Today 17 Jan 2022
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

স্বপ্ন – তোমায় ছড়িয়ে দিবো নিবিড় মমতায়

লিখেছেন: ফিদাতো মিশকা | তারিখ: ২৪/০৬/২০১৩

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 946বার পড়া হয়েছে।

আমরা মানুষরা স্বপ্ন দেখতে ভালবাসি । কিন্তু স্বপ্নকে ছড়িয়ে দিতে কি সবাই পারি । আমি মানুষটা খুব কষ্টবাদী অথবা কষ্টবিলাসী। মাঝে মাঝে আমি আমার স্বপ্নকে ছুঁয়ে দিতে চাই অথবা ছড়িয়ে দিতে চাই ।
আমি একটা আশ্রম দেওয়ার স্বপ্ন দেখি । জানি , এই স্বপ্নের পথ পাড়ি দিতে আমাকে অনেক দুরের পথ পাড়ি দিতে হবে ।
একজন মানুষকে নিয়ে স্বপ্নের পথের নকশা সাজিয়েছিলাম। মানুষটা আজ অভিমান করে দূরে সরে আছে । মানুষটা নিয়ে মাঝে মাঝে পার্কে রাস্তায় সুবিধাবঞ্ছিত শিশুদের খাওয়াতাম । তাদের ছোট ছোট ইচ্ছে পুরন করতাম ।ভিতরটা এক অনাবিল শান্তিতে ভড়ে উঠত ।

আজ মানুষটা নেই কাছাকাছি , কথা বলতে পারছি না তাঁর সাথে , তবুও বাতাসের মধ্যে চিৎকার করে বলতে ইচ্ছে হচ্ছে ,প্রিয় তোমায় নিয়ে দেখা স্বপ্নের পথে আমি একটু একটু এগুচ্ছি।
আমি কিছুদিন ধরে দুজন ছাত্র পড়াই । কয়েকদিন আগে তাদের বললাম , আমি মাঝে মাঝে পার্কে শিশুদের খাওয়াই । তোমরা কি আমার সাথে যাবে । আমার সাথে গেলে তোমাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে হবে । তোমরা তোমাদের সাধ্যমতো দিবে ।
আমরা সবাই ছাত্র । আমাদের সবার সামর্থ্য সীমাবদ্ধ । তবুও আমরা চেষ্টা করেছি, কয়েকজন শিশু বৃদ্ধের মুখে একবেলা একটু ভালো খাবার একটু হাসি তুলে দিতে ।

সবাই মিলে শিশুদের খুজে বের করেছি , তাদের হাতে একটা বিরিয়ানির পকেট, একটা চকলেট আর একটা টকটকে লাল গোলাপ তুলে দিয়েছি ।মমতার স্পর্শ বুলিয়েছি তাদের মাথায় ।
ভালবেসে হয়ত তাদের হাতে কেউ কখনো গোলাপ তুলে দেয়নি ।
আমরা আমাদের ভালোবাসা ছড়িয়ে দিতে চেয়েছি । হয়ত আজকে আমরা আজ মাত্র ১৫ জন বাচ্ছা- বৃদ্ধের মুখে একটু ভালবাসার অন্ন একটু আদরের স্পর্শ এঁকে দিয়েছি । কিন্তু হয়ত এই শুরুটা আমাদের আরো এগিয়ে নিয়ে যাবে ।

কাজটা শেষ করে ফিরে আসার সময় ভালো লাগল । মনে হল আমার অভিমানীর পাশাপাশি হাত ধরাধরি করে আমি ফিরে আসছি তাঁর আমার দেখা স্বপ্নের আঙ্গিনা থেকে । সবচেয়ে ভালো লেগেছে , আমার ছাত্রদের জীবনের প্রথম বারের মতো এমন একটা কাজ করতে পেরে তারা খুব খুশি —————

পাদ টীকা – আপনারা হয়ত ভাবছেন , ব্যাপারটা আমি এতো ডাকঢোল পিটিয়ে বলছি কেন, আসলে আমি আমার স্বপ্ন টাকে ছড়িয়ে দিতে চাচ্ছি । আমার কথায় যদি আপনি একদিন একটা বাচ্ছার মুখে এক মুঠো খাবার তুলে দেন অথবা একটু ভালবেসে তাদের মাথায় মমতার স্পর্শ বিলিয়ে দেন তবে হয়ত আমার এই লেখা কাজে আসবে । আমাদের সবার ভালবাসায় সমাজ থেকে দূর হউক ক্ষুধা আর বঞ্ছনার কালো হাত ।
আজ শবে বরাতের রাতে টাই আল্লাহর দরবাএই পথ শিশু , অবহেলায় যাদের জীবন তাদের জন্য উঠে আসুক আমাদের সবার প্রার্থনার হাত ।
___________________________ফিদাতো মিশকা

১,০৬৫ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
নিজেকে নিয়ে কিছু বলতে বললে আমি সবসময় অপ্রস্তুত হই । পড়ছি শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ,বগুড়া তেঁ ৪র্থ বর্ষ এম বি বি এস । লেখালেখি জীবনের একটা বড় স্বপ্ন । সময়ের সল্পতা এই স্বপ্নের পথের অন্তরায় । তবুও আশা রাখি ফিরে আসব একদিন স্বপ্নের আঙ্গিনায়
সর্বমোট পোস্ট: ১৪ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৬৪ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৬-০২ ১৪:৪০:১৯ মিনিটে
Visit ফিদাতো মিশকা Website.
banner

৪ টি মন্তব্য

  1. আমির হোসেন মন্তব্যে বলেছেন:

    আপনার উদ্যোগগুলো খুবই প্রশংসনীয়। দোয়া করি আপনার উদ্যোগগুলো সফল হউক।

  2. আজিম হোসেন আকাশ মন্তব্যে বলেছেন:

    মা কথাটি সবচাইতে মধুর।

  3. আরিফুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    উদ্যোগগুলো খুব ভাল লাগল। ধন্যবাদ।

  4. শাহ্‌ আলম শেখ শান্ত মন্তব্যে বলেছেন:

    সুন্দর লিখেছেন তো !
    অসংখ্য অসংখ্য ভাল লাগা জানিয়ে দিলাম ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top