্দিক মামাত ভাই আজিজ ও মতিন এসে ওদের বাড়িতে হাজির । পরে খাওয়া দাওয়া করে এক সাথে উলিপুর মসজিদুল হুদায় চলে গেল । জুতা বাইরে রেখে সবাই মসজিদে প্রবেশ করল । মধ্য রাতে ওরা ফ্লোরে ঘুমিয়ে পড়ল । কিন্তু স্বয়ন ঘুমায়নি ঘুমালে প্রিয়ার জন্য দোয়া করবে কে ?
স্বয়ন জিকিরে মগ্ন হঠাত্‍ আল্লাহর ঘরে ঘটল এক ঘটনা ।

এক যুবক ছেলে দামী একটি মোবাইল সেট পকেটে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ছে । তার পাশেই এক ভদ্র লোক আল্লাহ আল্লাহ জিকির করছে । ভদ্র লোকটি পা দিয়ে যুবকটিকে একটি লাথি দিল । স্বয়ন ফলো করল , ছেলেটি সজাগ পেলনা । আর এ সুযোগে হাত দিয়ে মোবাইলটি নিয়ে জিকিরের তালে তালে চলে যাচ্ছে । ব্যাপারটি বুঝতে পেরে ধরার জন্য পিছু নিল । চোর ভদ্র লোক বুঝতে পেরে দৌড়ে পালাল । স্বয়ন চোর চোর বলে চিত্‍কার করে কোন লাভ হলনা ।
জাহিদ , আজিজ , সিদ্দিক ও মতিন সজাগ হলো । সবাই অবাক আল্লাহর ঘরে চুরি , চোরের কোন ঈমান নাই ।
এটাতো পুরনো কাহিনী , চোরে না শোনে ধর্মের কাহিনী । চোর মসজিদে নামাজের জন্য আসেনা , তাদের উদ্দেশ্য চুরি করা । নামাজিরা নামাজের সিজদায় গিয়ে বলে ,
সুবহানা রাব্বিয়াল আলা ।
আর চোর বলে ,
কোন জুতাটা ভালা ।
জাহিদ বলল ,
চল দেখি আমাদের জুতার খবর কি ?
সবার জুতা আছে কিন্তু আজিজের জুতা নাই ।আজিজ বড় দুঃখে বলল ,
ভাই , আব্বা গতকাল পাঁচশ টাকা দিয়ে কিনে দিয়েছে ।
জুতা হারার কথা বললে পিটিয়ে তক্তা বানাবে ।
তুই চিন্তা করিস না আমি মামাকে বুঝিয়ে বলব ।
আমি এত কিছু বুঝি না , আমিও অন্য কারো জুতা নিয়ে যাব ।
স্বয়ন নিষেধ করল কোন লাভ হলো না । ঘাড় তেরা ছেলে মানল না । জুতার বাক্স থেকে বাছাই করে এক জোড়া নতুন চামের জুতা নিয়ে মসজিদ থেকে বেরিয়ে গেল । সেদিন যে কত জনের জুতা খোয়া গেছে তা জানা নেই ।

আসল কথা কি আমাদের দেশের আইন শৃংখলা পরিবর্তনশীল এ কারণে যার যার ইচ্ছামত আইন বানান । কোন চোর বা ডাকাত গ্রেফতার হলে জেল বা হাজতে যায় সেখান থেকে কিছু টাকা পয়সা ঘুষ দিয়ে মুক্তি পায় ।
দেশের আইনের এমন দশায় অপরাধীর সংখ্যা হ্রাসের পরিবর্তে বেড়েই চলছে । আমার মতে সৌদি আরবের আইন প্রয়োগ হয় তাহলে হলফ করে বলতে পারি অপরাধ ও অপরাধীর ব্যাপক হ্রাস ঘটবে ।

সাথীর বিষয়ে স্বয়নের কোন চিন্তা নেই স্কুলে গেলেই প্রিয়াকে দেখতে পায় । এখন কিভাবে এস এস সি তে এ প্লাস পাবে তা নিয়ে মাথা ব্যথা ।দেখতে দেখতে টেস্ট পরীক্ষা শুরু হল । স্বয়ন প্রত্যেক পরিক্ষায় ১০০ মার্ক উত্তর দিয়েছে ।
টেস্ট রেজাল্টও গোল্ডেন প্লাস বেশ আশানুরুপ হলো । এখন স্কুল যাওয়া হয়না স্বয়নের ফাইনাল পরীক্ষার দিন দশেক বাকি ।

১,০৯৫ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
01912657988 অথবা 01853861342
সর্বমোট পোস্ট: ১৮৫ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৩৬৩৬ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৮-২৩ ১১:৪২:৪১ মিনিটে
banner

২ টি মন্তব্য

  1. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    পড়লাম। এগিয়ে যান।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top