Today 28 Sep 2021
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

স্মৃতির পাতা থেকে –১৩-৬ ।

লিখেছেন: এস এম আব্দুর রহমান | তারিখ: ০৫/১১/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 848বার পড়া হয়েছে।

কি ব্যাপার আপনি এত সকালে থানায় ? নৌকার কোন খুঁজ পেয়েছেন ? বসুব । লোকটি বসলো । কিছুক্ষণ পর লোকটি কিছু টাকা হাতের মধ্যে নিয়ে ঊক্ত টাকা আমার হাতের মধ্যে দিয়ে আমার হাত চেপে ধরলো । আমি বললাম –
কি করছেন আপনি ? আমার হাত ছেরে দিন ।আমি আপনার নৌকা খুঁজে বের করতে যথেষ্ট চেষ্টা করবো । লোকটি আমার হাত ছেরে দিলে দেখলাম, ঐ ব্যক্তি আমার হাতে তিন শত টাকা দিয়েছে । আমি তাকে বললাম—
আপনার নৌকা খোঁজতে আমাকে টাকা দিতে হবে কেন ? আমি কি আপনার নিকট টাকা চেয়েছি ? আপনাকে কে বলেছে যে আমাকে টাকা দিতে হবে ? আপনার টাকা আপনি ফেরৎ নিন । লোকটি কিছুতেই টাকা ফেরৎ নিতে চাচ্ছে না । ফলে আমি বাধ্য হয়ে বললাম —
আপনি টাকা ফেরৎ না নিলে আমি আপনার নৌকা খুঁজবো না । এ কথা বলার পর লোকটি টাকা ফেরৎ নিল । তিন শত টাকাকে একেবারে কিমি. ভাবছেন কেন ? সে সময় আমি ৪২৫ টাকা স্কেলে চাকরী করতাম । তাকা ফেরৎ নিয়ে লোকটি কাঁদতে লাগলেন । আমি বললাম —
আরে ভাই আপনি কাঁদছেন কেন ? আমি তো বললাম , আপনার নৌকা আমি খোঁজে বের করবো । লোক টি বললেন —
“ সারা জীবন শুনেছি , পুলিশ মানুষদের অত্যাচার করে তাকা নেয় । কিন্তু টাকা দিলে জোর করে সে টাকা ফেরৎ দেয় , তা আজ দেখলাম । তাই চোখে পানি এসেছে ।“ আমি বললাম –
আচ্ছা, আমাকে টাকা দিতে হবে এ ক্তহা আপনাকে কে বলেছে সেটাতো বললেন না । লোকটি বললো—
“স্যার , গত কাল আপনারা যখন আমার বাড়ি গিয়েছিলেন তখন আপনার সাথের কনষ্টবলেরা বলেছে যে , আপনাকে টাকা না দিলে আপনি আমার নৌকা খুঁজে বের করবেন না । “ আমি পূনরায় তাকে জিজ্ঞেস করলাম –আমি আপনার বাড়ি গিয়ে যে অবস্থা দেখে এলাম , তাতেতো আপনার ঘরে কোন জমা টাকা থাকার ক্তহা নয় । আপনি এই টাকা যোগার করলেন কিভাবে ? লোকটি বললেন —
“ স্যার , আমার ৮ শতাংশ জমি আছে । সেই জমিতে আমি ইরি ধান লাগিয়েছি ।ধানের ফলনো
খুব ভাল হয়েছে । ধান সহ সেই জমি ৫০০ শত টাকায় বন্ধক দিয়ে ২০০ শত টাকা খাওয়ার জন্য রেখে বাকী ৩০০ শত টাকা আপনাকে দিয়েছি । “ আমি বললাম –
এখনই গিয়ে জমির টাকা ফেরৎ দিন । লোকটি বললো—-
“ জমির বন্ধক গ্রহিতা এখন আর টাকা ফেরৎ নিবে না । এবারকার ধান সে নিয়েই নিবে । “ লোকটির চোখ দিয়ে এ সময় পানি ঝড়ছিল । আমি তাকে বললাম—
আপনি আজই গিয়ে টাকা ফেরৎ দিয়ে আমার কথা বলবেন । তবু যদি টাকা ফেরৎ না নেয় , তবে বিকেলে এসে আমাকে জানাবেন । তাহলে বিকেলে আমি ঐ লোকের নিকট যাব । লোকটি চলে গেল । আমি থানায় এসে বিষয়টি সাধারণ ডায়রী ভূক্ত করে পার্শবর্তী সকল থানায় ও নদী বহুল থানা গুলিতে বার্তা প্রেরণ করলাম । খোদা আমার মুখ রক্ষা করলেন । বার্তা পাঠানোর দুই দিন পর সরিষা বাড়ী থানা থেকে ওয়ার্লেসের মাধ্যমে জানাল যে , আমার বর্ণিত নৌকাটি তাদের থানা এলাকায় পাওয়া গিয়েছে । চালকহীন অবস্থায় নদী দিয়ে ভেসে যাচ্ছিল । এক সুহ্রদয় ব্যক্তি নৌকাটি ধরে নিয়ে নিজের হেফাজতে রেখেছে । আমি সংবাদ পেয়ে একজন কনষ্টবল পাঠিয়ে ঊক্ত লোকটিকে সংবাদ দিলে সে সরিষাবাড়ী থানায় গিয়ে তার নৌকা নিয়ে আসে । নৌকা পেয়ে লোকটি পরদিন থানায় এসে আমাকে ধন্যবাদ জানিয়েছিল এবং আরো জানিয়েছিল যে , জমির বন্ধক গ্রহিতা আমার কথা শুনে তার টাকা ফেরৎ নিয়েছিল । লোকটি তার নৌকা ফেরৎ পাওয়াতে আমার খুব ভাল লেগেছিল । তখন তার মুখটি কৃতঞ্জতায় ভ রা আনন্দে ঊজ্জল দেখাচ্ছিল । যে কারণে এ কথা গুলো বলা । আমাদের ডিপার্ট মেন্টের অনেক অফিসারকে না জানিয়েই নিম্ন পদের লোকেরা অফিসারদের দোহাই দিয়েওনেক অকাজ করে থাকে ।যার দুর্নামের ভাগ অফিসারকেও বহন করতে হয় । আমার এই ঘটনায় যদি ঊক্ত লোকটি সরাসরি আমার নিকট না এসে যে কনষ্টবল তাকে টাকা আনতে বলেছিল তার সাথে দেখা করতো তা হলে ঐ লোকের টাকা আমাকে দেওয়ার নাম করে ঐ কনষ্টবল হজম করে ফেলতো ।আমি কোন দিন জানতেও পারতাম না । কোন কারণে যদি তার নৌকা না পেত তাহলে তার ক্ষেতের ধান অন্যের গোলায় চলে যেত । নৌকার অভাবে সে ব্যবসা করতে না পারায় তার স্ত্রী সন্তানেরা অর্থ কষ্টে দিন কাটাতো এবং যুগের পর যুগ ধরে সে পুলিশের এই খারাপ আচরণের কথা লোকের নিকট বলে বেড়াতো ।আমাদের সিনিয়্র অফিসারদের এই সব বিষয়ে খুবই সতর্ক থাকা ঊচিৎ । কারণ ঘটনা ছোট খাট হলেও এ সকল ঘটনা পুলিশের জন্য দুর্নাম
ছড়ায় বড় আকারের ।আমি ব্যক্তিগত জীবনে নিজের ভাল করতে পারিনি সত্য , কিন্তু আমার সাধ্য মত অন্যের ভাল করার চেষ্টা করেছি আজীবন ।এজন্য কোন কোন সময় ছোট খাট বিপত্তিতে যে পরতে হয়নি তা নয় ,পরতে হয়েছে । কিন্তু সে ক্ষণিকের জন্য । ঊৎড়িয়েও গিয়েছি কোন না কোন ভাবে । “হাবুপ ‘ আসছে । কাজেই সে কথা না হয় আর এক দিন বলবো ।

৮৩৯ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
সর্বমোট পোস্ট: ৩৩১ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ২৪৮৪ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৯-০৮ ১৩:৩৯:৪৭ মিনিটে
banner

৩ টি মন্তব্য

  1. সহিদুল ইসলাম মন্তব্যে বলেছেন:

    সব মানুষকে এক ভাবা ঠিক নয়, ভালো লাগলো আপনার স্মৃতির ডায়েরী, ধন্যবাদ, ভালো থাকুন।

  2. এস এম আব্দুর রহমান মন্তব্যে বলেছেন:

    কষ্ট করে পড়েছেন বলে অশেষ ধন্যবাদ । শুভেচ্ছা রইল । ভাল থাকুন সতত ।

  3. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    আল্লাহ আপনার অনেক মঙ্গল করুন। ভাল থাকুন স্বপরিবারে

    আমারও চোখে পানি এসে গেছে।

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top