Today 21 May 2022
banner
নোটিশ
ব্লগিং করুন আর জিতে নিন ঢাকা-কক্সবাজার রুটের রিটার্ন বিমান টিকেট! প্রত্যেক প্রদায়কই এটি জিতে নিতে পারেন। আরও আছে সম্মানী ও ক্রেস্ট!
banner

হঠাৎএকদিন(গোয়েন্দা কাহিনী)

লিখেছেন: আরজু মূন জারিন | তারিখ: ০৪/০৫/২০১৪

এই লেখাটি ইতিমধ্যে 1542বার পড়া হয়েছে।

sherlock holmes watson

(পর্ব-চার)

মসজিদ থেকে  মুয়াজ্জিনের  সুমধুর  আজান  ধ্বনি  ভেসে আসছে।সুবহ সাদিকের এর সময়টা আনোয়ারের বড় প্রিয়।জানালার পর্দা সরিয়ে কিছুক্ষন আবলোকন করল প্রকৃতির মনোরম দৃশ্য।চমৎকার সকাল নয়নাভিরাম প্রকৃতি স্বত্বেও তার স্নায়ুর এক অংশ হয়ে আছে অত্যন্ত সজাগ।কি যেন একটা মেসেজ প্রকৃতি তাকে কাল রাত থেকে দিয়ে যাচ্ছে।কি সেটা সেটা বের করার চেষ্টা করছে সে।

সবঘটনা একটার পর একটা কাগজে ড্র করে সাজিয়ে নিচ্ছে।একইভাবে কল্পনার চোখে ঘটনাগুলিকে ঝালিয়ে নিচ্ছে।করিম সাহেবের খুন হওয়া বাড়ীর দারোয়ানকে পুলিশের ধরে নিয়ে যাওয়া একাকী থাকা অল্পবয়সী মেয়ে ভাড়াটিয়ার সাথে পরিচিত হওয়া়একতলার ভাড়াটিয়া  আহসান মন্জিলে বাস করা এবং আসাদের উপর হামলা হওয়া।মেয়েটির সাথে সম্পর্ক এবং সর্বোপরি মেয়েটার সাথে অন্য ভাড়াটিয়াদের সম্পর্ক।আসার সময় তাদের অনুসরন কে করতে পারে?আসাদ?

ওহহো কি ভাবছে সে আসাদ তো এখন হসপিটালে অজ্ঞাত আততায়ীর ছুরিকাঘাতের পর।নিজের মাথায় টোকা দেয় আনোয়ার বিরক্তিতে।নাহ এভাবে ভাবলে হবেনা।আবার শুরু করল ঘটনার বিশ্লেষন।

ভাবতে ভাবতে চোখ মুখ উজ্জল হয়ে উঠল।

তাইতো দুইহাত মুষ্ঠিবদ্ধ করে চিৎকার করে উঠল

ইউরেকা পেয়েছি।উচ্ছসিত হয়ে তালি দিয়ে উঠল চিৎকার করে।

আর্কিমিডিস বন্ধু শার্লক হোমস বন্ধু আবার কি পেলে?ঘুমজড়িত কন্ঠে আলিম বলে উঠল।

তোমার গোয়েন্দা তৎপরতা গবেষনা বন্ধু কিছুক্ষনের জন্য যদি অফ করতে ভাল হত।একটু ঘুমিয়ে নিতে চাই।

বন্ধু তুমি শার্লকহোমস হও অসুবিধা নাই।পেপারে বিজ্ঞাপন দিয়ে ওয়াটসন খুজে নাও ।আমি সাধারন মানুষ তোমার খুনীগুলির ছুরির নীচে মাথা দিতে এখদম চাইনা।ঘুমজড়িত কন্ঠে মজা করে আলিম বলে।

না বন্ধু এখন মাপ নাই

সহকারী পোষার টাকা নাই।

অতএব বন্ধু তোমার মত গর্দভ ভলান্টিয়ার নিয়ে কাজ করতে হবে বলে একটানে বন্ধুর গায়ে থেকে কাঁথা সরিয়ে দিল।

উঠে পড় শীঘ্রই ক্রিসেন্ট লেক যাব।তাড়াহুড়ায় আনোয়ার বলে।

অগত্যা আলিমকে বিছানা থেকে উঠতে হল।

তাড়াতাড়ি রানিং শু পরে নাও।বন্ধু দৌড়াতে হতে পারে আজকে।বলল ব্যস্ততায় আনোয়ার।

দুইবন্ধু অনেকক্ষন খোলা মাঠটিতে হাতপা বাকিয়ে কসরত করে যাচ্ছে।এখনও কোন আশানুরুপ ঘটনা দেখা যাচ্ছেনা।আলিম স্পষ্টই বুঝতে পারছে তার শার্লক হোমস বন্ধু কিছু একটা প্রত্যাশা করছে চোখ কান খেলারেখে।

হঠাৎ সাই করে চাকতির মত ঘুরতে ঘুরতে একটি ছোট ছুরি উড়ে এসে জুড়ে বসল গেথে গেল সামনের মাটিতে আলিমের ধারনাকে সত্য করতে যেন। আলিম আনোয়ারের মাঝখানে জায়গায় মাটিতে ছুরিতে একটুকরা কাগজ গেথে পড়ল।সম্ভবত কোন বার্তা হবে ক্রিমিনালের পক্ষ্যে থেকে।দুইজনে লাফ দিয়ে উঠে দাড়াল।

(পরবর্তীতে)

১,৬৬৫ বার পড়া হয়েছে

লেখক সম্পর্কে জানুন |
নিজের সম্পর্কে কিছু বলতে বললে সবসময় বিব্রত বোধ করি। ঠিক কতটুকু বললে শোভন হবে তা বুঝতে পারিনা । আমার স্বভাব চরিত্র নিয়ে বলা যায়। আমি খুব আশাবাদী একজন মানুষ জীবন, সমাজ পরিবার সম্পর্কে। কখনো হাল ছেড়ে দেইনা। কোনো কাজ শুরু করলে শত বাধা বিঘ্ন আসলেও তা থেকে বিচ্যুত হইনা। ফলাফল পসিটিভ অথবা নেগেটিভ যাই হোক শেষ পর্যন্ত কোন কাজ এ টিকে থাকি। জীবন দর্শন" যতক্ষণ শ্বাস ততক্ষণ আশ " লিখালিখির মূল উদ্দেশ্যে অন্যকে ভাল জীবনের সন্ধান পেতে সাহায্য করা। মানুষ যেন ভাবে তার জীবন সম্পর্কে ,তার কতটুকু করনীয় , সমাজ পরিবারে তার দায়বদ্ধতা নিয়ে। মানুষের মনে তৈরী করতে চাই সচেতনার বোধ ,মূল্যবোধ আধ্যাতিকতার বোধ। লিখালিখি দিয়ে সমাজে বিপ্লব ঘটাতে চাই। আমি লিখি এ যেমন এখন আমার কাছে অবাস্তব ,আপনজনের কাছে ও তাই। দুবছর হলো লিখালিখি করছি। মূলত জব ছেড়ে যখন ঘরে বসতে বাধ্য হলাম তখন সময় কাটানোর উপকরণ হিসাবে লিখালিখি শুরু। তবে আজ লিখালিখি মনের প্রানের আত্মার খোরাকের মত হয়ে গিয়েছে। নিজে ভালবাসি যেমন লিখতে তেমনি অন্যের লিখা পড়ি সমান ভালবাসায়। শিক্ষাগত যোগ্যতা :রসায়নে স্নাতকোত্তর। বাসস্থান :টরন্টো ,কানাডা।
সর্বমোট পোস্ট: ২২৯ টি
সর্বমোট মন্তব্য: ৩৬৮৩ টি
নিবন্ধন করেছেন: ২০১৩-০৯-০৫ ০১:২০:৩৫ মিনিটে
banner

১৩ টি মন্তব্য

  1. আলমগীর কবির মন্তব্যে বলেছেন:

    ফন্টজনিত সমস্যা হয়েছে বোধ হয়। আপনার লেখাটা পড়া যাচ্ছে না।

  2. আরজু মূন মন্তব্যে বলেছেন:

    আমি তো বুঝতে পারছিনা ফন্ট এরকম দেখাচ্ছে কেন?আনোয়ার ভাই কষ্ট করে দেখবেন কি?

  3. আহমেদ রব্বানী মন্তব্যে বলেছেন:

    ওরে বাব্বা,
    মুন আপুকে পেয়ে খুব ভাল লাগল।কিন্তু ফন্ট সমস্যায় পড়া হলো না।নো প্রবলেম, সমস্যা ঠিক হবে আশা করি।নো টেনশন।

  4. আরজু মূন মন্তব্যে বলেছেন:

    ঠিক করেছি পড়ুন এখন।রব্বানী ভাই আপনাকে এখানে পেয়ে ভাল লাগছে।ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।

  5. জসীম উদ্দীন মুহম্মদ মন্তব্যে বলেছেন:

    সাবলীল ভাষায় চমৎকার লেখনী !

  6. আরজু মূন মন্তব্যে বলেছেন:

    ধন্যবাদ আমার অত্যন্ত প্রিয় জসীম ভাই।অনেক শুভেচ্ছা রইল।

  7. তাপসকিরণ রায় মন্তব্যে বলেছেন:

    হ্যাঁ,আগের পর্বগুলি পড়িনি । তাই সার্বিক বিচার দিতে পারছিনা । এ পর্ব পড়ে মনে হচ্ছে গল্প বেশ জমে উঠেছে । ছোট বেলায় পড়া স্বপন কুমারের সিরিজের কথা মনে পড়ে যাচ্ছিল ।

    • আরজু মূন মন্তব্যে বলেছেন:

      তাপসদা!!!আপনার মত গুনী ব্যাক্তি কমেন্টস করলে অনেক প্রেরনা পাই।
      ধন্যবাদ তাপসদা মন্তব্যের জন্য।শুভকামনা রইল।ভাল থাকবেন।

  8. এই মেঘ এই রোদ্দুর মন্তব্যে বলেছেন:

    ভাল লাগল আপি। বাকিগুলো পড়ব

  9. সবুজ আহমেদ কক্স মন্তব্যে বলেছেন:

    দারুন লিখা ভাল লাগলো

মন্তব্য করুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন.

go_top