Today 17 Jan 2022
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

কলকীর কথা (অনুগল্প)

লিখেছেন: তাপসকিরণ রায় | তারিখ: ০৩/০৯/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 1097বার পড়া হয়েছে।

10527387_694137720641191_4160045339548676797_n

ফুক ফুক করে বিড়ি টানছিল গনশা। ঘোতনার ওপর ভীষণ রাগ হচ্ছিলো। কলকীর সঙ্গে তার ভাব ঘোতনা জানে। তবু কি দরকার কলকীরে ফুসলাবার ? গণশা নিজের মনে গর্জে ওঠে—ঘোতনা,তরে এমন কড়ইকে দেব, বাপের নাম ভুইলে যাবি!
গনশার ঘর নাই, ফুটপাতে তার রাত্রি বাস। গতর খেটে দিনান্তে যা পায় তাতে শরীর বেঁচে যায়।
কলকী তার মার সঙ্গে ভিক্ষা করে। গনেশের দিকে তাকিয়ে খুব হাসে। একদিন গনশা ওকে চোখ মেরে ছিল। উরে বাস, কলকীর কি সুন্দর মুখের হাবভাব, গনশারে চোখ মারল ! তারপর থেকেই ভাব, কথাবার্তা এবং ভালবাসা !
গনশা একটা চকলেট পেয়েছিল, নিজে না খেয়ে কলকীকে দেবে বলে রেখে দিয়েছে। ও চেয়ে ছিল নিজের হাতে চকোলেটটা কলকীর মুখে ঢুকিয়ে দেবে। আর সেই সুযোগে কলকীর চকলেট খাওয়া ঠোঁটে চুমু খাবে।
সেদিন দুপুরে মল্লিকদের বাড়ির বার বারান্দায় বসে ঝিমাচ্ছিল গনশা । হঠাৎ তার নজরে পড়ল ঘোতনার সাথে কলকী কোথাও যাচ্ছে। ঝিম ছুটে গেল তার। হারামজাদা ঘোতনা, আমার মালরে তুই–নিজে নিজে কথাগুলি আওড়ে নিয়ে গণশা ছুটল কলকী ঘোতনার পিছে। সেনেদের আম বাগানে সে দুজনকে ঢুকতে দেখল। গনশা স্পষ্ট দেখল, কলকীরে চুমা খাচ্ছে ঘোতনা। একবার, দুইবার, তিনবার। গণশা দৌড়ে গিয়ে ঘোতনার জামার কলার টেনে ধরে মুখ প্যাঁচিয়ে মারল দুই ঘুষি। ঘোতনা ঘোঁত ঘাঁত কিছুই করলো না। ও জানে গনশার মাল কলকী।
গনশা ভীষণ রেগে কলকীকে বলল, তুই ঘোতনার চুমা খাচ্ছিলি কেন্ ?
কলকী চুপ করে থাকে।
–ক, ক, তরে আমি ভালোবাসি, তুই ঘোতনার সঙ্গে কেন্ ক ?
কলকী এবার মুখ খোলে, কি হইছে তাতে ?
–কিছু হয় নাই ? আশ্চর্য হয় গনশা।
কলকী অবলীলাক্রমে বলে ওঠে, তুইও দে না আমায় চুমু ! তবে হ্যাঁ যতগুলা চুমা দিবি ততগুলা টাকা চাই কিন্তু !
গনশা অবাক হয়ে কলকীর দিকে তাকায়। ও রাগে ফুঁসে ওঠে, না, না, তুই আমার–
কলকী স্বাভাবিক গলায় বলে ওঠে, ভিখারীর মাইয়া এক জনের হয় না রে, আমি তর, ঘোতনার, সবাইর–
সমাপ্ত

১,০৭৫ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
নাম :তাপসকিরণ রায়। পিতার নাম : স্বর্গীয় শৈলেশ চন্দ্র রায়। জন্ম স্থান: ঢাকা , বাংলা দেশ। জন্ম তারিখ:১৫ই এপ্রিল,১৯৫০. অর্থশাস্ত্রে এম.এ.ও বি.এড. পাস করি। বর্তমানে বিভিন্ন পত্র পত্রিকাতে নিয়মিত লিখছি। কোলকাতা থেকে আমার প্রকাশিত বইগুলির নামঃ (১) চৈত্রের নগ্নতায় বাঁশির আলাপ (কাব্যগ্রন্থ) (২) তবু বগলে তোমার বুনো ঘ্রাণ (কাব্যগ্রন্থ) (৩) গোপাল ও অন্য গোপালেরা (শিশু ও কিশোর গল্প সঙ্কলন) (৪) রাতের ভূত ও ভূতুড়ে গল্প (ভৌতিক গল্প সঙ্কলন) (৫) গুলাবী তার নাম (গল্প সঙ্কলন)
সর্বমোট পোস্ট: ১১২ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ১৬৬৯ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৮-১১ ১৫:৪৩:৫৪ মিনিটে
banner

১ টি মন্তব্য

  1. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    সর্বনাশ বলে কি কলকি

    গল্প সুন্দর হয়ে ছে দাদা

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top