Today 16 Oct 2021
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

চলন্তিকার মান উন্নয়নে আমার কিছু প্রস্তাব

লিখেছেন: আমির ইশতিয়াক | তারিখ: ০১/০৭/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 914বার পড়া হয়েছে।

মাননীয় সম্পাদ সাহেব, আমরা ইতিমধ্যে লক্ষ্য করে দেখছি চলন্তিকাকে প্রানবন্ত করার জন্য আজ থেকে বেশ কিছু পরিবর্তন এনেছেন। তার মধ্যে ৭টি ক্যাটাগরিতে লেখকদেরকে পুরষ্কৃত করা হবে। যার যে ক্যাটাগরিতে লেখতে ইচ্ছা হয় সে সেই ক্যাটাগরিতে অংশগ্রহণ করবে। অযৌক্তিক মন্তব্য করলে ৫ পয়েন্ট কর্তন করা হবে। বাংলার পরিবর্তে ইংরেজিতে মন্তব্য করলে ৫ পয়েন্ট কর্তন করা হবে। এক দুই শব্দে একই মন্তব্য বার বার করলে তার মন্তব্য মুছে দেয়া হবে। আমি মনে করি উপরোক্ত পদক্ষেপগুলো অবশ্যই চলন্তিকার মান উন্নয়নে অত্যান্ত সহায়ক হবে। তবে উপরোক্ত পদক্ষেপগুলোর পাশাপাশি যদি আমার কিছু প্রস্তাব মাননীয় সম্পাদক সাহেব গ্রহণ করেন তাহলে আমি মনে করব চলন্তিকার সৌন্দর্য আরো বৃদ্ধি পাবে। নিম্নে আমার প্রস্তাবগুলো দেওয়া হলো।
১.আমরা ইতিমধ্যে লক্ষ করেছি আমাদের প্রতিটি লেখার শুরুতে এবং মাঝখানে বিজ্ঞাপন দেয়া হচ্ছে যা লেখার সৌন্দর্য নষ্ট করছে বলে আমি মনে করি। লেখার মাঝখানে বিজ্ঞাপন না দিয়ে অন্য কোথাও বিজ্ঞাপন দিলে আশা করি লেখার সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে এবং পাঠক-পাঠিকারাও লেখা পড়ে মজা পাবে।
২.হোম পেইজের লগো প্রতি মাসে অনন্ত একবার পরিবর্তন করলে ভাল হয়। আর এই লগোর ডিজাইনার হবে চলন্তিকার সকল রেজিস্টশনকৃত ব্লগাররা। তাদের মাঝখান থেকে একজনের একটি ডিজাইন নির্বাচন করে হোম পেইজে দেওয়া হবে এবং ডিজাইনের একপাশে সংশ্লিষ্ট ব্লগারের নাম লেখা থাকবে। এভাবে প্রতি মাসে একটি করে ১২ মাসে ১২জন ডিজাইনারকে আমরা খুঁজে পাব। তাদের মাঝখান থেকে বছরের শেষে তিনজন সেরা ডিজাইনারকে পুর®কৃত করলে আমি মনে করি সেরা লেখকের পাশাপাশি সেরা ডিজাইনারও তৈরী করতে পারবেন।
৩.সাহিত্য পদক ২০১৬ সালের পরিবর্তে ২০১৫ সালে করা হউক। কারণ এত দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা কঠিন হয়ে পড়বে। আর এতো দিন পর্যন্ত কোন লেখকের মনোযোগ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।
৪.প্রোফাইলে ছবি আপলোড করার অপশনটা আরো সহজ করলে ভাল হয়। আমি অনেক ব্লগে লেখালেখি করেছি। সব বগ্লেই ছবি আপলোড করতে পেরেছি কিন্তু চলন্তিকায় এসে ব্যর্থ হলাম।
৫.সকল ধরনের পুষ্কার ফেক্সিলোডের পরিবর্তে বই অথবা শিক্ষা সংক্রান্ত অন্য কোন উপকরণ, ক্রেস্ট প্রদান করলে ভাল হয়। কারণ কাউকে টাকা দিয়ে পুর®কৃত করা যায় না। টাকা দিয়ে তার শ্রমের মূল্য দেয়া যায়।
৬.আমি কিছুদিন যাবত লক্ষ করে দেখছি চলন্তিকায় নামে বেনামে কিছু আইডি খোলা হচ্ছে এবং ইংরেজিতে পোস্ট দিচ্ছে। পোস্টের সাথে অশ্লীল লিং সংযোগ করছে। এতে করে চলন্তিকার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। অনেকে আবার একই নামে দুটো আইডি খুলছে। এ ধরনের ভুয়া ও দ্বৈত আইডি বন্ধের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য মাননীয় সম্পাদক মহোদয়কে অনুরোধ করছি। তা না হলে অচিরে এ বগ্লটি অসাধু লোকের খপ্পরে পড়বে।
৭.যেসব লেখকরা একগুয়েমী মনোভাব নিয়ে বার বার অবোধ শিশুর মতো অন্যের নামে নালিশ করে চলন্তিকার পরিবেশ নষ্ট করতে চায় তাদেরকে সংশোধন হওয়ার জন্য সর্তকতা নোটিশ প্রদান করিলে আশা করি সবার জন্য ভাল হবে।
৮.প্রতিটি পোস্টের সাথে তারিখের পাশাপাশি সময় উল্লেখ থাকলে খুবই ভাল হয়। তাহলে প্রতিটা লেখক তার পোস্টটি কত তারিখে কোন সময়ে পোস্ট করেছে তা জানতে পারবে।
৯.প্রতিটি লেখক যাতে মন্তব্য ঘরে সরাসরি বাংলায় মন্তব্য করতে পারে সে ব্যবস্থা করলে ইংরেজি মন্তব্য করা দুর হবে।
১০.নারী লেখকদের উপস্থিতি কম। নারী লেখকদের উপস্থিতি বাড়ানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিলে চলন্তিকা আরো প্রানবন্ত হবে।
১১.পোস্টের সাথে প্রথম পেইজে লেখা সংশ্লিষ্ট ছবি আপলোড করার ব্যবস্থা করলে চলন্তিকার প্রথম পেইজ আরো আকর্ষনীয় হবে।
১২.পোস্টের লেখার ফন্ট আরো একটু বড় হলে দেখতেও সুন্দর লাগবে, পড়েও সবাই আরাম পাবে।
১৩.চলন্তিকার রেজিস্টশনকৃত লেখকদেরকে খুজে বের করার জন্য সার্চবার সংযোজন করলে ভাল হয়। কারণ যতই দিন যাবে ততই লেখক সংখ্যা বাড়তে থাকবে। প্রয়োজনে পছন্দের লেখকের লেখা পড়তে চাইলে বা তাঁর সর্ম্পকে জানতে চাইলে তাকে যাতে সহজে খুজে বের করা গেলে সবার জন্য ভাল হবে।
১৪.মাসিক পুরষ্কার গুলো মাসের শেষদিন ঘোষণা করলে ভাল হয়। আর বার্ষিক পুরষ্কারগুলো বৎসরের শেষ দিন ঘোষণা করলে ভাল।
১৫.বগ্লারদের ই-মেইলে তথ্য না পাঠিয়ে ‘সম্পাদকীয় কলাম’ নামে প্রতিদিন সম্পাদক মহোদয় বগ্লের সমস্যা, বিভিন্ন বগ্লারদের প্রশ্নের জবাব, চলমান কোন ঘটনা ইত্যাদি নিয়মিত লিখলে সবার জন্য মঙ্গল হয়। এতে করে সবাই প্রতিদিন চলন্তিকার আবডেট খবর জানতে পারবে। কারণ ই-মেইল অনেকেই নিয়মিত খোলে না। আবার অনেকের ই-মেইলে সমস্যা থাকতে পারে। যেমন আমি বিগত পনের দিন যাবত আমার ই-মেইল ওপেন করতে পারছি না। চলন্তিকা থেকে বেশ কিছু ই-মেইল আসছে তা এখনও পড়তে পারছি না।
১৬.মাননীয় সম্পাদক সাহেবের ছবি এবং নাম থাকলে সবার জন্য ভাল হয়।
১৭.২৭ জুন একবার সবার পয়েন্ট ০ করলেন এখন আবার আজ সবার পয়েণ্ট ০ কেন? যথাযথ জবাব চাই। এমন নীতি পরিহার না করলে অচিরেই এ বগ্ল ছেড়ে অনেকেই চলে যাবে বলে আমার বিশ্বাস। পয়েন্ট ০ করার জন্য নির্দিষ্ট একটি দিন চাই।
অতএব আশা করি আমার প্রস্তাব গুলো সম্পদক মহোদয় আমলে নিলে চলন্তিকার সৌন্দর্য বৃদ্ধি পবে। পাশাপাশি পাঠক সংখ্যাও দিন দিন বৃদ্ধি পাবে।

১,০৫১ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
আমির ইশতিয়াক ১৯৮০ সালের ৩১ অক্টোবর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর থানার ধরাভাঙ্গা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা শরীফ হোসেন এবং মা আনোয়ারা বেগম এর বড় সন্তান তিনি। স্ত্রী ইয়াছমিন আমির। এক সন্তান আফরিন সুলতানা আনিকা। তিনি প্রাথমিক শিক্ষা শুরু করেন মায়ের কাছ থেকে। মা-ই তার প্রথম পাঠশালা। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা শুরু করেন মাদ্রাসা থেকে আর শেষ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ে। তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে নরসিংদী সরকারি কলেজ থেকে সমাজবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ছাত্রজীবন থেকেই লেখালেখি শুরু করেন। তিনি লেখালেখির প্রেরণা পেয়েছেন বই পড়ে। তিনি গল্প লিখতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করলেও সাহিত্যের সবগুলো শাখায় তাঁর বিচরণ লক্ষ্য করা যায়। তাঁর বেশ কয়েকটি প্রকাশিত গ্রন্থ রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য উপন্যাস হলো- এ জীবন শুধু তোমার জন্য ও প্রাণের প্রিয়তমা। তাছাড়া বেশ কিছু সম্মিলিত সংকলনেও তাঁর গল্প ছাপা হয়েছে। তিনি নিয়মিতভাবে বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকায় গল্প, কবিতা, ছড়া ও কলাম লিখে যাচ্ছেন। এছাড়া বিভিন্ন ব্লগে নিজের লেখা শেয়ার করছেন। তিনি লেখালেখি করে বেশ কয়েটি পুরস্কারও পেয়েছেন। তিনি প্রথমে আমির হোসেন নামে লিখতেন। বর্তমানে আমির ইশতিয়াক নামে লিখছেন। বর্তমানে তিনি নরসিংদীতে ব্যবসা করছেন। তাঁর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা একজন সফল লেখক হওয়া।
সর্বমোট পোস্ট: ২৪১ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৪৭০৯ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৬-০৫ ০৭:৪৪:৩৯ মিনিটে
Visit আমির ইশতিয়াক Website.
banner

১০ টি মন্তব্য

  1. সম্পাদক মন্তব্যে বলেছেন:

    ১. পোস্টের হেড লাইনের পর বিজ্ঞাপন থাকবে। বিজ্ঞাপন দাতার সাথে কথা বলে ইতিমধ্যে আমরা পোস্টের মাঝের বিজ্ঞাপন বন্ধ করেছি। আর সে জন্য আমাদের ৫০% টাকা তাকে ফেরত দিতে হয়েছে। কারন তারা এই সাইট সম্পর্কিত বেশ কিছু খরচ বহন করতে রাজি হয়েছিল। চলন্তিকার উদ্দেশ্য হচ্ছে ব্লগের খরচ নিয়ে কোন কিছুই লেখকদের কাছ থেকে চাওয়া যাবে না। এটা বিজ্ঞাপন দাতারও শর্ত।

    ২.হোম পেইজের লগো প্রতি মাসে অনন্ত একবার পরিবর্তন করলে ভাল হয়। আপনার এই প্রস্তাবের সাথে আমরা একমত।
    ৩.সাহিত্য পদক ২০১৬ সালের পরিবর্তে ২০১৫ সালে আমরাও করতে চাই। আর সে জন্য ভাল বাজেট দরকার। আমাদের সাথে একটা প্রতিষ্ঠানের কথা ছিল যে মার্চ ২০১৫ এর মাঝে যদি লেখকের সংখ্যা ৩০০০ এর অধিক, ২০,০০০ এর অধিক লেখা, ৭৫,০০০ এর অধিক মন্তব্য, সাথে Alexa ranking এ বাংলাদেশে ১০০০ এর ভিতরে থাকলে তারা আমাদের মাসিক ভিত্তিতে ৮০ পৃষ্ঠার পেপারব্যাক নিউজপ্রিন্টে ছাপা ম্যাগাজিনের খরচ বহন করবে। আর সেটা চলন্তিকার যে সব লেখক আগের মাসে ৫০০ পয়েন্ট অথবা ১০০ এর অধিক মন্তব্য করবেন, তাদের ঠিকানাতে ফ্রি পাঠানো হবে। চলন্তিকা সাহিত্য পদক দেবার খরচ তারা বহন করবে। যদি ২০১৫ তে অনুষ্ঠান করতে চাই তাহলে এই লক্ষ্যমাত্রা আমাদের সেপ্টেম্বর ২০১৪ এর মাঝে করতে হবে। আপনারা বেশি করে লিখুন, বেশি করে মন্তব্য করুন, অন্যকে লিখতে উৎসাহ দিন তাহলেই আমরা ২০১৫ তে পারব ইনশাল্লাহ।
    ৪. gravatar.com এর সিস্টেমটি সবচাইতে সহজ। আপনাকে মাত্র একবার আপলোড করতে হবে। তাতে আপনি বহু ব্লগে অটো ছবি দেখতে পাবেন।
    ৫. শুধুমাত্র প্রদায়ক দের সম্মানী মোবাইলে দেওয়া হবে।
    ৬. অর্থহীন নিক সাথে সাথেই বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। আপনার যদি মনে হয় যে একই লেখকের একাধিক আইডি আছে তাহলে সেটা প্রকাশ করুন।
    ৭. নালিশ করার ব্যাপারটা আমাদেরও পছন্দ নয়। সেই সাথে জানিয়ে রাখি এখানে কাউকে সতর্ক করতে হলে সম্পাদকই তা পারেন। অন্য কেউ নয়।
    ৮. পোস্টের তারিখের সাথে সময় গুরুত্বপূর্ণ নয়।
    ৯. এই ব্যাপারে আমরা চেষ্টা করছি।
    ১০.নারী লেখকদের উপস্থিতি বাড়ানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
    ১১. আমরা প্রথম পেজে ছবি রাখতে চাই না। তাতে পেজ ওপেন হতে সময় লাগে বেশি।
    ১২. Browser পরিবর্তন করুন, font বড় দেখতে পাবেন।
    ১৩. খুব শিগ্রই সার্চবার সংযোজন করা হবে।
    ১৪. একমত।
    ১৫. তাহলে সম্পাদকের কথাতেই প্রথম পেজ ভরে যাবে।
    ১৬. এটি দুই বছরের আগে প্রকাশ করা যাবে না। এই মর্মে সম্পাদক অঙ্গীকারবদ্ধ ।
    ১৭. এখন থেকে মাসের শেষ দিন পয়েন্ট শূন্য করে প্রদায়ক দের ফলাফল ঘোষণা করা হবে। এইবারের জুন আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি।

    • আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

      মাননীয় সম্পাদ সাহেব আমার একাধিক প্রস্তাবের সাথে একমত হওয়ায় আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আর কিছু কিছু প্রস্তাব আপনার সীমাবদ্ধতার কথা স্বীকার করেছেন। এ ব্যাপারে আমার কিছু বলার নেই। তবুও কিছু প্রস্তাবের উত্তরে আমাকে প্রতি উত্তর দিতে হচ্ছে। নিম্নের উত্তর গুলো লক্ষ্য করুন।
      ১. প্রয়োজনে বিজ্ঞাপন আরো বাড়িয়ে দেন। তবুও লেখার মাঝখানে বিজ্ঞাপন দিবেন না।
      ২. কবে নাগাদ বাস্তবায়ন হবে তা জানাবেন।
      ৩. চেষ্টা করব লক্ষমাত্রায় পৌঁছতে। অন্যদেরকে এ ব্যাপারে উৎসাহ দিবেন।
      ৪. কিন্তু সেই কাজটিই আমি করতে পারছি না। এই ঠিকানাতে প্রবেশ করেও ছবি আপলোড করার চেষ্টা করেছি। ব্যর্থ হলাম।
      ৫. এ ব্যাপারে আমার আর কিছু বলার নেই। কিন্তু নির্বাচিত প্রদায়করা কতদিন পর সেই টাকা মোবাইলে পাবে? আমি আমার মোবাইল নম্বর ই-মেইল করেছিলাম। পেয়েছেন কি?
      ৬. ধন্যবাদ অর্থহীন নিক বন্ধের পদক্ষেপ নেয়ার জন্য। একই লেখকের একাধিক আইডি আমি দেখতে পেয়েছি কিন্তু এ মুহূর্তে দেখতে পারছি না। পাইলে তা প্রকাশ করব।
      ৭. সতর্ক করার ব্যাপারটা একমাত্র আপনার হাতেই ন্যাস্ত থাকবে।
      ৮. পোস্টের তারিখের সাথে সময় দিলে মন্দটা কোথায়?
      ৯. অপেক্ষায় রইলাম।
      ১০. কিভাবে ব্যবস্থা নিবেন জানালে আমরাও সহযোগিতা করতাম।
      ১১. আপনি যা ভাল মনে করেন তাই হবে।
      ১২. চেষ্টা করব। আমি মজিলা ফায়ারফক্স ব্যবহার করি।
      ১৩. অপেক্ষায় রইলাম। সার্চবার থাকলে সবাই উপকৃত হবে।
      ১৪. ধন্যবাদ আমার প্রস্তাবের সাথে একমত পোষন করার জন্য।
      ১৫. প্রথম পেইজে সমস্যা হলে উপরের বারে ‘বাজারদর’ এর পাশে দিতে পারেন। ভেবে দেখবেন।
      ১৬. এখানে আমার কিছু বলার নেই।
      ১৭. আশা করি সবাই এ ব্যাপারটা বুঝবেন।

  2. কাউছার আলম মন্তব্যে বলেছেন:

    আমির ভাই আপনার প্রস্তাবের সাথে আমি সম্মতি প্রদান করছি।

  3. এ হুসাইন মিন্টু মন্তব্যে বলেছেন:

    সুন্দর প্রস্তাবনা, আমি এর সাথে সহমত পোষণ করছি,,

  4. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    ২, ৫, ৮, ১০, ১৫ নং প্রশ্নের প্রতিউত্তরে সম্পাদক সাহেবকে জবাব দেয়ার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।

  5. Arifur Rahman মন্তব্যে বলেছেন:

    আমি ও এই ব্যাপারে একমত প্রকাশ করছি!

  6. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    আমার লেখাটি সবাইকে আবারও পড়ার অনুরোধ রইল।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top