Today 01 Dec 2022
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

স্মৃতির পাতা থেকে ( ১১-২ )

লিখেছেন: এস এম আব্দুর রহমান | তারিখ: ০৬/০৮/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 972বার পড়া হয়েছে।

আবার কনভয় রওয়ানা হলো । আমরা যেখানে এলাম সেটি একটি আই ডি,পি ক্যাম্প । এলাকাটির নাম ধরতি । জানা গেল গত রাতে রাত্রিকালীন পেট্রোল করা কালে এখান থেকেই দুটি গাড়ি ছিন্তাই হয়েছে । এই বিষয়ে তদন্ত করার জন্য একটি পূর্নাঙ্গ টিম আমাদের সাথে এসেছে । নাইজেরিয়ার যারা ডিউটিতে ছিল এবং সিপ্পলের যে অফিসারদের গাড়ি সিন্তাই হয়েছে , তারা তদন্ত টিমের লোকদের বিভিন্ন ভাবে বুঝানোর চেষ্টা করলো যে, তারা আক্রান্ত হয়েই গাড়ি দিতে বাধ্য হয়েছে ।কিন্তু তদন্তকারী কর্মকর্তারা সে কথা খুব একটা বিশ্বাস করলো বলে মনে হলো না । নাইজেরিয়া সুদানের পাশের দেশ । এ যাব যতগুলি গাড়ি ছিন্তাই হয়েছে , তার অধিকাংশই ছিন্তাই হয়েছে নাইজেরিয়ান ড্রাইভারদের কাছ থেকে । কাজেই অনেকেই মনে করে নাইজেরিয়ান ড্রাইভাররা নিজ এলাকার ছিন্তাই কারীদের সাথে গোপনে যোসাজস করেই গাড়ি হস্তান্তর করে থাকে । একে আসলে কেহ কেহ ছিন্তাই বলে মেনে নিতে চায় না । তদন্তকারী কর্মকর্তাগন কিছুতেই বিশ্বাস করতে চাচ্ছে না যে , গুলি বিনীময়ের পর গাড়ি ছিন্তাই হয়েছে । গোপন চুক্তির মাধ্যমে গাড়ি ছিন্তাই হয়েছে এ কথা তারা বলছেন না । তবে তাদের ধারনা , হয় সব লোক গাড়িতে ঘুমিয়ে পড়েছিল , না হয় গাড়িতে চাবি রেখে দূরে কোথাও গিয়েছিল । সেই সুযোগে সুযোগ সন্ধানীরা গাড়ি নিয়ে পালিয়ে গিয়েছে । এই ঘটনাকে বৈধতা দেওয়ার জন্য গাড়ি নিয়ে যাওয়ার পর নিজেদের একটি গাড়িতে নিজেরাই কয়েক রাইন্ড গুলি ছুরেছে । এই ঘটনাই বিশ্বাস যোগ্য মনে হয় । কারণ একটি প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত সুশিক্ষিত প্রায় ৫০ সদস্য বিশিষ্ট ও একটি এ, পি, সি সম্বলিত বাহিনীর নিকট থেকে বিনা কেজুয়েল্টিতে গাড়ি নিয়ে যাওয়া প্রায় অসম্ভব । প্রায় বলছি কেন, সরাসরিই অসম্ভব বলা যায় । আমি মনে মনে ভাবলাম বাঙ্গালী ফোর্সদের নিকট থেকে এত সহজে গাড়ি নিয়ে যেতে পারবে বলে মনে হয় না ।যেখানে একটি বুলেট প্রোফ এ, পি, সি আছে । সেখানে এ, পি, সি নিয়ে ফলো করে এল এম জি দিয়ে ফায়ার করলে গাড়ি নিয়ে যাওয়ার কোন কায়দা নেই । ব্যক্তি জীবনে আমি একজন মুক্তি যোদ্ধা । পিছাতে জানিনা । কাজেই আমার কাছ থেকে গাড়ি ছিন্তাই করে নেওয়া আমি অসম্ভব বলেই মনে করি । অবশ্য বাংলাদেশী ফোর্স যদি সব পালিয়ে না যায় । বাংলাদেশী ফোর্স বলছি বলে –মনোক্ষুন্ন হওয়ার কোন কারণ নেই । আমি নিজেও একজন বাংলাদেশী ফোর্স । এ কথা বলতে গিয়ে পুরনো দিনের একটি কথা মনে পরে গেল । তখন ১৯৮১ সাল । আমার কর্ম জীবন শুরু । আমি জামালপুর ঝেলার সরিষাবাড়ী থানার প্রবেশনার । আমার ও, সি পুরনো লোক এবং খুব ভাল ও নাম করা ও ,সি । তিনি একদিন কথা প্রসঙ্গে
বললেন—“ প্রবেশনার –, ডিপার্টমেন্টে যতদিন পাকিস্তানী ফোর্স আছে ততদিন অন্তত কোন কাজের জন্য মফস্বলে গেলে এক জন হলেও পাকিস্তানী ফোর্স সাথে নিবে ।“ আমি জানতে চাই –কেন স্যার ? বাংলাদেশী ফোর্স আবার কি করলো । তিনি পূনরায় বললেন—
“ কোন কাজের জন্য গেলে নিজেই টের পাবে । তবু বলি – কোথাও গিয়ে যদি নিজে বিপদে পর , তখন দেখবে ঐ একজন পাকিস্তানী ফোর্স ই তোমার সামনে এসে দাঁড়িয়েছে এবং বলছে—‘ স্যার পিছনে দাঁড়ান । মরলে আমি আগে মরবো , পরে আপনি । পিছনের দিকে চেয়ে দেখবে বাংলাদেশী ফোর্স তোমাকে রেখে হয় পালিয়েছে , না হয় দূরে কোথাও নিরাপদ আশ্রয়ে চলে গেছে । শোন, এ সব অভিঞ্জতা থেকেই বলছি । পাকিস্তানী ফোর্স বলবে-, স্যার, মরতে যদি হয় তাহলে আগে আমি, পরে আপনি । আর বাংলা দেশী ফোর্স বলবে ‘ চাচা আপণ প্রাণ বাঁচা । “ অবশ্য মরু ভূমিতে পালানোর কোন জায়গা নেই । তাই কেহ ভাগবে বলে মনে হয় না ।

৯৪৩ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ৩৩১ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৪৮৪ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৯-০৮ ১৩:৩৯:৪৭ মিনিটে
banner

২ টি মন্তব্য

  1. আহমেদ রব্বানী মন্তব্যে বলেছেন:

    তিনি একদিন কথা প্রসঙ্গে
    বললেন—“ প্রবেশনার –, ডিপার্টমেন্টে যতদিন পাকিস্তানী ফোর্স আছে ততদিন অন্তত কোন কাজের জন্য মফস্বলে গেলে এক জন হলেও পাকিস্তানী ফোর্স সাথে নিবে ।“

    • এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

      এ বাক্যের পরে তার ব্যাখা দেওয়া আছে । আপনার তা সঠিক বলে মনে নাও হতে পারে । কষ্ট করে পড়ার জন্য ধন্যবাদ ।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top