Today 28 Jul 2021
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

বেনোজলে ভেসে…

লিখেছেন: সুমন সাহা | তারিখ: ১৮/০১/২০১৫

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 1041বার পড়া হয়েছে।

607559f96c544af5b18a13e7c36345ec

এবং
আমিও দেখেছি,
নর্তকীর নাচ, দেখেছি জলসা ঘরের
ঝুলন্ত ব্যদ্যানে বেনোয়ার ঝাড়,
চোখ পুড়িয়েছি চোখ সঙ্গমে
নাচছো নটীর মতো, দুলিয়ে চারপাশ।

এবং
আমিও প্রশ্ন করেছি;
নতজানু নর্তকীর ঘোমটার কাছে
কেন তুমি এ জলসাঘরে,
বলিদান করছো পাথেয় বিবেক,
পুড়িয়েছো অনেকের ঘর ইতিপুর্বে
আর কত ঘর ছারখার হলে শান্তি মিলবে তোমার।

এবং
নর্তকী তুমি বলেছিলে
বাবু, পাড়ে বসে তুফান দেখতে সবারই রোমাঞ্চ লাগে
পারলে এ হাতদুটি চেপে ধরে,
চলে এসো এ তুফান মাঝে
হৃদয় দিয়ে যখন উপলব্ধি করবে;
এ তুফানের অবিশ্রাম তান্ডব
তবে যদি বুঝতে পারো এ দেহ ক্লেশ,
কেন জেনেশুনে এ তুফানে ঝাপ দিয়েছি
কি পারলে না’তো বাবু?
হাতদুটো চেপে ধরে এ তুফানে নিজেকে ডুবাতে
অবশ্য তোমার আর দোষ কি বলো
অনেককালের আগে হয়তো
এভাবেই হাত ছেড়ে দিয়ে তুফানে তলিয়ে রেখে
কেউ চলে গিয়েছিলো,
হয়তো এ সমাজের তৈরী দারিদ্র্য সমাসে
অব্যয়ীভাব কর্মধারার এক পথে হাটতে হাটতে,
এ তুফানের উদগীরিত ফণা দেখতে শিখেছি

এবং
আমিও জেনেছি;
এ জলসাঘরের বেনোয়ার ঝাড়ের নিচে-
নর্তকীর নাচ, কেবলই এক শরীর প্রেমের
রোমাঞ্চে বুদ হয়ে পড়ে থাকা নয়;
পিছনেতে এক দীর্ঘতম কালসিটে সমাজের
অস্পৃশ্য দাগ দেখতে পাই
অথচ চাঁবুকের ঘায়ে রক্তাক্ত হয় তাঁরা,
আর আনন্দে আত্মহারা হই আমরা।

এবং
আমিও বলে উঠি;
এ বানওয়ারী
মদ আন মদ,
এ নর্তকী বাজা তোর ঘুঙ্গুর, এ বাজিয়ে থামলি কেন
বাজা, বাজা, ফাটিয়ে বাজা ঢোল আর তবলা
নেশা কেটে গেলো যে,
ধ্যৎ, বাইজি তোর বহুত ডায়লগ শুনেছি….

এবং
নেশা কেটে গেলে আমিও ভেবেছি;
হয়তো কেঁদেছিও দুফোঁটা
তবু পুরুষ হয়ে বেঁচে থাকার নেশায়
এ কান্না সম্বরণ করতে হয়েছে,
নইলে যে ভুলে যাবে ওরা;
আমরা বাঘ, শিকার করতেই এ ধরাধামে এসেছি
কেবল জিততেই জানি, হারতে শিখিনি।

১,০২৫ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
কর্মজীবনে আমি একজন সফটওয়্যার প্রকৌশলী। শ্রমিক হিসাবে কাজ করছি পূবালী ব্যাংক লিমিটেডের জন্য। লেখালেখি করছি ১২ বছর যাবৎ। প্রথম ছাপার অক্ষরে লেখা প্রকাশিত হয় ২০০৪ সালে প্রথম আলোর "ছুটির দিনে" নামক একটি সাপ্তাহিকীতে "বেপরোয়া" ছদ্মনামে। অনলাইন লেখালেখিতে পদার্পণ করি ২০০৯ সালে "প্রথম আলো ব্লগ" এর হাত ধরে। সেখানেও আমি লেখালেখি করেছি "বেপরোয়া" নামে। একই সাথে লিখতে থাকি ফেসবুকে আমার পাতাতে ওই একই সময়ে। এরপর যুক্ত হই "মুক্ত ব্লগে" ২০১০ সালে "সুমনাস'শ" নাম ধারণ করে। সর্বশেষ যুক্ত হই "ঘুড়ি ব্লগ"-এ ২০১৪ সালে "সুমন সাহা" নামে এবং এখন থেকে চলন্তিকার সাথে যুক্ত হলাম ওই একই নামে। বেশ আগে একজন বলেছিলো, টেক পাবলিক হয়েও কিভাবে এমন লিখতে পারেন আপনি। আমি বলেছিলাম, "লেখারা নিজে থেকে এসে শব্দোৎপাত করলে কি করবো বলুন । অন্য কেউ হয়তো তাঁর কথাগুলো আমাকে দিয়ে লিখিয়ে নিচ্ছে। আমি লিখছি না, আমাকে দিয়ে খোদাই করানো হচ্ছে এই যা।" এই দেখুন লিখে দিলাম, "এ আমার আপন সত্ত্বা, মিলেমিশে একাকার হয়ে তোমার প্রাচীন নিশ্বাস মিশে, অন্ধকারের মাঝে এ আমি কাকে খুঁজি?..." অবশেষে এই অলেখক অবলেখনে বলছে, এই হিজিবিজি অংশখানি পুরোটুকু সময় দিয়ে পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ জানাই। পাশে থাকুন, ভালো থাকুন, ভালো রাখুন।
সর্বমোট পোস্ট: ৭৬ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৯৪ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৫-০১-০৩ ০২:৫৪:৩১ মিনিটে
banner

৫ টি মন্তব্য

  1. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    বাব্বা কি কঠিন

    অসম্ভব ভাল লাগল কবিতা

  2. সহিদুল ইসলাম মন্তব্যে বলেছেন:

    অসাধারণ লেখার ধার। বসলো থাকুন কবি।

  3. সুমন সাহা মন্তব্যে বলেছেন:

    অনেক ভালো লাগলো, সহিদুল ইসলাম।

    এইরুপ মন্তব্যে বরাবর অনুপ্রেরণা পাই।

    শুভেচ্ছা রইলো নিরন্তর।

    ভালো থাকুন।

  4. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    এবং সুন্দর
    ভালো লাগা জানিয়ে গেলাম বেশ তো

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top